রাবির অপহৃত সেই ছাত্রী ঢাকা থেকে উদ্ধার
Published : Sunday, 19 November, 2017 at 12:00 AM
রাবি প্রতিনিধি, দিনকাল : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) হলের সামনে থেকে অপহৃত ছাত্রী উম্মে শাহী আমান্না শোভাকে অপহরণের একদিন পর ঢাকা থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। গ্রেফতার হয়েছে অপরহরণকারী সোহেল রানা ও তার বাবা জয়নাল আবেদিন। এদিকে শোভাকে অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করতে পারায় স্বস্তি প্রকাশ করে ক্যাম্পাসে আনন্দ মিছিল করেছে তার সহপাঠীরা। একই সঙ্গে অপহরণকারীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তিও দাবি করেন তারা। : রাজশাহী মহানগর পুলিশের মুখপাত্র ও সিনিয়র সহকারী কমিশনার ইফতে খায়ের আলম বলেন, শুক্রবার সন্ধ্যায় তাদের অবস্থান ঢাকায় পাওয়া যায়। রাতেই রাজশাহী পুলিশের একটি টিম ঢাকায় পাঠানো হয়। পরে ডিএমপি পুলিশের সহযোগিতায় অপহৃত ছাত্রীকে উদ্ধার করা হয়েছে। এ সময় অপহরণকারী সোহেলকে গ্রেফতার করা হয়। এর আগে শোভা অপহরণের ঘটনায় সোহেল রানার বাবা জয়নাল আবেদিনকে শুক্রবার সন্ধ্যায় নওগাঁর পতœীতলা থেকে গ্রেফতার করা হয়। জয়নাল আবেদিনের কাছ থেকে অপহৃত ছাত্রীর অবস্থান সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে বলে দাবি করেছিল পুলিশ। : শুক্রবার সকালে রাবির তাপসী রাবেয়া হলের সামনে থেকে ফিল্মি স্টাইলে অপহরণ করা হয় বাংলা বিভাগের স্নাতক (সম্মান) চতুর্থ বর্ষের ছাত্রী উম্মে শাহী আমান্না শোভা। চূড়ান্ত বর্ষের পরীক্ষা দেয়ার জন্য বের হলে হলের ফটক থেকে ৫০ গজ দূরে তাকে জোরপূর্বক মাইক্রোবাসে তুলে সটকে পড়ে শোভার সাবেক স্বামী সোহেল রানা। এ ঘটনায় শুক্রবার বিকালেই সোহেল রানাকে আসামি করে নগরীর মতিহার থানায় অপহরণ মামলা দায়ের করেন অপহৃত ছাত্রীর বাবা। : এদিকে ছাত্রী অপহরণের ঘটনায় বিক্ষোভ ও আন্দোলনে উত্তাল হয়ে ওঠে রাবি ক্যাম্পাস। সহপাঠীকে ফেরত ও অপহরণকারীদের দ্রুত শাস্তির আওতায় আনার দাবিতে শুক্রবার বিকাল থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ভবন ঘেরাও করে বিক্ষোভ করেছেন শিক্ষার্থীরা। সন্ধ্যায় শিক্ষার্থীরা ১৫ ঘন্টার আল্টিমেটাম দিয়ে কর্মসূচি প্রত্যাহার করে। : আন্দোলনরত ছাত্রীদের অভিযোগ, পূর্বঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী শনিবার সকাল ১০টার দিকে বিভিন্ন হল থেকে বের হতে গেলে ছাত্রীদের বাধা দেয় প্রশাসন। পরে ছাত্রীদের আন্দোলনের মুখে বেলা ১১টার দিকে হল গেট খুলে দেয়া হয়। এরপর শোভাকে অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার এবং ছাত্রীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করাসহ সাত দফা দাবিতে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল করে শিক্ষার্থীরা। বেলা ১১টার দিকে তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে মানববন্ধনে অংশ নেয়। পরে ছাত্রীদের একটি প্রতিনিধি দল প্রশাসনের সঙ্গে বৈঠক করে। শোভাকে ফিরিয়ে আনতে দুপুর ২টা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে আল্টিমেটাম দেয়া হয়। পরে বেলা ৩টার দিকে শোভাকে অক্ষত অবস্থায় উদ্ধারের খবর এলে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা স্বস্তি প্রকাশ করে। পরে তারা ক্যাম্পাসে আনন্দ মিছিল করে। শোভার সহপাঠীরা বলেন, শোভার সঙ্গে কথা হয়েছে। সে ভালো আছে। তবে অপহরণকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন তারা। পাশাপাশি ছাত্রীদের সাত দফা দাবি মেনে নেয়া না হলে আবারও আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দেয়া হয়। : ছাত্রীদের সাত দফা দাবিগুলো- অপহৃত ছাত্রীকে ফেরত চাই, ক্যাম্পাসে সকল শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত, ছাত্রীহলের সামনে পুলিশ চেকপোস্ট, প্রত্যেক হলের গেটে এবং বিশ^বিদ্যালয়ের সমস্ত গেটে সিসি টিভি ক্যামেরা স্থাপন, সান্ধ্য আইন বাতিল, সকল হলে অভিভাবক প্রবেশের অনুমতি এবং প্রত্যেক বিভাগকেই তাদের প্রত্যেক ছাত্রছাত্রীর সুবিধা-অসুবিধা বিবেচনা করা। : বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রোভিসি অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহা বলেন, ওই ছাত্রীকে পুলিশ নিরাপদে উদ্ধার করতে পেরেছে। তাদের সাবেক স্বামীকেও আটক করা হয়েছে। তাদেরকে রাজশাহীতে নিয়ে আসা হচ্ছে। : :





প্রথম পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেছেন, প্রধান বিচারপতির পদত্যাগে বিচার বিভাগের স্বাধীনতার মৃত্যু ঘটেছে। আপনি কি তাই মনে করেন?
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
16439 জন