কুড়িগ্রামে মৌমাছির কামড়ে পরীক্ষার্থীসহ অর্ধশতাধিক আহত
Published : Friday, 24 November, 2017 at 12:00 AM, Update: 23.11.2017 8:41:14 PM
কুড়িগ্রামে মৌমাছির কামড়ে পরীক্ষার্থীসহ অর্ধশতাধিক আহতস্টাফ রিপোর্টার, কুড়িগ্রাম : পিইসি পরীক্ষা শেষে বাড়ি ফেরার সময় কুড়িগ্রামের মোগলবাসায় মৌমাছির কামড়ে প্রায় ৫০ জন পরীক্ষার্থী, শিক্ষক ও অবিভাবক আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে ১৭জনকে কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। : বুধবার কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার সেনেরখামার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা মোগলবাসা দ্বীমুখী উচ্চ বিদ্যালয় পিএসসি পরীক্ষা কেন্দ্র থেকে ফেরার পথে দুপুর ২টার দিকে সৈনিকপাড়া এলাকায় আসলে আকস্মিকভাবে এক ঝাঁক মৌমাছি তাদেরকে আক্রমণ করে। এসময় মৌমাছির কামড়ে শিক্ষার্থীদের সাথে থাকা অভিভাবক ও শিক্ষকসহ প্রায় অর্ধশতাধিক আহত হয়। মৌমাছির কামড়ে শিক্ষার্থীরা আতংকিত হয়ে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে ১৭জনকে কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হাসপাতালে ভর্তি শিক্ষার্থীরা হলেন-আকাশি, নবনিতা, তাসরিণ, সোহাইবুর রহমান, আরাফাত, সোহাগ, সাগর, ইব্রাহীম, শামিম, বিজলী, স্বাধীন, শাহানাজ, রুবিনা, রুমানা, রুমানার বাবা রফিকুল ইসলাম (৪২) ও শিক্ষক লুৎফর রহমান। মৌমাছির কামড়ে আহত মাজাগ্রাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক লুৎফর রহমান জানান,  মোগলবাসা দ্বীমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ে পিএসসি পরীক্ষা কেন্দ্রে দায়িত্ব পালন শেষে পরীক্ষার্থীদের সাথে আমিও বাড়ি ফিরছিলাম। পথিমধ্যে সৈনিকপাড়া (দছিমুদ্দিন মোড়) এলাকায় মৌমাছির ঝাঁক হঠাৎ করে আক্রমন করে এলোপাতাড়ি হুল বসাতে থাকে। প্রতিজনকে ৫ থেকে ৭টা করে মৌমাছি হুল বসায় পরীক্ষার্থীসহ আমি নিজেও আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছি। কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. সাদেকুর রহমান জানান, মৌমাছির কামড়ে আহতদের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। কিছু পরীক্ষার্থী প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন। আর যারা অসুস্থ তাদের হাসপাতালে রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। সেনেরখামার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুফিয়া খাতুন বলেন, আমার বিদ্যালয়ের প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষায় ৪৭ জন অংশ নেয়। বুধবার বিজ্ঞান পরীক্ষা শেষে ফেরার পথে ৩৭ জন শিক্ষার্থী ও একজন অভিভাবক মৌমাছির কামড়ে আহত হন। মোগলবাসা ইউপি চেয়ারম্যান নুরুজ্জামান বাবলু ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, ঘটনার পর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আমিন আল পারভেজ, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার স্বপন কুমার রায় চৌধুরী হাসপাতালে আহতদের চিকিৎসার খোঁজখবর নেন। : :  





দেশের পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

ঢাকা-নেপিদু সমঝোতা স্মারককে আপনি কি ধোঁকা বলে মনে করেন?
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
4691 জন