ধর্মপাশায় মধ্যনগর সড়কে ঝুঁকিপূর্ণ বেইলি ব্রিজ
Published : Saturday, 25 November, 2017 at 12:00 AM
ধর্মপাশা (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি : সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলায় সেলবরষ ইউনিয়ন বাদশাগঞ্জ বাজার-সংলগ্ন মনাই নদীর উপরে বেইলি ব্রিজের বেহাল অবস্থা। যানবাহন চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে, দীর্ঘদিন ধরে সংস্কার না হওয়ায় যে কোনো সময় কেড়ে নেবে অগণিত মানুষের তাজা প্রাণ। দীর্ঘদিন ধরে এলাকার বেইলি ব্রিজটির স্টিলের পাটাতনগুলো অনেক পুরনো হওয়ায় জং ধরে মরিচা পড়ে জালের মতো ছিদ্র হয়ে গেছে। প্রত্যেক পাটাতনে অসংখ্য ছিদ্র হয়ে ঝর ঝরা হয়ে গেছে। ধর্মপাশা উপজেলা থেকে মধ্যনগর একমাত্র প্রধান সড়ক যার উপর দিয়ে লাখ লাখ জনতা এবং ছোট ও ভারী যানবাহন চলে নিত্যনৈমিত্তিক। ব্রিজটি দীর্ঘদিন ধরে সংস্কার না হওয়ায় ব্রিজটি যেন মরণ ফাঁদে তৈরি হয়ে আছে। আর প্রতিদিন পথযাত্রীসহ বিভিন্ন যানবাহন ও যাত্রীরা বিভিন্ন সময় পড়তে হচ্ছে চরম দুর্ভোগে। ঝুঁকি নিয়ে প্রতিনিয়ত যানবাহন চলায় যে কোনো সময় ঘটতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা। এলাকাবাসীর দাবি, এই এলাকার সব জনপ্রতিনিধকে বারবার অবগত করার পরেও এর কোনো প্রতিকার হয়নি। মনে হচ্ছে, এই বেইলি ব্রিজটি দেখার কেউনি। এত দিন ধর্মপাশা উপজেলার সওজের সব কার্যক্রম সুনামগঞ্জ কার্যালয়ের অধীনে ছিল। গত বছর ১১ আগস্টে উপজেলার সওজের যাবতীয় কার্যক্রম নেত্রকোনার সওজের কাছে হস্তান্তর করা হয়। সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, নেত্রকোনা সড়ক ও জনপথ বিভাগের অধীন ধর্মপাশার মধ্যনগর একমাত্র প্রধান গুরুত্বপূর্ণ সড়কটিতে দুটি বেইলি ব্রিজগুলোর অবস্থা একেবারেই নাজুক হয়ে পড়েছে। জরাজীর্ণ হয়ে মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে। জরাজীর্ণ এসব সেতুর লোহার পাটাতন ভেঙে যাত্রী ও পণ্যবাহী বাস-ট্রাক আটকে গিয়ে প্রতিনিয়ত ঘটছে দুর্ঘটনা। এসব ব্রিজ দিয়ে চলাচল করতে গিয়ে অধিকাংশ সময় বিকল হচ্ছে ছোট-বড় অনেক যানবাহন। ওই পথের লেগুনাচালক মো. মিশু মিয়া বলেন, লেগুনা বোঝাই নিয়ে ভাঙাচোরা বেইলি ব্রিজগুলোর উপর দিয়ে প্রতিদিনেই চলতে হয়। বিশেষ করে বাদশাগঞ্জ বাজার-সংলগ্ন মনাই নদীর উপরে বেইলি ব্রিজে গাড়ি ওঠা-নামার সময় যাত্রী নামিয়ে গাড়ি পারাপার করতে হয়। এতে সব সময় ঝুঁকির মধ্যে থাকেন তার। : :





দেশের পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যে প্রমাণ হয় গুমের সঙ্গে সরকারই জড়িত। আপনি কি একমত?
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
24294 জন