পা দিয়ে লিখে পিইসি পরীক্ষা দিচ্ছে কাউনিয়ার পলি
Published : Sunday, 26 November, 2017 at 12:00 AM
কাউনিয়া (রংপুর) প্রতিনিধি : শারীরিক প্রতিবন্ধী পলি রানী স্বপ্ন জয়ে পা দিয়ে লিখে পিইসিই পরীক্ষা দিচ্ছে। সে শারীরিক অক্ষমতাকে হার মানিয়ে গদাই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পড়ালেখা করে এ বছর পিইসি পরীক্ষা দিচ্ছে। সরেজমিনে কাউনিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে গিয়ে কথা হয় পলী রানীর সঙ্গে। সে জানায়, তার দুই হাত ও দুই পা-ই অচল। জন্ম গতভাবেই তার এ অবস্থা। বাড়িতে সে প্রথমে মায়ের সাহায্যে পা দিয়ে কলম ধরা শেখে এবং আস্তে আস্তে লিখতে শেখে। একদিন মাকে বলে স্কুলে যাওয়ার কথা। এর পর বাবা তাকে স্কুলে ভর্তি করে দেন। পা দিয়ে লিখে সে প্রথম শ্রেণী থেকে চতুর্থ শ্রেণী পর্যন্ত সফলভাবে পাস করে এ বছর পিইসিই পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে সবাইকে তাক লাগিয়ে দিয়েছে। অনেকে বলেছেন, এটা অসম্ভব, পলি সেই অসম্ভবকে সম্ভব করে দেখিয়েছে। তার বাড়ি নিজপাড়া গ্রামে। তার বাবা মনোরঞ্জন চন্দ্র ক্ষুদে কাপড় ব্যবসায়ী ছিলেন ও মা রুপালী রানী গৃহিণী। তাদের ৬ ভাই বোনের মধ্যে সে সবার ছোট সন্তান। ২০১৪ সালে তার বাবা সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যান। স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষিকা ও ছাত্রছাত্রীরা সবাই তার সঙ্গে ভালো আচরণ করতেন। বিশেষ করে স্কুলের প্রধান শিক্ষক সাইদুর রহমান তাকে খুবই আদর করেন। পলী জানায়, বাবা মারা যাওয়ার পর তাদের সংসারে এখন খুবই অভাব। বড় ৩ ভাই পড়ালেখা করে। তাদের খরচ মায়ের পক্ষে চালানোই কষ্ট হয়ে দাঁড়িয়েছে। সে নিজে খেতেও পারে না, মা না খাইয়ে দিলে তাকে না খেয়ে থাকতে হয়। পলী জানায়, পরিবার ও সমাজের বোঝা না হয়ে সে প্রকৃত শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে সমাজে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে চায়। মাঝে মাঝে নিজের শারীরিক অক্ষমতা মনে কষ্ট লাগে কিন্তু স্কুলে গেলে সব ভুলে যেত। সে আরো জানায়, আমি পড়াশুনা করে দেশের জন্য কিছু করতে ও বাবার ইচ্ছা ও  মায়ের মুখে হাসি ফুটাতে চাই। : : :





দেশের পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্যে কোনো আশার আলো দেখতে পান?
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
24840 জন