গঙ্গাচড়ায় ৩ বাড়িতে অগ্নিকাণ্ড খোলা আকাশের নিচে বসবাস
Published : Sunday, 26 November, 2017 at 12:00 AM
গঙ্গাচড়া (রংপুর) প্রতিনিধি : গঙ্গাচড়ায় হিন্দু সম্প্রদায়ের ৩ পরিবারের বাড়ি আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এতে প্রায় ৬ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। উপজেলার আলদাদপুর জোতপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। : জানা যায়, উপজেলার বেতগাড়ী ইউনিয়নের আলদাদপুর জোতপাড়া এলাকার মৃত পদার চন্দ্রের পুত্র বিমল চন্দ্র (৩৭) ও হিমাংশু চন্দ্র (৩২) এর বাড়িতে গত বৃহস্পতিবার বিকালে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটে আগুনের সূত্রপাত হয়ে তা নিমেষেই বাড়িতে লেগে যায়। এতে বিমলের ৪টি টিনের ঘরসহ সমস্ত আসবাবপত্র ও হিমাংশুর ৫টি টিনের ঘর, নগদ ৪৫ হাজার টাকা, ধান, চালসহ সমস্ত আসবাবপত্র পুড়ে ছাই হয়। তাদের বাড়ির আগুন পাশের হরে কৃষ্ণের বাড়িতে ধরে তার ২টি টিনের ঘরের আংশিক পুড়ে যায়। বিমল সপরিবারে ঢাকায় থাকায় তার ঘর আসবাবপত্রসহ ২ লাখ ৫০ হাজার, হিমাংশুর নগদ ৪৫ হাজার, টিনের ঘর, আসবাবপত্র, ধান, চালসহ ৩ লাখ টাকা ও হরে কৃষ্ণের ৫০ হাজার টাকার ক্ষতি হয়েছে। হিন্দুর বাড়িতে আগুন লাগানোর সংবাদ পেয়ে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে ছুটে যান গঙ্গাচড়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ জিন্নাত আলী। তিনি আগুন লাগানোর কারণ ও ক্ষয়ক্ষতির হিসাব ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের নিকট শুনেন। এছাড়া রাতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সৈয়দ এনামুল কবির আগুনে পুড়ে যাওয়া স্থান পরিদর্শন করে করে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের সদস্যদেরকে কম্বল প্রদান করেন। অপর দিকে উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান বাবলু গতকাল শুক্রবার বিকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারকে সহযোগিতার আশ্বাস দেন। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার ও এলাকাবাসী জানান, আগুন লাগার বিষয়টি ফায়ার সার্ভিসকে অবগত করা হলেও তারা ঘটনাস্থলে আসেনি। : এদিকে ঠাকুরপাড়ার হিন্দু পরিবারে আগুন লাগার ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতে পাশের গ্রামে হিন্দুর বাড়িতে আগুন লাগার ঘটনা ছড়িয়ে পড়লে সাধারণ মানুষের মাঝে আতংক বিরাজ করে। কিভাবে আগুন লাগলো তা জানার জন্য বিভিন্ন স্থানে মানুষজন যোগাযোগ করে। পরে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটের মাধ্যমে আগুন লাগার ঘটনা পরিবারের সদস্যদের মাঝ থেকে জানানো হলে মানুষজনের মাঝে স্তস্তি ফিরে আসে। : :





দেশের পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্যে কোনো আশার আলো দেখতে পান?
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
24932 জন