চাটমোহরে জনপ্রিয় টারকি পালন
Published : Tuesday, 28 November, 2017 at 12:00 AM
চাটমোহর (পাবনা) প্রতিনিধি : বেকারত্ব দূরকরণে এবং অল্প সময়ে অধিক মুনাফা লাভে সারা দেশের বিভিন্ন এলাকার গ্রাম-গঞ্জে ও মফস্বল শহরে হাঁস-মুরগির পাশাপাশি শৌখিনতা ও বাণিজ্যিকভাবে পালিত হচ্ছে টারকি। বর্তমানে এই টারকি চাটমোহরে কয়েকজন যুবক পালন শুরু করেছে। প্রথমদিকে শৌখিনতায় শুরু করলেও পরবর্তীতে এটি লাভযোগ্য একটি কর্মে পরিণত করে ফেলেছেন তারা। সরেজমিন উপজেলার বিলচলন ইউনিয়নের বোঁথর গ্রামে টারকি পালনকারী সোহেল রানা টুটুল (৩৮)-এর সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ছয় মাস আগে শখের বশে নাটোর থেকে ১০টি টারকি বাচ্চা ক্রয় করেন। সেগুলো বর্তমানে বড় হয়ে ডিম দিয়েছে। সেই ডিম থেকে বাচ্চা ফুটিয়ে বর্তমানে ৪০টির মত্ত ছোট-বড় টারকি তার খামারে। কিছু টারকি ডিম দিচ্ছে এবং গড়ে সপ্তাহে ১০০/১২০টি ডিম পাচ্ছেন তিনি। প্রতি হালি ডিমের দাম বর্তমান বাজার মূল্যে ৬০০/৮০০ টাকা। দেশী মুরগি দিয়ে টারকির ডিম থেকে বাচ্চা ফুটিয়ে ৭ দিন বয়সী প্রতি বাচ্চার মূল্য ৪০০/৫০০ টাকা। তিনি আরো জানান, পূর্ণবয়স্ক একটি টারকি বছরে ২০০/২৫০টি ডিম দেয়। যার বর্তমান বাজার মূল্য ৬ থেকে ৭ হাজার টাকা হবে। সম্পূর্ণ কোলেস্টরেলমুক্ত, প্রচুর পুষ্টিগুণসম্পন্ন মাংস পাওয়া যায় এ থেকে। একটি পূর্ণবয়স্ক টারকি ৭/৯ কেজি পর্যন্ত হতে পারে। যার বর্তমান বাজার মূল্য ৪ থেকে সাড়ে ৪ হাজার টাকা হতে পারে। সোহেল আরো জানান, আমি একটি ওষুধ কোম্পানিতে চাকরি করার পাশাপাশি এ টারকি পালন করে আর্থিকভাবে বেশ ভাল মুনাফা লাভ করছি। টারকি লালন-পালনে তেমন কোনো বাড়তি ঝামেলা নেই বললেই চলে। এদের প্রধান খাবারগুলো সহজলভ্য হওয়ায় যোগান দিতে তেমন কোন সমস্যা হয় না। শাকসবজি, ঘাসসহ সবুজ লতাপাতা এদের প্রধান খাদ্য। দেখভালের জন্য আমার পরিবারের অন্য সদস্যরাই প্রধান দায়িত্ব পালন করে থাকে। আমার কাজের ফাঁকে ফাঁকে আমি একটু যতœ বা দেখভাল করি। অপর টারকি পালনকারী চাটমোহরের মথুরাপুর ইউনিয়নের উথুলী গ্রামের স্বপন বিশ^াস (৪৫) গাজীপুরের একটি খ্রিষ্টিয়ান মিশনারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে ১৯৮৮ সালে এইচএসসি পাস করেন। একটি বেসরকারি সংস্থায় ১৮ বছর চাকরি করার পর এখন স্থায়ীভাবে নিজ বাড়িতে বসবাস করছেন। নিজের চার বিঘার একটি পুকুরে মাছ চাষের পাশাপাশি বাড়তি আয়ের জন্য কয়েক মাস যাবৎ টারকি পালন শুরু করেছেন। বাড়ি এবং পুকুর ছাড়া অন্য কোন জমাজমি নেই। তিনি জানান, “তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে টারকি পালন সম্পর্কে জানতে পারি আমি। এ সম্পর্কে আলাপ হয় ঢাকার বাড্ডা এলাকার এক ব্যক্তির সাথে। তার পরিচিত সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ার টারকি পালনকারী সেলিম সরকার। সেলিম সরকারের সাথে যোগাযোগ করে গত মার্চ মাসে দুই হাজার পাঁচশ’ টাকা জোড়া হিসেবে একমাস বয়সী বিশটি আমেরিকান প্রজাতির টারকির বাচ্চা ক্রয় করি। বিশটি বাচ্চাই টিকে যায়। বাচ্চাগুলো ছয় মাস পালনের পর গত সেপ্টেম্বর থেকে বারোটি টারকি ডিম দিচ্ছে। বর্তমান প্রতি হালি ডিমের দাম ছয়শ’ টাকা আশিটি সাত দিনের বাচ্চা পাঁচশ’ টাকা পিস হিসবে চল্লিশ হাজার টাকায় বাচ্চা বিক্রি করেছি।” : :





দেশের পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

দ্রুত রোহিঙ্গা সঙ্কটের সমাধান দেখছেন না ব্রিটিশ মন্ত্রী। আপনিও কি তাই দেখছেন?
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
629 জন