অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিসহ বিভিন্নস্থানে ৮ জন খুন
Published : Tuesday, 28 November, 2017 at 12:00 AM, Update: 27.11.2017 10:36:02 PM
দিনকাল ডেস্ক : পাবনার আটঘরিয়ায় অজ্ঞাত পরিচয় এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এছাড়া দেশের বিভিন্ন স্থানে খুন হয়েছে ৮ জন। এরমধ্যে ময়মনসিংহের নান্দাইলে এক যুবক, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে অজ্ঞাত যুবতী, গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর ও গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে দুই গৃহবধূ খুন, রাজধানীর দক্ষিণখানে মাকে হত্যার অভিযোগে ছেলে আটক, যশোরে চোর সন্দেহে যুবককে পিটিয়ে হত্যা, সরিষাবাড়ীতে নিখোঁজ ঢাবি ছাত্রের লাশ উদ্ধার হয়েছে। : পাবনা : পাবনা প্রতিনিধি জানান, পাবনার আটঘরিয়া উপজেলায় আতাইকুলায় অজ্ঞাত পরিচয় এক ব্যক্তির মস্তক বিচ্ছিন্ন লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহতের বয়স ৩৫ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে বলে ধারণা করলেও তাৎক্ষণিকভাবে তার নাম-পরিচয় নিশ্চিত করতে পারেনি পুলিশ। : আতাইকুলা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাসুদ রানা জানান, সোমবার দুপুরে আটঘরিয়া উপজেলার লক্ষ্মীপুর ইউনিয়নের রানীগ্রামের ডোবার মধ্যে একটি লাশ পড়ে থাকতে দেখে থানায় খবর দেয় স্থানীয়রা। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশটি উদ্ধার করে। : ওসি মাসুদ আরো জানান, নিহতের পরনে লুঙ্গি ও শার্ট এবং মস্তক ও বাম পায়ের হাঁটু বিচ্ছিন্ন রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, ২/১ দিন আগে তাকে অপহরণ করে হত্যার পর লাশ এখানে ফেলে গেছে দুর্বৃত্তরা। লাশ ময়নাতদন্তের জন্যে পাবনা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। : নান্দাইল : নান্দাইল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি জানান, ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার গাংগাইল ইউনিয়নের অরণ্যপাশা গ্রামে সোমবার দুপুরে (২৭ নভেম্বর) কবুতর নিয়ে আব্দুর রশিদের পুত্র মামুনের সাথে একই গ্রামের সাইকুলের পুত্র রাসেলের কথা কাটাকাটি হয়। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে রাসেলের হাতে থাকা ধারালো ছুরি দিয়ে মামুনের পেটে আঘাত করলে গুরুতর আহত হয়। এসময় মামুনকে আশংকাজনক অবস্থায় নান্দাইল হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত ডাক্তার উন্নত চিকিৎসার জন্য দ্রুত ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করলে মামুন চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিকালে মারা যায়। এরিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থানায় মামলার প্রস্তুুতি চলছে বলে নিহত মামুনের পরিবারের পক্ষ থেকে জানা গেছে। : আশুগঞ্জ : আশুগঞ্জ (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি জানান, রেললাইনের পাশ থেকে কালো সেলোয়ার-কামিজ ও বোরখা পরা আনুমানিক ৩০ বছর বয়সী এক যুবতীর লাশ উদ্ধার করে করেছে রেলওয়ে পুলিশ। গতকাল সোমবার সকালে ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলরুটের ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ স্টেশনের পূর্ব পাশে ২৪ নং সেতুর নিকট থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। প্রত্যক্ষদর্শীদের ধারণা এই যুবতীকে হত্যা করে ঘটনাটি আড়াল করার জন্য লাশ রেল লাইনের পাশে ফেলে যেতে পারে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। : এব্যাপারে আশুগঞ্জ স্টেশন মাস্টার মোঃ নুর নবী জানান, সোমবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে লাইন চেক করতে গিয়ে রেলওয়ে পূর্ত বিভাগের লোকজন স্টেশনের পূর্ব পাশে ২৪ নং সেতুর কাছে অজ্ঞাত এক ব্যক্তির লাশ দেখতে পেয়ে তাকে জানায়। বিষয়টি রেলওয়ে পুলিশকে অবহিত করলে তারা লাশ উদ্ধার করে। ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মোঃ মোঃ সানাউল হক জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। নিহত তরুণীর আনুমানিক বয়স ৩০, পরনে ছিল সালোয়ার কামিজ ও কালো বোরখা। মাথা থেতলানো ও হাতে আঘাতের দাগ রয়েছে। এখনো তার কোন পরিচয় পাওয়া যায়নি।   : মুকসুদপুর : মুকসুদপুর, গোপালগঞ্জ, প্রতিনিধি জানান, গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে রিক্তা বেগম (২৫) নামের গৃহবধূকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। রবিবার রাত ২ টার দিকে মুকসুদপুর উপজেলা পরিষদের বাসায় ওই গৃহবধূকে কে বা কারা তাকে জবাই করে চলে যায়। পরে রাত সাড়ে ৩টার দিকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সে মারা যায়। : নিহত রিক্তা বেগমের স্বামী মোর্তুজা মোল্যা মুকসুদপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসের নৈশ প্রহরী। মিথিলা আক্তার লিমা নামে তার ৩ বছরের একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। : মুকসুদপুর থানার ওসি আজিজুর রহমান জানিয়েছেন, রবিবার রাত ২ টার দিকে নৈশ প্রহরী মোর্তুজা মোল্যার বাসায় কে বা কারা ঢুকে তার স্ত্রী রিক্তা বেগমের গলা কেটে চলে যায়।  এ সময় সে গলা কাটা অবস্থায় ৩ বছরের শিশু কন্যাকে নিয়ে রুম হতে বের হয়ে আসে। পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের গাড়িতে করে তাকে প্রথমে মুকসুদপুর উপজেলা হাসপাতালে এবং পরে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় নিহতের স্বামীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশের জিম্মায় নেয়া হয়েছে। একই সাথে বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। তিনি আরও জানান এসময় ঘরের কিছু আসবাবপত্র এলোমেলো দেখা যায়। এছাড়া রান্না ঘরের পাশের একটি জানালা ভাঙা পাওয়া যায়। : নিহতের চাচা আল আামিন মোল্যা জানিয়েছেন, ৫ বছর আগে গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার পাইককান্দি গ্রামের ইমান উদ্দিন ওরফে বাসু মোল্যার ছেলে মোর্তুজা মোল্যার সাথে একই উপজেলার বোড়াশী ইউনিয়নের ভেন্নাবাড়ী গ্রামের নুর আলম মোল্যার মেয়ে রিক্তা বেগমের সাথে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই টাকা পয়সাসহ খুঁটিনাটি বিষয় নিয়ে মোর্তুজার সাথে শ্বশুর বাড়ির লোকজনের বিরোধ ছিলো। সম্প্রতি এ বিরোধ চরম আকার ধারণ করায় মোর্তুজা তাকে গলা কেটে হত্যা করছে বলেও তিনি দাবি করেন। : পুলিশ হেফাজতে থাকার সময়ে নিহতের স্বামী মোর্তুজা মোল্যা জানায় ঘটনার সময় আমি ইউএনও বাসভবনের পাশে ডিউটিতে ছিলাম। অফিসের সিনিয়র সহকর্মী নওশের মিয়ার চিৎকারে বাসার কাছে গেলে আহত অবস্থায় আমার স্ত্রী রিক্তাকে পাই। তাৎক্ষণিকভাবে ইউএনও স্যারের সহযোগিতায় তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যাই। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়।  আমার সুখের সংসার ছিল। কোন দাম্পত্য কলহ ছিল না। : মুকসুদপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবু নাঈম মোহাম্মদ মারুফ খান জানিয়েছেন, খবর পেয়েই গভীর রাতে আমি ঘটনাস্থলে যাই। অবস্থা খারাপ দেখে ?আমি নিজে?ই কয়েকজন সহকর্মী নিয়ে রিক্তা বেগমকে গাড়িতে করে প্রথমে মুকসুদপুর হাসপাতালে ও পরে তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাই। সেখানে তিনি মারা যান। : সর্বশেষ খবের জানা গেছে নিহত রিক্তা বেগম পিতা নুর আলম মোল্যা বাদী হয়ে মুকসুদপুর থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলায় আসামি এ ব্যাপারে তদন্ত এবং আসামী গ্রেফতার প্রয়োজনে পুলিশ গোপন রাখার অনুরোধ করেছেন। : গোবিন্দগঞ্জ : গোবিন্দগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি জানান, গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে জোনাকী বেগম (৩০) নামের এক গৃহবধূকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। : সোমবার সকালে শিবপুর পশ্চিম পাড়া গ্রামের একটি জমিতে গলা কাটা  অবস্থায় তার লাশ পরে থাকতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দিলে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। : পরে পরিবারের লোকজন জোনাকীর লাশ শনাক্ত করে। সে উপজেলার রাখালবরুজ ইউনিয়নের লোনতলা শাখইল গ্রামের  আব্দুল জলিলের মেয়ে।প্রায় ১৫ বছর পূর্বে একই গ্রামের  সিরাজ মিয়ার সাথে জোনাকির বিয়ে হয়। সংসারে ২ পুত্র সন্তান  রয়েছে। গোবিন্দগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুজিবুর রহমান পিপিএম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, জোনাকী হত্যার কারণ জানা যায়নি।  লাশ মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। : মাকে হত্যার অভিযোগে ছেলে আটক : রাজধানীর দক্ষিণখান থানা এলাকায় ছুরিকাঘাতে মা মমতাজ বেগমকে (৫৫) হত্যার অভিযোগে ছেলে হাবিবুল্লা খান রাজনকে (২৬) আটক করেছে পুলিশ। রবিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে কলিল বক্স রোড এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। : দক্ষিণখান থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) তপন চন্দ্র সাহা জানান, দক্ষিণখানে কলিল বক্স রোড এলাকায় একটি বাড়িতে সন্তানদের নিয়ে ভাড়া থাকতেন মমতাজ। রাতে পারিবারিক বিষয় নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে হাবিবুল্লা খান রাজন তার মাকে আঘাত করে। পরে গুরুতর অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রাত ১১টার দিকে মমতাজ বেগমকে মৃত ঘোষণা করেন। মাকে হত্যার অভিযোগে ছেলে রাজনকে আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পুলিশের এ কর্মকর্তা। ঢামেক পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এস আই বাচ্চু মিয়া জানান, ময়না তদন্তের জন্যে মরদেহ মর্গে রাখা হয়েছে। : সরিষাবাড়ী : সরিষাবাড়ী (জামালপুর) প্রতিনিধি জানান, জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে নিখোঁজের তিনদিন পর মেহেদী হাসান জন (২৫) নামের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিবিএ শেষ বর্ষের এক ছাত্রের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার সকালে উপজেলার পিংনা ইউনিয়নের কাওয়ামারা এলাকার যমুনা নদী থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। : পুলিশ ও পারিবারিক সূত্র জানায়, সিরাজগঞ্জের ভুয়াপুর উপজেলার মাদারিয়া গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল জব্বারের ছেলে মেহেদী হাসান জন (২৫) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বিবিএ পড়ছিল। পড়াশোনার সময় এক হিন্দু মেয়ের সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। কিছুদিন সম্পর্ক টিকিয়ে রেখে মেয়েটি হাসানের সাথে তার সম্পর্ক ছিন্ন করে দেয়। এরপর থেকে সে মানসিকভাবে ভেঙে পড়ে। একপর্যায়ে মেহেদী হাসান মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলে ফলে পড়াশোনা বন্ধ হয়ে যায়। কয়েক দিন যাবৎ নানাবাড়িতে তার চিকিৎসা চলছিল। গত শুক্রবার বিকেলে মেহেদী হাসান তার নানার বাড়ি গোপালপুরের দৌলতপুর থেকে বের হওয়ার পর আর বাড়ি ফেরেনি। পরিবারের সদস্যরা তাকে বিভিন্ন স্থানে খুঁজেও পায়নি। সোমবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে পিংনা কাওয়ামারা বাধ সংলগ্ন যমুনা নদীতে এলাকাবাসী একটি লাশ ভাসতে দেখে পুলিশকে খবর দেয়। তারাকান্দি তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে নিয়ে আসে। সংবাদপেয়ে দুপুরে মেহেদী হাসানের পরিবারের লোকজন তদন্ত কেন্দ্রে গিয়ে লাশটি সনাক্ত করে। পুলিশ নিহতের লাশ ময়না তদন্তের জন্য জেলা মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি নিচ্ছিল। নিহতের চাচা জাহাঙ্গীর আলম জানান, ‘মেহেদী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিবিএ শেষ বর্ষে অধ্যয়নরত ছিল। একটি ঘটনায় তিন বছর ধরে সে মানসিক ভারসাম্যহীন হওয়ায় কয়েকদিন আগে চিকিৎসার জন্য নানার বাড়িতে আসে। সেখান থেকে বাইরে বেরিয়ে নিখোঁজ হয়।’ : তারাকান্দি তদন্ত কেন্দ্রের এএসআই আফতাব উদ্দিন বলেন, ‘ঢাকায় এক হিন্দু মেয়ের সাথে মেহেদীর প্রেমের সম্পর্ক ছিল। প্রেম ভেঙে যাওয়ার পর থেকে সে মানসিক ভারসাম্য হারায় বলে স্থানীয়ভাবে জানা গেছে। তবে এখন পর্যন্ত তার মৃত্যুর কারণ জানা যায়নি।’ : যশোরে চোর সন্দেহে যুবককে পিটিয়ে হত্যা : যশোরে গরু চোর সন্দেহে ইমতিয়াজ আলী (৪০) নামে এক যুবককে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। রবিবার গভীর রাতে চৌগাছা উপজেলার তেঁতুলবাড়ি নামক স্থানে এ ঘটনা ঘটে। নিহত ইমতিয়াজ আলী চুয়াডাঙ্গা জেলার আলমডাঙ্গা উপজেলার কুলচরা গ্রামের লাল মোহাম্মদের ছেলে। : পুলিশ জানায়, সদর উপজেলার জগহাটি গ্রামের লোকজন গরু চোর সন্দেহে ওই যুবককে ধাওয়া করে পাশের উপজেলা চৌগাছার তেঁতুলবাড়ি নামকস্থানে নিয়ে গণপিটুনি দেয়। এতে তার মৃত্যু হয়। পরে চৌগাছা থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে। গতকাল সোমবার দুপুরে ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়। নিহতের প্যান্টের পকেটে পাওয়া মোবাইল ফোনের মাধ্যমে পরিচয় নিশ্চিত হয়েছে পুলিশ। : যশোর সদরের সাজিয়ালি পুলিশ ফাঁড়ির এসআই আসাদুজ্জামান জানান, সদর উপজেলার শেষ গ্রাম জগহাটির নাইম আলীর বাড়ি থেকে রবিবার গভীর রাতে গরু চুরি করে পালানোর সময় আশপাশের জগহাটি, কামালপুর, তেঁতুলবাড়ি গ্রামের মানুষ ইমতিয়াজ আলীকে ধাওয়া করে। পরে তাকে চৌগাছার তেঁতুলবাড়িয়া নামকস্থানে ধরে গণপিটুনি দিলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। ঘটনা সদর উপজেলার জগহাটির হলেও লাশ চৌগাছা উপজেলার তেঁতুলবাড়িয়ায় পড়ে ছিল। এজন্য চৌগাছা পুলিশ সেটি উদ্ধার করেছে। : ঘটনাস্থলে যাওয়া চৌগাছা থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) আবু সুফিয়ান বলেন, চৌগাছার ফুলসারা ইউনিয়নের তেঁতুলবাড়িয়া থেকে লাশটি উদ্ধারের পর ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। নিহতের প্যান্টের পকেটে পাওয়া মোবাইল ফোনের মাধ্যমে পরিচয় নিশ্চিত হওয়া গেছে। : :





প্রথম পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

দ্রুত রোহিঙ্গা সঙ্কটের সমাধান দেখছেন না ব্রিটিশ মন্ত্রী। আপনিও কি তাই দেখছেন?
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
663 জন