৫৭ ধারা বাতিলের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে : তথ্যমন্ত্রী
Published : Thursday, 30 November, 2017 at 12:00 AM, Update: 29.11.2017 10:44:52 PM
দিনকাল রিপোর্ট : তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের বহুল আলোচিত ৫৪, ৫৫ ও ৫৭ ধারা আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় বিলুপ্তির প্রস্তাব করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। তিনি আরো জানান, এ সভায় ‘ডিজিটাল সিকিউরিটি আইন, ২০১৭’-এর খসড়া চূড়ান্ত করা হয়েছে। এ আইনটি সংসদের আগামী শীতকালীন অধিবেশনে উত্থাপন করা হবে। গতকাল বুধবার দুপুরে সচিবালয়ে আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা শেষে সাংবাদিকদের নানা প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী হাসানুল হক ইনু এসব তথ্য জানান। তবে নতুন ‘ডিজিটাল সিকিউরিটি আইনে আইসিটি আইনের ৫৭ ধারার বিষয়গুলো সন্নিবেশ করা হবে কিনা এই বিষয়ে স্পষ্ট করে কিছু বলেননি তিনি। : অপরদিকে সভা শেষে আইন, বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারা নিয়েও আলোচনা হয়েছে। আমার  বিশ্বাস, এই ৫৭ ধারা সেভাবে থাকবে না এবং ফ্রিডম অব স্পিচ (বাক স্বাধীনতা) রা করার জন্য যেসব চেক অ্যান্ড ব্যালেন্সের দরকার, সেগুলো ডিজিটাল সিকিউরিটি অ্যাক্ট ও সম্প্রচার আইনে থাকবে। গতকাল বুধবারের আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় ডিজিটাল সিকিউরিটি আইন চূড়ান্ত হওয়ার পর এটি প্রধানমন্ত্রীর কাছে পাঠানো হবে বলে জানান আইনমন্ত্রী। উল্লেখ্য, তথ্যপ্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারাটি প্রস্তাবিত ডিজিটাল সিকিউরিটি আইনের ১৯ ধারায় পরিবর্তন করে আইনটি চূড়ান্ত করার চেষ্টা করছে সরকার। পরোয়ানা ছাড়া তল্লাশি, মালামাল জব্দ ও গ্রেফফতার সংক্রান্ত বিধান রেখে ওই খসড়া চূড়ান্ত করা হচ্ছে। তবে ৫৭ ধারায় অজামিনযোগ্যের পরিবর্তে জামিনযোগ্য ও সর্বোচ্চ শাস্তি ১৪ বছরের স্থলে দুবছর রাখা হয়েছে খসড়ায়। : : :





প্রথম পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

বিতর্কিত ৫৭ ধারা বাতিল করে সরকার আরও কঠোর আইন করবে বলে আশঙ্কা করেন?
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
33596 জন