নাজিরপুুরে দাখিল মাদ্রাসার মাঠ দখলের পাঁয়তারা
Published : Friday, 1 December, 2017 at 12:00 AM
নাজিরপুর (পিরোজপুর) প্রতিনিধি : জেলার নাজিরপুরে দাখিল মাদ্রাসার মাঠ দখলের পাঁয়তারা করছে স্থানীয় আওয়ামী লীগের একটি প্রভাবশালী মহল। উপজেলা সদরে কালীগঙ্গা নদীর তীরে অবস্থিত নদীর ভরাট জায়গায় নাজিরপুর দাখিল মাদ্রাসাটি ২০০৩ সালে স্থাপিত। উপজেলা সদরে শহীদ জিয়া কলেজ নাম পরিবর্তন করে নাজিরপুর কলেজ, নাজিরপুর সিরাজুল হক সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়, বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মহিলা মহাবিদ্যালয়, নাজিরপুর বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয় থাকলেও উপজেলা সদর থেকে ৮-৯ কিলোমিটারের মধ্যে কোনো দাখিল মাদ্রাসা না থাকায় এই প্রতিষ্ঠানটি উপজেলা সদরের সর্বস্তরের জনসাধারণের দাবির মুখে তৎকালীন বিএনপি সরকারের আমলে স্থাপিত করা হয়েছিল। বর্তমানে মাদ্রাসাটি রেজিস্ট্রেশন না পাওয়ায় অন্য মাদ্রাসার রেজিস্ট্রেশনের মাধ্যমে এই মাদ্রাসাটি থেকে প্রতি বছর ২৫-৩০ জন শিক্ষার্থী দাখিলে ভালো ফলাফল করে বের হয়ে যাচ্ছে। শিশু শ্রেণী থেকে দাখিল পর্যন্ত প্রায় দুই শতাধিক শিক্ষার্থী মাদ্রাসায় অধ্যয়নরত আছে। সরকারের সহানুভূতি না থাকায় শিক্ষকরা কষ্ট করে শিক্ষার্থীদের পাঠদান করান। স্থানীয় কিছু সামাজিক ব্যক্তির সহায়তায় শিক্ষকরা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটিকে টিকিয়ে শিক্ষা দান করে আসছেন। গত ২০০৪ সালে নির্বাহী কর্মকর্তা রফিকুল ইসলামের কাছে মাদ্রাসার পক্ষে জায়গা বরাদ্দের জন্য ৫০ শতক জায়গার আবেদন করলে কর্তৃপক্ষ নিয়ম অনুযায়ী কাগজপত্র প্রস্তুত করে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় ৩২ হাজার টাকা সরকারি মূল্য সেলামি প্রেরণ করে। কাগজটি জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে থেমে থাকায় মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ জায়গার কোনো কাগজ পাননি বলে জানান। কর্তৃপক্ষ মাদ্রাসাটির সব কার্যক্রম নিষ্ঠার সঙ্গে চালিয়ে আসছে। উপজেলার আর এক সাবেক নির্বাহী কর্মকর্তা তবিবুর রহমানও তার ভূমি অফিসের সাবেক কর্মরত সার্ভেয়ার ও নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ের এমএলএসএস তৌহিদের বিরুদ্ধে উপজেলায় ভিটি বরাদ্দের নামে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ পত্রিকায় প্রকাশিত হলে বিষয়টি থেমে যায়।  মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের খেলাধুলার মাঠ যারা দখল করে নেয় এবং যারা এ কাজের সহায়তা করে তারা সমাজের ভালো মানুষ নয়। ইউপি চেয়ারম্যান আরো জানান, ওই অধ্যক্ষ আরো তিনটি ভিটি বরাদ্দ নিয়ে মোটা অংকের বিনিময়ে দুটি ভিটি বিক্রি করেছেন এবং একটি তার দখলে আছে। : :





দেশের পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

টিআইবি নেতৃবৃন্দ বলেছেন, দেশের বিচার ব্যবস্থা উদ্বেগ উৎকণ্ঠায় রয়েছে । আপনিও কি তাই মনে করেন?
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
13123 জন