ভৈরবে ডাকাত আতঙ্কে রাত জেগে গ্রামবাসীর পাহারা
Published : Saturday, 2 December, 2017 at 12:00 AM, Update: 01.12.2017 10:36:02 PM
ভৈরব (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি, দিনকাল : বিধবা নারী নূর জাহান বেগম। তিনি সমাজের নিম্ন মধ্যবিত্ত পরিবারের একজন সদস্য। নূর জাহান রাতে ঘুমানোর সময় দরজার পাশে দু’টি লাঠি রেখে বিছানায় যান। আরেক নারী রাবেয়া বেগম। তিনিও ঘুমানোর সময় বালিশের কাছে বটি দা নিয়ে ঘুমান। কারণ, একটাই কখন জানি বাড়িতে ডাকাত ঢুকে পড়ে। দিন শেষে রাত নেমে এলেই এমন আতঙ্ক সবার মনে তাড়া করছে। নিত্যদিনের এই চিত্র কিশোরগঞ্জের ভৈরবের শিবপুর ইউনিয়নের শম্ভুপর গ্রামের। ফলে গেল কয়েক দিন ধরে ‘ডাকাত’ আতঙ্কে দিন যাপন করছে উপজেলার শম্ভুপুর, শিবপুর ও কালিকা প্রাসাদসহ আশ-পাশের বেশ কয়েকটি গ্রাম জুড়ে। এতে নিজ বাড়ি-ঘরে বসবাসে চরম উৎকন্ঠা ও নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন হাজার হাজার মানুষ।   : অনুসন্ধানে জানা গেছে, কোথাও না কোথাও চুরি কিংবা ডাকাতির ঘটনা ঘটছে। আজ এই এলাকায় তো কাল অন্য এলাকায়। শুধু গ্রামে নয়, শহরেরও একের পর এক ঘটছে এসব ঘটনা। তাই ডাকাতদের হাত থেকে রেহাই পেতে অনেক এলাকায় নিজেরাই রাত জেগে পাহারা দিচ্ছেন। কোথাও কোথাও পাহারাদার নিয়োগ করা হয়েছে। বিত্তবানদের কেউ কেউ আবার বাড়িতে সিসি ক্যমেরাও লাগিয়েছেন। এরপরও তাদের কিছুতেই যেন ভয় কাটছে না। : জানাগেছে, শম্ভুপুর গ্রামের বড় কান্দায় ১২জন পাহারাদার নিয়োগ করেছেন এলাকাবাসী। রাত ১০টার পর থেকে মুখে বাশি, কাঁধে লাঠি ও হাতে টর্চ লাইট নিয়ে ‘হু-শি-য়া-র, সা-ব-ধা-ন’ বলে তারা এলাকা পাহারা দিচ্ছেন। তেমনি পাশের ইটালী পাড়াতেও ৮জন ও কালিকা প্রসাদের আদর্শ পাড়ায় ২০জন পাহারাদার নিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন স্থানীয়রা। : শম্ভুপুর বড় কান্দার পাহারাদারদের দলনেতা সাবেক ইউপি সদস্য মো. শাহাব উদ্দিন বলেন, পাহারাদাররা গ্রামে ডাকাত ঢুকার খবর পেলে মসজিদের ইমাম সাহেবকে ফোনে জানিয়ে দেবে। আর সেই সংবাদ মাইকে ঘোষণা দেবেন তিনি। বাকিটা সামাল দেবো আমরা। : খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত মঙ্গলবার রাতে কালিকাপ্রসাদের গাজীরটেকের বাসিন্দা মৎসজীবী মিস্টু মিয়ার বাড়িতে ডাকাতরা হানা দেয়। তারা যাবার পথে গোয়াল ঘর থেকে একটি অস্ট্রেলিয়ান জাতের গাভী নিয়ে যায়। গাভীটির দাম প্রায় ১ লাখ টাকা হবে বলে জানান, মিস্টু মিয়ার স্ত্রী কল্পনা বেগম। এর ৪ দিন আগে শম্ভুপুর গ্রামের পশ্চিম পাড়া হাজী মুন্তাজ মিয়ার বাড়িতে ডাকাতরা হানা দেয়। বিষয়টি এলাকার মসজিদের মাইকে মাইকিং করা হলে লোকজন লাঠিসোটা, দা ও বল্লম নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ে। পরদিন ফের ডাকাতরা হানা দিলে আবার এলাকাবাসী প্রতিরোধ গড়ে তুলে। এছাড়াও গেল এক সপ্তাহ আগে কালিকাপ্রসাদের নয়াহাটির মুক্তিযোদ্ধা কামাল উদ্দিনের বাড়িতে আলমগীরের বাসায় ডাকাতরা তার পরিবারের লোকজনের হাত-পা বেঁেধ একটি টেলিভিশন, নগদ টাকাসহ স্বর্ণলংকার লুটে নেয়। ডাকাতরা প্রায় ২ লাখ টাকার মালামাল লুটে নেয় বলে দাবী আলমগীর হুসেনের। এদিকে শহরের নিউ টাউনে গত রবিবার দুপরে সেলিম ভবনের ৫ম তলায় ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। স্থানীয় অধিকাংশ লোকজনের ধারণা ১০ থেকে ১২জনের একটি সংঘবদ্ধ ডাকাত দল প্রাইভেট কার ও মোটরসাইকেল যোগে এলাকায় প্রবেশ করে। একের পর এক অপরাধ কর্মকান্ড সংঘটিত করছে। : হঠাৎ করে সমাজে চুরি ও ডাকাতির ঘটনা বৃদ্ধি পাওয়ায় বিষয়টি স্থানীয় প্রশাসন, রাজনৈতিক মহলসহ সুশীল সমাজকে ভাবিয়ে তুলছে। : এ বিষয়ে ভৈরব থানার ওসি মো. মোখলেসুর রহমান বলেন, বিচ্ছিন্নভাবে দু’একটি ঘটনা ঘটতে পারে। এতে আতঙ্কিত হওয়ার কোন কারণ নেই। সার্বিক পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। : জানতে চাইলে ভৈরব উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দিলরুবা আহমেদ বলেন, আমরা থেমে নেই। এসব অপরাধ প্রতিরোধে জোরালাভাবে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের পরিকল্পনা হাতে নেয়া হয়েছে।  : :





প্রথম পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, ক্ষমতাসীনরা ব্যাংকিং খাতে হরিলুট চালাচ্ছে। আপনিও কি তাই মনে করেন?
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
11256 জন