তারেক রহমানের ওপর রচিত গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন
দেশের মানুষকে কিছু দেয়ার জন্য জিয়া পরিবার কাজ করছে : খালেদা জিয়া
Published : Monday, 4 December, 2017 at 12:00 AM, Update: 03.12.2017 11:07:34 PM
দেশের মানুষকে কিছু দেয়ার জন্য জিয়া পরিবার কাজ করছে : খালেদা জিয়াদিনকাল রিপোর্ট : জিয়াউর রহমান ও তার পরিবারকে স্মরণে রাখার জন্য ‘বাংলাদেশে মানুষের প্রতি কৃতজ্ঞ’ বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া। তিনি বলেন, সত্য কথা বলাতেই তারেকের প্রচারণা বন্ধ করেছে সরকার। যারা অপপ্রচার চালাচ্ছে, তারা তাদের নিজেদের চরিত্র বিশ্লেষণ করে দেখুন যে, তারা কতটা ভাল কাজ করছেন। দেশের কল্যাণে তারেকের অবদানের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, তারেক রহমান তার বাবার আদর্শ অনুসরণ করে দেশের এক প্রান্ত থেকে আরেক প্রান্তে ছুটে গিয়েছে। : গত শনিবার রাতে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে তারেক রহমানের ওপর রচিত গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করতে গিয়ে তিনি এই কৃতজ্ঞতার কথা প্রকাশ করেন। ‘ডেমোক্রেটিক পলিসি ফোরাম’-এর উদ্যোগে দলের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ওপর রচিত তিনটি সংকলিত গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন উপলক্ষে এই অনুষ্ঠান হয়। গ্রন্থ তিনটি হচ্ছেÑ ‘তারেক রহমান ও বাংলাদেশ’, ‘তারেক রহমানের রাজনীতি ও রাষ্ট্রনীতি’  এবং ‘দিপ্তীমান দেশনায়ক’। এই তিনটি গ্রন্থের লেখক হচ্ছেন মাহবুবুর রহমান, সাইফুর রহমান ও সাইফুল ইসলাম। : বেগম খালেদা জিয়া বলেন, বাংলাদেশের মানুষ সব সময় জিয়াউর রহমান ও তার পরিবারকে ভালোবাসত। সে জন্য আমি এদেশের মানুষের কাছে চিরকৃতজ্ঞ। জিয়াউর রহমানের সেই রক্তই তারেক রহমানের গায়ে, সেই রক্তই ছিল আরাফাত রহমানের গায়ে। তারা নিজেরা কিছু পাওয়ার জন্য নয়, দেশের মানুষকে কিছু দেয়ার জন্য, দেশের সম্মান বৃদ্ধির জন্য কাজ করছে, করেছে। লন্ডনে চিকিৎসাধীন তার বড় ছেলে তারেকের প্রশংসা করে বেগম খালেদা জিয়া বলেন, তারেক রহমান দেশের সম্মান বৃদ্ধির জন্য চিকিৎসাধীন অবস্থায় এখনো বাংলাদেশের যখনই কেউ যায়, নেতাকর্মী অথবা বড় কেউ গেলে তাদের সাথে দেখা করে। তাদের কাছ থেকে দেশ সম্পর্কে জানতে চায়। মাঝে মাঝে যে বক্তব্যগুলো দেয়, সেই বক্তব্য থেকে আপনারা বুঝতে পারেন যে তারেক রহমান কতটুকু সত্য কথা বলছে। তার এই সত্য কথার জন্য আজকে এই সরকার, সেই সত্য কথা যাতে প্রচার না হয়, সে জন্য তার বক্তব্য প্রচার বন্ধ করে দিয়েছে। কাজেই বুঝতে পারছেন তারেক রহমানের ওপরে তারা (সরকার) মিথ্যা প্রচারণা চালাচ্ছে। : অভিযোগ করে তিনি বলেন, কতগুলো পত্রিকা আছে অন্যায়ভাবে তারেকের বিরুদ্ধে মিথ্যা প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছে। যারা ওই পত্রিকাগুলো করছেন তারাই নিজেরা নিজেদের চরিত্রটা বিশ্লেষণ করে দেখবেন যে তারা কি জিনিস। তারেক রহমান আমার ছেলে। তার কিছু পাওয়ার নেই, শুধু কিছু দেয়ারই আছে মানুষের জন্য। সে জন্য সে কাজ করে যাচ্ছে। আপনারা সবাই তার জন্য দোয়া করবেন যাতে সে সুস্থ হয়ে আমাদের মাঝে, দেশের মানুষের মাঝে ফিরে আসতে পারে। এই দোয়া সবাই করবেন। : বিএনপির প্রচার সম্পাদক শহীদউদ্দিন চৌধুরী এ্যানির পরিচালনায় অনুষ্ঠানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি অধ্যাপক এমাজউদ্দীন আহমদ ও বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে দলের স্থায়ী কমিটি সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ব্যারিস্টার জমিরউদ্দিন সরকার, তরিকুল ইসলাম, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ড. আবদুল মঈন খান, মির্জা আব্বাস, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী ছিলেন। মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান, মীর নাসির, এয়ার ভাইস মার্শাল (অব) আলতাফ হোসেন চৌধুরী, সেলিমা রহমান, অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন, অ্যাডভোকেট জয়নাল আবেদীন, আবদুল আউয়াল মিন্টু, ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন, অ্যাডভোকেট নিতাই রায় চৌধুরী, শওকত মাহমুদ, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা  আমানউল্লাহ আমান, জয়নুল আবদিন ফারুক, আবদুস সালাম, হাবিবুর রহমান হাবিব, আতাউর রহমান ঢালী, আবদুল কাইয়ুম, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, কোষাধ্যক্ষ মিজানুর রহমান সিনহা, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, বিলকিস জাহান শিরিন, সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, শামা ওবায়েদ,  সাহিত্যবিষয়ক সম্পাদক হাবিবুল ইসলাম হাবিব, তথ্যবিষয়ক সম্পাদক আজিজুল বারী হেলাল, প্রশিক্ষণবিষয়ক সম্পাদক এবিএম মোশাররফ হোসেন, মুন্সিগঞ্জ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান রতন, মহিলাবিষয়ক সম্পাদক নুরী আরা সাফা, মহিলা দলের সভানেত্রী আফরোজা আব্বাস, সাধারণ সম্পাদিকা শিরিন সুলতানা প্রমুখ নেতৃবৃন্দ ছিলেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক আফম ইউসুফ হায়দার, অধ্যাপিকা তাজমেরী এস ইসলাম, অধ্যাপক মামুন আহমেদ, অধ্যাপিকা তাহমিদা আখতার টফি প্রমুখ শিক্ষক ছিলেন। আরো ছিলেন নাজিমউদ্দিন আলম, আবদুস সালাম আজাদ, মাহবুবুল হক নান্নু, শহীদুল ইসলাম বাবুল, আমিরুল ইসলাম খান আলিম, মুন্সি বজলুল বাসিত আনজু, আহসানউল্লাহ হাসান, সাইফুল ইসলাম নীরব, শফিউল বারী বাবু, সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, মোরতাজুল করীম বাদরু, সুলতানা আহমেদ, হেলেন জেরিন খান, সৈয়দ আবদাল আহমেদ, আ ক ম মোজ্জামেল হক, শায়রুল কবির খান প্রমুখ নেতৃবৃন্দ। : :





প্রথম পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

বিএনপি স্থায়ী কমিটি সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, জনসমর্থন না থাকায় নির্বাচন নিয়ে আতঙ্কে আছে সরকার। আপনিও কি তাই মনে করেন?
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
1464 জন