পরোয়ানার প্রতিবাদে সারাদেশে বিক্ষোভ
বিভিন্নস্থানে পুলিশের হামলা-বাধা উপেক্ষা করে বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের মিছিল সমাবেশ
Published : Monday, 4 December, 2017 at 12:00 AM, Update: 03.12.2017 11:07:12 PM
পরোয়ানার প্রতিবাদে সারাদেশে বিক্ষোভদিনকাল রিপোর্ট : বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে পুলিশি বাধা, হামলা, গ্রেফতার উপেক্ষা করে সারাদেশে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে বিএনপি, ছাত্রদল, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল, মহিলা দল ও শ্রমিক দলের নেতাকর্মীরা। বিভিন্ন জেলায় পুলিশের হামলায় আহত হয়েছে ২ শতাধিক নেতাকর্মী। শতাধিক নেতাকর্মীকে আটক করা করেছে পুলিশ। এছাড়া রাজশাহী, গাইবান্ধা, গাজীপুর, ফরিদপুর ও ময়মনসিংহসহ বেশ কয়েকটি জেলায় পুলিশের পাশাপাশি আওয়ামী সন্ত্রাসীর বিক্ষোভ মিছিল হামলা চালিয়েছে। কিন্তু বিএনপির ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা সকল বাধা উপেক্ষা করে রাজপথে অবস্থান নিয়ে দেশনেত্রী বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে বিক্ষোভ অব্যাহত রাখে। : ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপি : বাড্ডা থানা বিএনপিথÑ বাড্ডা থানা বিএনপির একটি বিক্ষোভ মিছিল বাড্ডা লিংক রোড থেকে শুরু হয়ে বাড্ডা সুবাস্তু টাওয়ারের সামনে এসে শেষ হয়। মিছিলে নেতৃত্ব দেন ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক এজিএম শামসুল হক, মোঃ আবুল হোসেন, মাহফুজুর রহমান চেয়ারম্যান, তহিরুল ইসলাম তুহিন, মাহবুব আলম শাহীন, আব্দুল কাদের বাবু, মিরাজ উদ্দিন বাদল, আব্দুল কাদির, তাজুল ইসলাম, আলী হোসেন চেয়ারম্যান প্রমুখ। মিছিলে থানা বিএনপি ও সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। : পল্লবী থানা বিএনপি : পল্লবী থানা বিএনপি একটি মিছিল কমিশনার মোঃ সাজ্জাদ ও বুলবুল মল্লিকের নেতৃত্বে শুরু হয়। মিছিলে অন্যদের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন মোঃ সোহরাব হোসেন, আবুল কালাম, আমান উল্লাহ আমানসহ বিএনপি ও সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। : রূপনগর থানা বিএনপি : রূপনগর থানা বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল গতকাল সকাল ১০টায় স্থানীয় দোয়ারীপাড়া প্রধান সড়কে অনুষ্ঠিত হয়। বিক্ষোভ মিছিলে নেতৃত্ব দেন বিএনপি নেতা আব্দুল আওয়াল, আলী আহম্মেদ রাজু, ইঞ্জি: মুজিবুল হক, মোঃ মজিবর, রাসেল ইসলাম, হাসান রানা, আব্দুল আউয়াল, ইঞ্জিঃ মজিবুল হক, এস,এম মজিবুর রহমান, হাসান রানা রাজু, হেলাল উদ্দিন চপল, আমজাদ মোল্লা, হাফিজ, কামালসহ বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। : খিলক্ষেত থানা বিএনপি : খিলক্ষেত থানা বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আক্তার হোসেনের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিল ৩০০ ফিট বসুন্ধরা কনভেনশন হলের সামনে থেকে শুরু হয়ে খিলক্ষেত ফ্লাইওভারের নিচে এসে শেষ হয়। মিছিলে থানা বিএনপি ও সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন। : শেরে বাংলা নগর থানা বিএনপি : শেরে বাংলা নগর থানা বিএনপির একটি মিছিল সিরাজুল ইসলাম সিরাজ, শাহ আলম, তোফায়েল আহম্মেদ, আব্দুল কাদের লবু, নাছির, শামীম, ফরিদ, ফারুক, সোহেলসহ থানা বিএনপি ও সকল অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলটি স্কয়ার হাসপাতালের সামনে থেকে শুরু হয়ে শমরিতা হাসপাতালের সামনে গিয়ে পুলিশি বাধায় পন্ড হয়ে যায়। শেরে বাংলা নগর থানা বিএনপির আরেকটি মিছিল সালামত খান সজিবের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলে আরো নেতৃত্ব দেন ওমর ফারুক রাশেদ, এম.জি আযম তৌহিদ, আতিকুর রহমান অপু, মোঃ দুলালসহ বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। : মোহাম্মদপুর থানা বিএনপি : মোহাম্মদপুর থানা বিএনপির একটি বিক্ষোভ মিছিল হুমায়ুন রোড হতে শুরু হয়ে কলেজ গেট এসে শেষ হয়। মিছিলে নেতৃত্ব দেন আলহাজ বজলুর রহমান ও আলমগীর হোসেন লাবু। আরো উপস্থিত ছিলেন আফজাল হোসেন, মোঃ শহিদ, আক্তার হোসেন, মোঃ সিরাজসহ বিএনপির সকল অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ। : উত্তরখান থানা বিএনপি : উত্তরখান থানা বিএনপির একটি মিছিল বেপারী রোড থেকে শুরু হয়ে চৌরাস্তা গিয়ে শেষ হয়। এতে নেতৃত্ব দেন আহসান হাবিব মোল্লা। বিক্ষোভ মিছিলে আরো উপস্থিত ছিলেন জাহাঙ্গীর বেপারী, মুকুল সরকার, নুরুজ্জামান নুরু, রুস্তম আলী, নুরুজ্জামান সরকার, সবুজ মিয়া, রায়হানুল বাছেদ, এস.এইচ খোকা, নজরুল, গাজী আব্বাস, মোমেন বেপারী, আফজাল মোল্লা, মোঃ রাহিম, আজিম, শহীদুল, মোঃ জনি, রিপন সরকার, আবু কালাম, মজিবুর রহমান, এনামুল, আকরাম, সাব্বিরসহ থানা বিএনপি ও সকল অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ। : বিমানবন্দর থানা বিএনপি : ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক ও বিমানবন্দর থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মোঃ নাসির উদ্দিনের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল বিমানবন্দর বাজার থেকে শুরু করে চৌরাস্তায় গিয়ে শেষ হয়। আরও উপস্থিত ছিলেন থানা বিএনপির প্রচার সম্পাদক মোঃ জাহাঙ্গীর, মোঃ দেলোয়ার, মোঃ জুলহাজ, মোঃ লিটনসহ থানা বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। : তেজগাঁও থানা বিএনপি : তেজগাঁও থানা বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল এল, রহমানের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলে আরও উপস্থিত ছিলেন মজিবুর রহমান কাজী, ইঞ্জিনিয়ার আরজু, আবু জাফর পাটওয়ারী বাবু, শাহ আলম হাওলাদার, রিপন টগর, হাজী বাবু, সোহেল, জামান হোসেন, রুবেল মামুন, জুয়েলসহ থানা বিএনপি ও সকল অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ। মিছিলটি বিজয় সরণি সড়কে অনুষ্ঠিত হয়। তেজগাঁও থানা বিএনপির আরেকটি মিছিল মোহাম্মদ আলীর নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলে উপস্থিত ছিলেন মোঃ মুজাহিদ, হান্নান মাসুম, মোঃ আলমগীর, মাতুবুল আলম, মোঃ জালাল মোল্লা, মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন দুলালসহ বিএনপি ও সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। : উত্তরা পূর্ব থানা : উত্তরা পূর্ব থানা বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল এম, এ মনির হাছানের নেতৃত্বে ডিপিএস স্কুলের সামনে থেকে শুরু হয়ে রাজউক স্কুলের সামনে এসে শেষ হয়। মিছিলে আরো উপস্থিত ছিলেন এস.এম হান্নান মিলন, মোঃ জাহিদ মাষ্টার, মোঃ বিল্লাল, জিয়া, প্রিন্স, মাহিদ, মাসুম, আলম, লুৎফরসহ বিএনপি ও সকল অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ। : উত্তরা পশ্চিম থানা : উত্তরা পশ্চিম থানার বিক্ষোভ মিছিল মোস্তফা কামাল হৃদয়ের নেতৃত্বে সাইদগ্রান থেকে হাউজ বিল্ডিং পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন মোঃ আফাজ উদ্দিন, জাহাঙ্গীর আলম জাকির, হাজী দুলাল, হাজী ইমান সিদ্দিক, থানা শ্রমিকদলের সভাপতি মোঃ রাসেল আলাউদ্দিন, জামাই মোস্তফা, আনোয়ার, শাকিল, মজনু, শাহআলম, মনছুর আহমেদ, মোঃ সুমন, তোজাম্মেল হক সোহাগ, নাছিরসহ বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। : শাহআলী থানা বিএনপি : শাহআলী থানা বিএনপির একটি বিক্ষোভ মিছিল ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সহ-সভাপতি ফেরদৌসি আহমেদ মিষ্টির নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলটি রাইনখোলা বাজার থেকে শুরু হয়ে ১নং মিরপুর ঈদগাহ মাঠ পর্যন্ত গিয়ে শেষ হয়। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন এস.এস কায়সার পাপ্পু, শাহজামাল বাচ্চু, শাহ মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল, হানিফ মিয়া, মোঃ হিমেল, খোকন গুলশের, মোঃ মনিরসহ থানা বিএনপি ও সকল অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ। : মিরপুর থানা বিএনপি : মিরপুর থানা বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল দেলোয়ার হোসেন দুলুর নেতৃত্বে প্রশিকা ভবনের সামনে থেকে শুরু করতে গেলে পুলিশি বাধায় তা পন্ড হয়ে যায়। : দারুসসালাম থানা : দারুসসালাম থানা বিএনপির একটি মিছিল এইচ.এম ইমরান, মোঃ ফারুক হোসেন, নজরুল ইসলাম ও আফজাল হোসেনের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলটি দিয়াবাড়ি বাসস্ট্যান্ড থেকে মাজার রোডে এসে শেষ হয়। এতে থানা বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন। : ভাসানটেক থানা বিএনপি : ভাসানটেক থানা বিএনপির একটি বিক্ষোভ মিছিল কচুক্ষেত বাজারের সামনে থেকে শুরু করতে গেলে পুলিশি বাধায় মিছিলটি পন্ড হয়ে যায়। মিছিল থেকে একজনকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায়। : দক্ষিণখান থানা বিএনপি : দক্ষিণখান থানা বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল হাজী ক্যাম্প থেকে শুরু হয়ে বিমানবন্দর স্টেশনের নিকট আসলে পুলিশি বাধায় পন্ড হয়ে যায়। মিছিলে উপস্থিত ছিলেন মোঃ আমিরুল ইসলাম বাবুল, আমানউল্লাহ আমান, মোঃ ইসমাঈল হোসেন, আলী আকবর আলী, দেওয়ান মোঃ নাজিম উদ্দিন, বাবলু, জাহাঙ্গীর আলম, মোখলেস দুলাল, জিয়া, গিয়াস, আলী হোসেন, রাজসহ থানা বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। : ভাটারা থানা বিএনপি : ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির কোষাধ্যক্ষ ভাটারা থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ আতাউর রহমানের নেতৃত্বে সকাল ১০.৩০ মিনিটে ভাটারা নতুন বাজার একশ ফিট রোডে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলে থানা বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা অংশ নেন। : ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপি : শাহাবাগ থানা বিএনপি : দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল করেছে শাহবাগ থানা বিএনপি। গতকাল গুলিস্তান গোলাপশাহ মাজার হতে দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন হয়ে বঙ্গবাজার হয়ে পুরনো রেলওয়ে হাসপাতালের সামনে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মাধ্যমে শাহবাগ থান বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা শেষ হয়। ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির বিপ্লবী যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহবাগ থানা বিএনপির সদস্য সচিব বীরমুক্তিযোদ্ধা এম এ হান্নান, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সহ-সাধারণ সম্পাদক জননেতা সাঈদুর রহমান সাঈদ, শাহবাগ থানা ২০নং বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক আবু সুফিয়ান, যুগ্ম আহ্বায়ক রাইসুল ইসলাম চন্দন, যুগ্ম আহ্বায়ক গোলাম মোরশেদ, যুগ্ম আহ্বায়ক মাইজুদ্দিন মাইজু, যুগ্ম আহ্বায়ক গোলাম সারোয়ার অপু, ২১নং ওয়ার্ড বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক মাহমুদ উক্ত মিছিলে নেতৃত্ব দেন। : ধানমন্ডি থানা : ঢাকা মহানগর বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শেখ রবিউল ইসলাম রবির নেতৃত্বে একটি বিক্ষোভ মিছিল ল্যাব এইড হাসপাতালের সামনে থেকে শুরু হয়ে ধানমন্ডি সেন্টাল হাসপাতালের সামনে এলে পুলিশ অতির্কিত হামলা চালায়। পুলিশের এলোপাতাড়ি লাঠিচার্জে গুরুতর আহত হয় বিএনপি নেতা কাবিরুল হায়দার চৌধুরী, রফিকুল ইসলাম ভূইয়া, বাবুল মিয়া, মোর্শেদ সেতু প্রমুখ। মিছিল থেকে বিএনপি নেতা রিয়াদ, সাইফুল ও মানিকসহ ৫ জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। : কলাবাগান থানা : গতকাল দুপুর ২টায় কলাবাগান পান্থপথ প্রধান সড়কে স্কয়ার হাসপাতালের সামনে থেকে লেক-সার্কাস রোডে বিক্ষোভ মিছিল করেছে কলাবাগান থানা বিএনপি। থানা বিএনপি নেতা সাইদুর রহমান সাইদ ও সাদেকুর রহমান টুটুলের নেতৃত্বে মিছিলে আরও অংশ নেন মোঃ আলাউদ্দিন, আশরাফুল আলম, মোঃ মান্নান, মোঃ শিপন, মোঃ দিনা প্রমুখ। এদিকে মহানগর বিএনপির নেতা সিরাজুল ইসলাম সিরাজের নেতৃত্বে একটি মিছিল বাংলামোটর থেকে শুরু করে গ্রীন রোডে এসে শেষ হয়। মিছিলে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি নেতা খালেদ কিবরিয়া লাখী, মঈনুদ্দিন, কামাল, নাসির প্রমুখ। কলাবাগান থানার আরও একটি মিছিল স্কয়ার হাসপাতালের সামনে থেকে শুরু হয়ে লেক সার্কাস গিয়ে শেষ হয়। মিছিলে নেতৃত্ব দেন সাইদুর রহমান সাইদ, জাফর সাদেক টুটুল, আশরাফুল আলম, আলাউদ্দিন, মেহেদী প্রমুখ। : কদমতলী : বিএনপি চেয়ারপারসন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নামে মিথ্যা ও প্রহসনমূলক মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে কদমতলী থানা বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিল ও কর্মসূচি পালন করা হয়। বিক্ষোভ মিছিলে নেতৃত্ব দেন হাজী মোঃ মীর হোসেন মীরু, সহ-সভাপতি, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ও সংগ্রামী সভাপতি, কদমতলী থানা বিএনপি। বিক্ষোভে আরো উপস্থিত ছিলেন মোঃ জুম্মন মিয়া চেয়ারম্যান, সাধারণ সম্পাদক, কদমতলী থানা বিএনপি, মোঃ বাদল রানা, সাধারণ সম্পাদক, ৫২নং ওয়ার্ড বিএনপি, মোঃ সেলিম রেজা, সাধারণ সম্পাদক, শ্যামপুর ইউনিয়ন বিএনপি, মোঃ আলমগীর খান লিপু, সাধারণ সম্পাদক, ৫৩ নং ওয়ার্ড বিএনপি, মোঃ আনোয়ার হোসেন স্বপন, যুগ্ম সম্পাদক, ৫৩নং ওয়ার্ড বিএনপি, মোঃ আনোয়ার হোসেন, সিনিয়র সহ-সভাপতি, কদমতলী থানা ছাত্রদল, মোঃ আলী  সভাপতি, ওলামা দল, কদমতলী থানা, মোঃ পাপন হোসেন, সভাপতি, শ্রমিক দল, ৫৩নং ওয়ার্ড, মোঃ  আয়নাল সিকদার, সভাপতি, মৎস্যজীবী দল, কদমতলী থানা, মোঃ ইসমাইল সভাপতি কৃষক দল, ৫৩নং ওয়ার্ড মোঃ ইমন যুবদল নেতা ৫৩নং ওয়ার্ড, মোঃ বাবুল সাংগঠনিক সম্পাদক, শ্রমিক দল, ৫৩নং ওয়ার্ড, মোঃ ইমো মেহেদি রানা, ছাত্রদল কদমতলী থানা। এছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন কদমতলী থানা বিএনপির বিভিন্ন ওয়ার্ড ইউনিয়নের অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। মিছিলটি গীত সংগীত সিনেমা হলের সামনে থেকে শুরু করে ধোলাইপার বাসস্ট্যান্ডের সামনে পৌঁছলে পুলিশ এসে মিছিলটি ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এ সময় দৌড়াদৌড়ি হুড়াহুড়িতে অনেক নেতৃবৃন্দ আহত হয়। : ডেমরা থানা :  ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সহসভাপতি ডেমরা ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ জয়নাল আবেদিন রতনের নেতৃত্বে ডেমরা থানা বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের উদ্যোগে গতকাল বিকেলে স্থানীয় কায়েতপাড়া থেকে বিক্ষোভ মিছিল শুরু হয়ে ডেমরা রামপুরা প্রধান সড়কে গিয়ে শেষ হয়। মিছিলে সেলিম রেজা, আব্দুল হাই, খোরশেদ, তোফাজ্জল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। ডেমরা থানায় আরও একটি মিছিল শারুলিয়া বড়ভাঙ্গা এলাকা থেকে শুরু হয়ে ডগাই বাজার গিয়ে শেষ হয়। মিছিলে মোফাজ্জল হোসেন, হাজি আবুল হাশেম, আক্তার হোসেন, আহাদ, হানিফ, শাওনসহ সর্বস্তরের নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন । : লালবাগ থানা : গতকাল সকালে লালবাগ থানা বিএনপির উদ্যোগে স্থানীয় সিকমা বাজার হতে লালবাগ কেল্লার গেট পর্যন্ত বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। থানা বিএনপি নেতা সাইদ হোসেন সোহেলের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিলে অংশ নেয় বিএনপি নেতা গোলাম সারোয়ার শামিম, ইসমাইল হোসেন, যুবদল নেতা আলমগীর কবির সেলিম, ছাত্রদল নেতা ইকবাল হোসেন স্বপন প্রমুখ। অপর একটি মিছিল মহানগর বিএনপির নেতা মীর আশরাফ আলী আজমের নেতৃত্বে লালবাগ থানার ওয়েষ্ট এন্ড হাইস্কুলের সামনে থেকে শুরু হয়ে এতিমখানায় এসে শেষ হয়। : শ্যামপুর থানা : শ্যামপুর-কদমতলী থানা বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের উদ্যোগে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির  যুগ্ম সম্পাদক শ্যামপুুর থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আ ন ম সাইফুল ইসলামের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল দয়াগঞ্জ জুরাইন নতুন সড়ক থেকে শুরু হয়ে গেন্ডারিয়া রেল স্টেশন হয়ে মুন্সিবাড়ি এসে শেষ হয়। মিছিলে থানা বিএনপির অন্যতম সহ-সভাপতি মোঃ মোজাম্মেল হোসেন, বিএনপি নেতা ইমতিয়াজ আহম্মেদ টিপু, আব্দুল মান্নান, সালাহউদ্দিন রতন, তরিকুল ইসলাম পলাশ, শামিম আহম্মেদ, নজরুল ইসলাম, মোঃ শাহ নেওয়াজ, মোঃ লিটন, মোখলেছুর রহমান, মোমিন মিয়া, শাহ আলম, রমজান মিয়া, মোঃ সুজন, মোঃ মিন্টু, মোঃ প্রিন্স, মোঃ তানভির, জয়নাল আবেদিন, মোঃ ফয়সাল, মোঃ ফারুক ও মোঃ স্বপনসহ বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা অংশগ্রহণ করেন। : শ্যামপুর থানার আরেকটি বিক্ষোভ মিছিল জুরাইন প্রধান সড়ক হতে শুরু করে গেন্ডারিয়া রেলগেট এলাকা প্রদক্ষিণ করে। মিছিলে নেতৃত্ব দেন তোফায়েল আহমেদ, আশিমুল বারী জুয়েল, জাকির হোসেন, রেজাউল করিম, পিন্টু প্রমুখ। শ্যামপুর থানার আরও একটি মিছিল আরসিনি গেট থেকে শুরু করে আইজি গেটে গিয়ে শেষ হয়। মিছিলে নেতৃত্বে দেন কাজী মাহাবুব মাওলা হিমেল, নুরুল ইসলাম, মামুন, কামাল, শাকিল প্রমুখ। শ্যামপুর থানা আরও একটি মিছিল মুন্সিবাড়ী থেকে শুরু হয়ে গেন্ডারিয়া রেল স্টেশনে গিয়ে শেষ হয়। মিছিলে নেতৃত্ব দেন ইমতিয়াজ আহমেদ পিন্টু, আব্দুল মান্নান, সালাউদ্দিন রতন, নুরুল ইসলাম, শাহেনশাহ প্রমুখ। : কোতোয়ালি থানা :  কোতোয়ালি থানার একটি বিক্ষোভ মিছিল লায়ন মিনেমা হলের সামনে থেকে শরু হয়ে জিন্দা বাহার পর্যন্ত সড়ক প্রদক্ষিণ করে। মিছিলে নেতৃত্ব দেন হায়দার আলী বাবলা, খলিলুর রহমান, হাবিব, জাবেদ আলী প্রমুখ। কোতোয়ালি থানার আরও একটি মিছিল মোল্লা সাইফুলের নেতৃত্বে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। মিছিলে উপস্থিত ছিলেন হিরু, সিরাজ, সহিদ, আলম, আপসু, মুকিত, ইমু, হান্নান প্রমুখ। : বংশাল থানা :  মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি মো: মোহনের নেতৃত্বে বংশাল থানা বিএনপির একটি মিছিল বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। বংশাল থানার আরমানিটোলায় অপর একটি মিছিল থেকে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আরিফুর রহমান নাদিমকে গ্রেফতার করে পুলিশ। বংশাল থানার আরও একটি মিছিল মকিম বাজার থেকে শুরু হয়ে তারা মসজিদে গিয়ে শেষ হয়। মিছিলে নেতৃত্বে দেন লতিফ উল্লাহ জাফরু, তাইজুদ্দিন তাইজু প্রমুখ। : নিউমার্কেট থানা :  মহানগর বিএনপি নেতা হাজী জাহাঙ্গীর আলম পাটোয়ারীর নেতৃত্বে নিউমার্কেট থানার একটি বিক্ষোভ মিছিল বিডিআর ৩ নং গেট থেকে শুরু হয়ে নিউমার্কেট এলাকা এসে পৌঁছলে পুলিশ অতর্কিত হামলা চালায়। মিছিলে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সামসু, আসলাম, দাইদা ইসলাম, রহমত, মোস্তফা, সেলিম  প্রমুখ। : সূত্রাপুর থানা : সূত্রাপুর থানা বিএনপির উদ্যোগে একটি বিক্ষোভ মিছিল আব্দুস সাত্তারের নেতৃত্বে রায় সাহেব বাজার থেকে শুরু করে ন্যাশনাল হাসপাতাল গিয়ে শেষ হয়। মিছিলে অন্যান্যের মধ্যে অংশগ্রহণ করেন বিএনপি নেতা মজিবুর রহমান আনু, কাউসার, নুরুল ইসলাম সেন্টু, আক্তার হোসেন, মহসিন কালু, তানভীর খান, কাজী কাইয়ুম, দেলোয়ার, জন, জামিল প্রমুখ। : ওয়ারী থানা : ওয়ারী থানা বিএনপির একটি বিক্ষোভ মিছিল নবাবপুর ডিসেন্টের সামনে থেকে শুরু হয়ে মদনপাল লেন হয়ে বনগ্রাম গিয়ে শেষ হয়। মিছিলে নেতৃত্ব দেন গোলাম মোস্তফা সেলিম, মিয়া মোঃ আমির হোসেন, এড. মাহফুজুর রহমান মনা, মোঃ ইব্রাহিম মোল্লা, আঃ হাই ভুঁইয়া, কাজী মনির, জাকির হোসেন, হাজী রাহাত, শাহামিন, কবির হোসেন, ছটকু আহম্মেদ প্রমুখ : গে›ডারিয়া থানা : গেন্ডারিয়া থানার একটি বিক্ষোভ মিছিল নারিন্দা পুলিশ ফাঁড়ির পাশ থেকে শুরু হয়ে দয়াগঞ্জ  মোড় পর্যন্ত গিয়ে শেষ হয়। মিছিলে অংশগ্রহণ করেন মাহাবুবুর রহমান, আশরাফুল ইসলাম মোড়ল, ওমর নবী, বাবু, কাজী ফারুক, রফিকুল ইসলাম সোহেল প্রমুখ। : চকবাজার থানা : চকবাজার থানার একটি বিক্ষোভ মিছিল মহানগর নেতা আবু মোতালেবের নেতৃত্বে চকবাজার ডালপট্টি থেকে শুরু হয়ে উর্দু রোড প্রদক্ষিণ করে বাজারে গিয়ে শেষ হয়। মিছিলে অন্যান্যের মধ্যে অংশ নেন হাজী মোঃ টিপু সুলতান, হাজী মাহাবুব, জুবায়ের, জুয়েল আহমেদ, আসাদ, আব্দুল্লাহ, অপু প্রমুখ। চকবাজার থেকে আরও একটি মিছিল খাদে দেওয়ান থেকে শুরু হয়ে পঞ্চায়েতের সামনে গিয়ে শেষ হয়। মিছিলে অংশ নেন শহিদুল ইসলাম বাবলু, শফিকুল ইসলাম রাসেল, হাজী ঝন্টু, আঃ রাজ্জাকসহ থানার নেতৃবৃন্দ। চকবাজার থানায় আরও একটি মিছিল চুড়ি হাটা থেকে শুরু হয়ে পেস্তা গিয়ে শেষ হয়। মিছিলে অংশ গ্রহণ করেন খোকন, বাদল, হুমায়ন, নাসির, আলম, কুতুব, পাভেল, হাদী প্রমুখ। : মুগদা থানা : মুদগা থানার আনন্দধারা মানিকনগর বাজার পর্যন্ত একটি বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলে নেতৃত্ব দেন নগর নেতা শামসুল হুদা, শেখ মোহাম্মদ আলী চায়না, শামসুল হুদা কাজল, নুরুল হুদা, দিপু প্রমুখ। : কামরাঙ্গীর চর :  কামরাঙ্গীরচর থানা বিএনপির উদ্যোগে দুপুরে বেড়িবাঁধ সড়কে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। থানা বিএনপির সভাপতি হাজী মোঃ মনির হোসেন চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে হাজী মোঃ আওলাদ হোসেন, মোঃ খায়রুদ্দিন, মোঃ সালাহ উদ্দিন, রহমতউল্লাহ, মোঃ পারভেজ প্রমুখ মিছিলে অংশ নেয়। : এ ছাড়াও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির কদমতলী থানা, খিলগাঁও থানা, রমনা থানা, মতিঝিল থানা, সবুজবাগ থানা, হাজারীবাগ থানা, শাহজাহানপুর থানা নেতৃবৃন্দের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। : জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের বিক্ষোভ : দেশনেত্রী বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মিথ্যা বানোয়াট ভিত্তিহীন মামলায় গ্রেফতারি পরওয়ানা জারির প্রতিবাদে জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল কেন্দ্রীয় সংসদ কর্তৃক ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসাবে স্বেচ্ছাসেবক দল ঢাকা মহানগর উত্তরের অন্তর্গত থানায় থানায় বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করা হয়। স্বেচ্ছাসেবক দল ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি ফখরুল ইসলাম রবিন ও সাধারণ সম্পাদক রেজওয়ান উল হোসেন রিয়াজের নেতৃত্বে উত্তরা জসীম উদ্দীন রোড হতে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে একটি বিক্ষোভ মিছিল ও পথসভা অনুষ্ঠিত হয়। অন্যান্য থানার মধ্যে পল্লবী থানায় আনোয়ার ও মিলনের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। তেজগাঁও থানার কারওয়ান বাজার ভিআইপি রোড এ কামাল আহম্মেদ আসাদের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। গুলশান থানায় খোকন ও জালালের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। ভাটারা থানায় লালনের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। বাড্ডা থানায় অলিউর রহমান দীপুর নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। উত্তরা পশ্চিম মোস্তফা কামাল হৃদয়ের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। দক্ষিণখান থানায় নবী হোসেন ও মাহামুদের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। উত্তরখান থানায় আব্দুর রশীদ ভূইয়ার নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। মিরপুর থানায় হানিফ তপনের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। কাফরুল থানায় সুমন ও রশীদের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। রূপনগর থানায় কাউসার ও টুটুল রামপুরা থানায় মাকসুদুর রহমান নাহিদের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। তুরাগ থানায় আঃ হাকীমের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। : রাজশাহী মহানগর বিএনপির বিক্ষোভ : বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে রাজশাহী মহানগর বিএনপির উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ও মহানগর বিএনপির সভাপতি মোঃ মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা সাবেক মেয়ার মোঃ মিজানুর রহমান মিনু, বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির ত্রাণ ও পুনর্বাসন বিষয়ক সহ-সম্পাদক ও রাজশাহী মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. শফিকুল হক মিলন। প্রধান অতিথি মিজানুর রহমান মিনু বলেন, আন্দোলন ও নির্বাচন দুটির জন্যই বিএনপির নেতাকর্মীরা প্রস্তুত। মহানগর বিএনপির সভাপতি মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল বলেন, দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতিসহ সাধারণ জনগণের জীবনযাত্রার মান দুর্বিষহ হয়ে উঠেছে। সাধারণ সম্পাদক শফিকুল হক মিলন বলেন, আওয়ামী লীগের সাথে আর কোন আলোচনা নয়Ñ রাজপথেই সমাধান হবে। বোয়ালিয়া থানা বিএনপির সভাপতি মোঃ সাইদুর রহমান পিন্টু, রাজপাড়া থানা বিএনপির সভাপতি শওকত আলী, মতিহার থানা বিএনপির সভাপতি মোঃ আনসার আলী, শাহমখদুম থানা বিএনপির সভাপতি মোঃ মনিরুজ্জামান শরীফ, বোয়ালিয়া থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক রবিউল আলম মিলু, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মতিন, বোয়ালিয়া থানা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ইকবাল হোসেন দিলদার, শাহমখদুম থানা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক জুবায়ের আহমেদ বাবু, রাজপাড়া থানা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মুরাদ পারভেজ পিন্টু। আরো উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী জেলা যুবদলের সভাপতি মোজাদ্দেদ জামানী সুমন, রাজশাহী জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মোঃ শফিকুল আলম সমাপ্ত, মহানগর যুবদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুল হাসনাইন, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহ্বায়কবৃন্দ মোঃ জাকির হোসেন রিমন, আখতার হোসেন, আব্দুল ওয়াদুদ বাবলু আনন্দ কুমার, রাজশাহী মহানগর তাঁতী দলের সভাপতি আরিফুল শেখ বনি, সাধারণ সম্পাদক মোঃ সাইদুর রহমান, রাজশাহী মহানগর মহিলা দলের যুগ্ম আহ্বায়িকা রওশন আরা পপি, শাহনাজ পারভীন লাকী, নুরুন্নাহার বেগম, জরিনা বেগম, মুসলেমা বেলী, শামসুন্নাহার, নাসিরা বেগম, ফেরদৌসী, শিখা, ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ইলিয়াস বিন কাসেম, মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি আসাদুজ্জামান জনি, সাধারণ সম্পাদক মোঃ রফিকুল ইসলাম রবি, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুলতান আহমেদ রাহী, রাজশাহী কলেজ ছাত্রদলের সভাপতি মোর্তজা ফামিম, সাধারণ সম্পাদক মাকসুদুল সৌরভ, সাংগঠনিক সম্পাদক অন্তরসহ রাজশাহী মহানগর বিএনপির ৩৭টি ওয়ার্ডের সকল অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। : কেরানীগঞ্জ উপজেলা বিএনপির বিক্ষোভ : বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে মিথ্যা মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের নির্দেশনায় দলের নির্বাহী কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট নিপুন রায় চৌধুরীর নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। মিছিলটি জিনজিরা ফেরিঘাট থেকে কালাচান প্লাজা গিয়ে শেষ হয়।  এ সময় বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। : শেরপুরে বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশ :  বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে মিথ্যা মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করার প্রতিবাদে শেরপুর জেলা বিএনপির উদ্যোগে ৩ ডিসেম্বর দুপুরে দলীয় কার্যালয়ে এক বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলহাজ মো. হযরত আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি নেতা এডভোকেট আব্দুল মজিদ বাদল, আওয়াল চৌধুরী, এটিএম আমির হোসেন, আব্দুল্লাহ আল মামুন, সদর উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব ফরহাদ আলী, যুগ্ম-আহ্বায়ক শহিদুল ইসলাম, সাইফুল ইসলাম, সফিকুল ইসলাম গোল্ডেন, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম শিপন, জেলা যুবদলের আহ্বায়ক সফিকুল ইসলাম মাসুদ, যুগ্ম-আহ্বায়ক আক্রামুজ্জামান রাহাত, আতাউর রহমান আতা, জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক কামরুল হাসান, মহিলা দলের কেন্দ্রীয় নেত্রী নুর জাহান বেগম প্রমুখ। সভাপতির বক্তব্যে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলহাজ মো. হযরত আলী বলেন, বর্তমান সরকার জানে তাদের কোনো জনসমর্থন নেই। তাই তারা দেশে পুলিশি শাসন ব্যবস্থা কায়েম করে ক্ষমতাকে দর্ঘিস্থায়ী করতে চাচ্ছে। যেনতেন ভোটারবিহীন নির্বাচন দিয়ে আবার ক্ষমতায় আসতে চাচ্ছে। কিন্তু তাদের এ দুঃস্বপ্ন কোনদিনই পূরণ হবে না। দেশে গণতান্ত্রিক কর্মসূচিও এ সরকার চালাতে দিচ্ছে না। পুলিশ দিয়ে আমাদের মিটিং মিছিলে বাধা দিয়ে আসছে। সরকার এখন দেশে বিদেশে বন্ধুবিহীন হয়ে পড়েছে। সরকার তাদের গোপন জরিপ চালিয়ে দেখেছে আগামী নির্বাচনে বিএনপি ক্ষমতায় আসবে। তাই তারা দেশনেত্রীসহ আমাদের নেতৃবৃন্দের বিরুদ্ধে নানা মামলা ও গ্রেফতারি পরোয়ানা দিচ্ছে। কিন্তু সরকার যতই ষড়যন্ত্র করুক সামনের নির্বাচনে দেশের মানুষ ভোটের মাধ্যমেই এর জবাব দিবে। দেশে নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে আওয়ামী লীগের অস্তিত্ব থাকবে না। কাজেই বিএনপির প্রতিটি নেতাকর্মীসহ সর্বস্তরের মানুষকে এ সরকারের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার জন্য তিনি আহ্বান জানান।     : খুলনা : খুলনা ব্যুরো জানায়, বিএনপি আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তারা বলেছেন, সরকারের আজ্ঞাবহ আদালত  বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছে। এ দেশের ইতিহাসে সর্বাধিক সংখ্যক ২৩টি আসন থেকে নির্বাচিত এমপি এবং তিনবারের সাবেক সফল প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ান জারি এবং ৫, ৬ ও ৭ ডিসেম্বর পর পর তিনদিন তাকে আদালতে হাজির হতে বলা শুধুমাত্র ঔদ্ধত্যই নয়, তাকে পরিকল্পিকভাবে অসম্মানিত করা। বক্তারা বলেন, এটি সরকারের অসৎ উদ্দেশ্য বাস্তবায়নের নীল নকশা। প্রধান বিচারপতিকে নজিরবিহীনভাবে বিদেশ থেকে পদত্যাগপত্র পাঠাতে বাধ্য করে দেশের বিচার ব্যবস্থার প্রতি সরকার বার্তা পাঠিয়েছে যে, তাদের আজ্ঞাবহ হয়ে না চললে পরিণতি হবে ভয়াবহ। কোন স্বাধীন-সার্বভৌম দেশের প্রধান বিচারপতির পদ এক ঘন্টাও শূন্য থাকতে পারে না। অথচ নাটকীয় পদত্যাগের পর আজ অবধি ওই পদটি খালি রয়েছে। দেশের মানুষ এ নিয়ে অনেক কথা বলতে চায়।   : বিএনপি চেয়ারপারসন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী রবিবার বেলা ১১টায় কে ডি ঘোষ রোডে দলীয় কার্যালয়ের সামনে খুলনা মহানগর বিএনপির এই প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। কেসিসির মেয়র ও নগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনির সভাপতিত্বে ও আসাদুজ্জামান মুরাদের পরিচালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন কাজী সেকেন্দার আলী ডালিম, মীর কায়সেদ আলী, শেখ মোশারফ হোসেন, জাফরউল্লাহ খান সাচ্চু, শেখ খায়রুজ্জামান খোকা, রেহানা আক্তার, স ম আব্দুর রহমান, শেখ ইকবাল হোসেন, জাহিদুর রহমান, ফখরুল আলম, অ্যাড. ফজলে হালিম লিটন, অধ্যক্ষ তারিকুল ইসলাম, শেখ আমজাদ হোসেন, অধ্যাপক আরিফুজ্জামান অপু, সিরাজুল হক নান্নু, মাহবুব কায়সার, শেখ হাফিজুর রহমান, নজরুল ইসলাম বাবু, মেহেদী হাসান দীপু, শফিকুল আলম তুহনি, আজিজুল হাসান দুলু, মুজিবর রহমান, জালু মিয়া, এহতেশামুল হক শাওন, গিয়াসউদ্দিন বনি, ইকবাল হোসেন খোকন, সাদিকুর রহমান সবুজ, মো. শাহজাহান, আশফাকুর রহমান কাকন, শেখ সাদী, ইউসুফ হারুন মজনু, সাজ্জাদ আহসান পরাগ, কে এম হুমায়ুন কবীর, একরামুল হক হেলাল, হাসানুর রশিদ মিরাজ, শামসুজ্জামান চঞ্চল, মাহবুব হাসান পিয়ারু, কামরান হাসান, শরিফুল ইসলাম বাবু, হেলাল আহমেদ সুমন, নাজিরউদ্দিন আহমেদ নান্নু, হাসান মেহেদী রিজভী, মুজিবর রহমান ফয়েজ, শমসের আলী মিন্টু, শেখ জামিরুল ইসলাম, বদরুল আনাম, জহর মীর, আহসানউল্লাহ বুলবুল, হাফিজুর রহমান মনি, হাবিব বিশ্বাস, আবু সাঈদ শেখ, মো. জামালউদ্দিন, তরিকুল ইসলাম, আফসারউদ্দিন মাস্টার, তরিকুল্লাহ খান, শেখ ফারুক হোসেন, বেলায়েত হোসেন, এইচ এম এ সালেক, শরিফুল আনাম, রবিউল ইসলাম রবি, মেজবাহউদ্দিন মিজু, জাহিদ কামাল টিটু, হাসনা হেনা প্রমুখ। : জেলা বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশ : বিএনপি চেয়ারপারসন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী গতকাল রবিবার সকাল ১০ টায় কে ডি ঘোষ রোডে দলীয় কার্যালয়ের সামনে খুলনা জেলা বিএনপির উদ্যোগে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। : খান জুলফিকার আলী জুলুর সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন খান আলী মুনসুর, আবু হোসেন বাবু, আশরাফুল আলম নান্নু, মোল্লা মোশারফ হোসেন মফিজ, মুর্শিদুর রহমান লিটন, আবুল খযের খান, ডাঃ আব্দুল মজিদ, খায়রুল ইসলাম খান জনি, আব্দুর রকিব মল্লিক, সাইফুর রহমান, খন্দকার ফারুক হোসেন, শাহাদাত হোসেন ডাবলু, শামীম কবীর, উজ্জল কুমার সাহা, তৈয়েবুর রহমান, আব্দুল মান্নান মিস্ত্রি, কবির হোসেন, গোলাম মোস্তফা তুহিন, খান ইসমাইল হোসেন, জাভেদ মল্লিক, রবিউল হোসেন, গাজী ফজলুল হক, শরিফুল ইসলাম, আনছার আলী, শরিফুল ইসলাম বকুল, সরোয়ার হোসেন, সাহাবুদ্দিন আহমেদ, আব্দুল মালেক, সাইফুল পাইক, প্রফেসর আইয়ুব আলী, আবু হানিফ, বেল্লাল মোল্লা, সরদার ফরিদ আহমেদ, আনোয়ার হোসেন, রফিকুল ইসলাম বাবু, আমিরুল ইসলাম তারেক, শামসুল বারিক পান্না, আইয়ুব আলী মেম্বার, জাফরী নেওয়াজ চন্দন, ওয়াহিদুজ্জামান রানা, কাজী ওয়াইজউদ্দিন সান্টু, মিকাইল বিশ্বাস, গাজী আব্দুল হালিম, সরফরাজ হিরো, সেতারা সুলতানা, শাম্মি আক্তার মনি, রেহানা ইসলাম, নাসিমা আক্তার পলি, আব্দুর রহমান, সাইফুল মোড়ল, সুলতান মাহমুদ প্রমুখ। : কিশোরগঞ্জ : কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, বিএনপি চেয়ারপালসন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নামে গ্রেফতারি  পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে গতকাল রবিবার বেলা ১২টায় কিশোরগঞ্জ জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের এক বিক্ষোভ মিছিল গুরুদয়াল কলেজ মোড় হতে বের হয়ে আখড়া বাজার মোড়ে পুলিশি বাধার মুখে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলে নেতৃত্ব দেন জেলা স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা সাবেক ছাত্রনেতা শহীদুল্লাহ কায়সার শহীদ, জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম আহবায়ক সাজ্জাদ হোসেন, স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা পারভেজ আহমেদ, সদর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমেদ। সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক মো. নাজমুল আলম, বিএনপি নেতা এম.এ নাসির, স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা মোশাররফ হোসেন রিপন, বিল্লাল, গিয়াস উদ্দিন, জুয়েল, মো. সোহান, আব্দুল আউয়াল খোকন, মো. হবি, উজ্জ্বল সাহা, ছাত্রদল নেতা কাজী মামুনুর রশিদ, মাসুম বিল্লাহ, ফেরদৌস আহমেদ নেভিন, রবিন, মুক্তাদির বাবু, মো. মামুন মিয়া, মো. নাঈম, মো. যুবায়ের হোসেন, মো. কাজল প্রমুখ। : অপরদিকে বিএনপি চেয়ারপারসন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নামে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে গতকাল বেলা সাড়ে ১১টার সময় কিশোরগঞ্জ জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আরেকটি বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলটি ঐতিহাসিক রথখলা ময়দান থেকে বের হতে চাইলে পুলিশি বাধার মুখে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। জেলা স্বেচ্ছাসবক দলের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক সাবেক ভিপি মো. বাহার মিয়ার সভাপতিত্বে ও জেলা ছাত্রদল নেতা বাছির উদ্দিনের রিপনের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম আহবায়ক আবু নাসের সুমন, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা মো. শাহজাহান চিশতী, মিজানুর রহমান, সাইদুর রহমান। উপস্থিত ছিলেন, জেলা বিএনপি নেতা হাদী আহাম্মদ খান, মো. আতাউর রহমান রঞ্জু মেম্বার, আমিনুল ইসলাম রতন, হোসেনপুর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি সাইফুল ইসলাম শহীদ, সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. মো. আলামিন ভূঁইয়া, মিঠামইন উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাবেক আহবায়ক মো. মহিউদ্দিন খান, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা মো. রাজা মিয়া, মতিউর রহমান, সাইফুল ইসলাম সজীব, ছাত্রদল নেতা এরশাদুল হক, শেখ সাদী, নূরে আলম, রাসেল, আকাশ, পরাগ, হায়দার, ওয়ালীউল্লাহ, সোহাগসহ শতাধিক নেতৃবৃন্দ। বক্তারা অবিলম্বে বেগম খালেদা জিয়ার নামে মিথ্যা মামলা ও গ্রেফতারি  পরোয়ানা বাতিলের দাবি জানান। : গাজীপুর : স্টাফ রিপোর্টার, গাজীপুর জানান, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে গতকাল রবিবার গাজীপুরে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা করেছে গাজীপুর জেলা বিএনপি। দলীয় কার্যালয় প্রাঙ্গণে আয়োজিত প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সভাপতি ফজলুল হক মিলন, সাধারণ সম্পাদক কাজী সাইয়েদুল আলম বাবুল, বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা হুমায়ুন কবির খান, ডা. মাজহারুল আলম, জেলা বিএনপি নেতা মীর হালিমুজ্জামান ননী, আহমদ আলী রুশদী, মো. সোহরাব উদ্দিন, শাহজাহান ফকির, সাখাওয়াত হোসেন সবুজ, শওকত হোসেন সরকার, জয়নাল আবেদীন তালুকদার, কুতুব উদ্দিন চেয়ারম্যান, ভিপি আশরাফ হোসেন টুলু, আব্দুস সালাম, হান্নান মিয়া হান্নু, সাখাওয়াত হোসেন সেলিম, জাহাঙ্গীর আলম, নাজমুল খন্দকার সুমন, আতাউর মোল্লা, নাসির আহমেদ, ইয়াসিন মোল্লা, বাপ্পী দে, ইমরান রেজা, ইমরান আরিফ, মোনায়েম খন্দকার প্রমুখ। এছাড়া রবিবার সকালে বিএনপি টঙ্গীতে পৃথক একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিলে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি নেতা আব্দুর রহিম খান কালা, আজিজুল হক রাজু মাস্টার, ফারুক হোসেন খান, ইঞ্জিনিয়ার ইদ্রিস খান, লিটন মৃধা, শেখ সুমন, হাসান লস্কর প্রমুখ। অপরদিকে চান্দনা চৌরাস্তা এলাকায় যুবদল নেতা শওকত হোসেন বাবুর নেতৃত্বে একটি মিছিল বের করা হয়। : এদিকে গাজীপুর মহানগর বিএনপির উদ্যোগে  চৌরাস্তা এলাকায় বিক্ষোভ করেন সদর থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সুরুজ আহমেদসহ নেতৃবৃন্দ। এছাড়া শনিবার টঙ্গী থানা বিএনপির সাবেক সভাপতি জসিম উদ্দিন ভাটের নেতৃত্বে মিছিলটি টঙ্গী থানা বিএনপি কার্যালয় প্রাঙ্গণ থেকে শুরু হয়ে কলেজ গেট এলাকায় পুলিশের বাধা উপেক্ষা করে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের গুরুত্বপূর্ণ এলাকা প্রদক্ষিণ করে। : নরসিংদী : স্টাফ রিপোর্টার, নরসিংদী জানান, বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে নরসিংদী জেলা বিএনপি। গতকাল রবিবার বিকেলে কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম মহাসচিব ও জেলা বিএনপির সভাপতি খায়রুল কবির খোকনের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। শহরের চিনিশপুরস্থ জেলা বিএনপি কার্যালয় থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের জেলখানা মোড়ে গেলে পুলিশ বাধা দেয়। পরে পুলিশি বাধার মুখে জেলখানা মোড়ে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করেন বিএনপি নেতৃবৃন্দ। সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক সম্পাদক লে. কর্নেল (অব) জয়নাল আবেদীন, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন, সহ-সভাপতি রোকেয়া আহমেদ লাকী, অ্যাড. বাসেদ, যুগ্ম সম্পাদক আকবর হোসেন, শহর বিএনপির সভাপতি একেএম গোলাম কবির কামাল, জেলা বিএনপির প্রচার সম্পাদক শাজাহান মল্লিক, দফতর সম্পাদক আমিনুল হক বাচ্চু, আলমগীর হাবীব, শহর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মনিরুল হক জাবেদ, জেলা যুবদলের যুগ্ম আহ্বায়ক হাসানুজ্জামান সরকার, শাহেন শাহ শানু, মোকারম হোসেন ভূঞা, ইলিয়াছ আলী, জেলা মহিলা দলের সভাপতি অ্যাড. উম্মে সালমা মায়া, সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. কানিজ ফাতেমা, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি কবির আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক ওসমান মোল্লা। এ সময় জেলা বিএনপির নূর মোহাম্মদ চেয়ারম্যান, মাইনুল চেয়ারম্যান, ডা. নাসিরউদ্দিন সরকার, আওলাদ হোসেন মোল্লা, আলমগীর, মাহবুব, সোহেল রানা, স্বেচ্ছাসেবক মাহমুদ হোসেন চৌধুরী সুমন, ফারুক, বোরহান, জেলা ছাত্রদলের মাইনউদ্দিন, সজীব ভূঞা, মুহিদ মোল্লা, জাপ্পি, শামীম সরকারসহ বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। : জামালপুর : জামালপুর প্রতিনিধি জানান, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে জামালপুর জেলা বিএনপি। কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে গতকাল রবিবার শহরের স্টেশন রোডস্থ বিএনপি কার্যালয়ের সামনের সড়ক অবরোধ করে এ বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করে নেতাকর্মীরা। সমাবেশে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বক্তব্য রাখেন বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শাহ্ মো. ওয়ারেছ আলী মামুন, বিএনপি নেতা শহীদুল হক দুলাল, লিয়াকত আলী, কাজী, গোলাম রব্বানী, মসিউর রহমান, লোকমান আহমেদ লোটন, যুবদল নেতা ফিরোজ মিয়া, মিজানুর রহমান মিজান, জাসাস নেতা রিজভী আল জামালী রনজু,  শ্রমিক দল নেতা শেখ আব্দুস সোবহান, ছাত্রদল নেতা মনোয়ার ইসলাম কর্ণেল ও মৎস্যজীবী দল নেতা আব্দুল হালিম প্রমুখ। এ সময় বক্তারা অবিলম্বে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানার তীব্র নিন্দা ও বাতিলের দাবি জানান। : ফরিদপুর : ফরিদপুর প্রতিনিধি জানান, বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে ফরিদপুর জেলা বিএনপি। এ সময় বাধা দিয়েছে পুলিশ। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, গতকাল রবিবার  বেলা ১২টার দিকে জেলা আইনজীবী সমিতি মিলনায়তনের প্রধান গেটের সামনে থেকে জেলা বিএনপির উদ্যোগে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। সেখানে মিছিলটিকে পুলিশ আটকে দিলে স্বাধীনতা চত্বরে তাৎক্ষণিক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি আজম খান ও মৎস্যজীবী বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মামুন অর রশিদ মামুন। জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি মো. মাজেদ মিয়া, অ্যাডভোকেট গোলজার আহমেদ মৃধা, দফতর সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার খায়রুল আনাম, শ্রমিক দল নেতা মিজানুর রহমান বাবলু, শাহীন হক, সিব্বির মিয়া, দেওয়ান মাসুম, জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম সম্পাদক তানজিমুল হাসান কায়েস, সাহিদ হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।   : এর আগে বেলা ১১টার দিকে শহরের অম্বিকা ময়দান থেকে জেলা বিএনপি বিক্ষোভ মিছিল বের করে মুজিব সড়ক প্রদক্ষিণ করে। এরপর জনতা ব্যাংকের মোড়ের অভিমুখে পৌঁছলে বাধা দেয় পুলিশ। এ সময় সেখানে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য দেন জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মোদাররেস আলী ইসা ও সিনিয়র যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জুলফিকার হোসেন জুয়েল, জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি শহিদ পারভেজ, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ফজলুল হক টুলু, প্রচার সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন দিলা, জেলা যুবদলের সভাপতি আফজাল হোসেন খান পলাশ, আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট জসিম উদ্দিন মৃধা, কোতয়ালী থানা বিএনপির সভাপতি রউফউননবী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। : বরগুনা : বরগুনা প্রতিনিধি জানান, বিএনপি চেয়ারপারসন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি  পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে সারা দেশের ন্যায় বরগুনায় বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে জেলা ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা। শনিবার সকাল সাড়ে ১০টায় দলীয় কার্যালয় থেকে এক বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে লঞ্চঘাট চত্বরে পৌঁছলে পুলিশ তাতে বাধা প্রদান করে। পরে দলীয় কার্যালয়ের সামনে এক সমাবেশের আয়োজন করা হয়। জেলা ছাত্রদলের আহবায়ক শফিকুজ্জামান মাহফুজের সভাপতিত্বে সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির সভাপতি মাহবুবুল আলম ফারুক মোল্লা, বিশেষ অতিথি জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এসএম নজরুল ইসলাম, জেলা যুবদলের সভাপতি তালিমুল ইসলাম পলাশ, জেলা শ্রমিকদলের সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন মোল্লা, তাঁতীদলের সভাপতি আবুল বাশার রিয়াজ, উপজেলা যুবদলের সভাপতি আক্তারুজ্জামান জুয়েল, উপজেলা যুবদলের সভাপতি আনোয়ার হোসেন মামুন। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক হুমায়ুন হাসান শাহিন, শ্রমিকদলের সভাপতি গোলাম হায়দার হাদী, পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, সদর উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি ইসতিয়াক জলিল সোহাগ, বরগুনা সরকারী কলেজ ছাত্রদলের সভাপতি নুরুল ইসলাম রনি প্রমুখ। : শায়েস্তাগঞ্জ : শায়েস্তাগঞ্জ (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি জানান, সাবেক প্রধানমন্ত্রী বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে কেন্দ্র ঘোষিত বিক্ষোভ মিছিল বের করে বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠন। গতকাল রবিবার (০৩ ডিসেম্বর) বিকেলে শায়েস্তাগঞ্জ পৗর বিএনপি, যুবদল, ছাত্রদল ও সহযোগী সংগঠন পৌর শহরের বাল্লা রেলগেট থেকে মিছিল বের করে  দাউনদনগর বাজার পয়েন্টে আসলে পুলিশের বাধার সম্মুখীন হয়। পরে এক পথসভা অনুষ্ঠিত হয়। পথসভায় সভাপতিত্ব করেন পৌর বিএনপির আহ্বায়ক ফরিদ আহমেদ অলি।সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক সৈয়দ তানভীর আহমেদ জুয়েল এর পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন- পৌর বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক মিজানুর রহমান শাকিম, মো. ছমির আলী মো. সাইদুর রহমান কাউন্সিলর, হাজী শফিক মিয়া তালুকদার, সবুজ মিয়া, পৌর যুবদলের সাধারণ সম্পাদক কামরুল হাসান রিপন, যুগ্ম সম্পাদক ফাহিন হোসেন, সৈয়দ রিমেল, সাংগঠনিক সম্পাদক আলী হোসেন, পৌর শ্রমিকদলের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক মো. সুমন আহমেদ, ফজর আলী, সানি, পৌর ছাত্রদলের আহ্বায়ক পারভেজ আহমেদ, সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক মো. নূর আলম, থানা ছাত্রদলের আহ্বায়ক আল আমিন সোহাগ, সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক শাহ জামান রিপন, কলেজ ছাত্রদলের আহ্বায়ক কাউছার আহমেদ, সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক রায়হান উদ্দিন। এছাড়াও বক্তব্য রাখেন এবাদুর রহমান সুমন, জাসাস পৌর শাখার সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক সাজু আহমেদ, প্রমুখ। : বান্দরবান : বান্দরবান প্রতিনিধি জানান, বান্দরবানে কেন্দ্র ঘোষিত বিএনপির বিক্ষোভ মিছিলে পুলিশের বাধা দিয়েছে। গতকাল রবিবার পুলিশের বাধার মুখে জেলা শহরের চৌধুরী মার্কেটস্থ জেলা কার্যালয়ে সমাবেশ করে নেতাকর্মীরা। সাবেক সংসদ সদস্য সাচিং প্রু জেরির নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক মুজিবুর রশিদ, সাবেক জেলা পরিষদ সদস্য লুসাই মং, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান কামলাই ¤্রাে, সেচ্ছা সেবক দলের আহবায়ক জাহাঙ্গির আলম, পৌর বিএনপির সভাপতি সাছির উদ্দিন চৌধুরী,সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, সদর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আইয়ুব আলি মেম্বার,  জেলা ছাত্রদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি হাবিবুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক দৌলতুল কবির খান সিদ্দিকি, জেলা শ্রেমিক দলের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু তাহের, মৎস্যজীবী দলের সভাপতি আবুল হাসেম, মহিলা দলের সভাপতি নিলুতাজ বেগম, সাধারণ সম্পাদক উম্মে কুলসুম রিনা। : ফরিদগঞ্জ : ফরিদগঞ্জ (চাঁদপুর) প্রতিনিধি জানান, গতকাল ফরিদগঞ্জ উপজেলা সদরে বিএনপি চেয়ারপারসন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানা প্রত্যাহারের দাবিতে ফরিদগঞ্জ উপজেলা বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। পুলিশি বাধার কারণে বিক্ষোভ মিছিলে অংশ নেয়া নেতাকর্মীরা উপজেলা বিএনপি কার্যালয়ের সামনে প্রতিবাদ সভা করে। প্রতিবাদ সভায় প্রধান অতিথির সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে উপজেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক শরীফ মোঃ ইউনুছ বিএনপি চেয়ারপারসন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির তীব্র নিন্দা, প্রতিবাদ এবং অবিলম্বে সকল গ্রেফতারি পরোয়ানা প্রত্যাহারের দাবি জানান। : এ সময় উল্লেখযোগ্য নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ফরিদগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মজিবুর রহমান দুলাল, পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আমানত গাজী, উপজেলা যুবদলের আহবায়ক নাসির উদ্দিন পাটওয়ারী, ফারুক হোসেন খান, পৌর যুবদলের আহবায়ক অ্যাডভোকেট মহসিন মোল্লা, সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক মজিবুর রহমান, যুগ্ম আহবায়ক নাজিম উদ্দিন ভুইয়া, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক ইকবাল হোসেন পাটওয়ারী, উপজেলা ছাত্রদলের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক ফজলুর রহমান, যুগ্ম আহবায়ক এমএ কাইয়ুম, মনির হোসেন, পৌর বিএনপির ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক রাজু আহমেদ পাটওয়ারী, সহ-ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক আঃ সবুর পাটওয়ারী রুবেল, পৌর যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক পেয়ার আহমেদ তালুকদার, পৌর স্বেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক সেলিম মাহমুদ রাড়ি, রুবেল গাজী, উপজেলা মহিলা দলের সভানেত্রী রেবেকা সুলতানা স্মৃতি, উপজেলা শ্রমিক দলের সভাপতি আজিম খান, সাধারণ সম্পাদক বেলায়েত হোসেন। : হবিগঞ্জ : বিএনপি'র চেয়ারপার্সন, বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারীর প্রতিবাদে কেন্দ্র ঘোষিত করিমসুচির অংশ হিসাবে গতকাল  রবিবার হবিগঞ্জ জেলা এক বিশাল বিক্ষোভ মিছিল বের করে । মুসলিম কোয়াটার থেকে শহরের প্রধান সড়কের প্রদক্ষিন করে কোর্ট মসজিদ প্রাঙ্গনে এক প্রতিবাদ সভা সমাবেশে জেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আমিনুর রশীদ এমরানের সভাপতিত্বে, জেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারন সম্পাদক এড: কামাল উদ্দিন সেলিমের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ডা: আহমুদুর রহমান আব্দাল, জেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারন সম্পাদক এম.জি মোহিত, জেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি, যুবদল নেতা মহিবুল ইসলাম শাহিন, পৌর বিএনপির সভাপতি আব্দুল হান্নান ফরিদ । : আগৈলঝাড়া : আগৈলঝাড়া (বরিশাল) প্রতিনিধি জানান, বিএনপি চেয়ারপারসন সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করায় বরিশালের আগৈলঝাড়ায় প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সংগঠন সূত্রে জানা যায়, গতকাল রবিবার উপজেলার গৈলাতে আগৈলঝাড়া উপজেলা বিএনপির সভাপতি আব্দুল লতিফ মোল্লার সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এস এম আফজাল হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. মাহবুবুল ইসলাম (মাহবুব),  সিনিয়র সহসভাপতি মো. কবির হোসেন তালুকদার, প্রচার সম্পাদক খলিল মোল্লা, বাকাল  ইউনিয়ন বিএনপি সভাপতি আব্দুল খালেক পাইক, সাংগঠনিক সম্পাদক নবীন সরকার, বাগধা ইউনিয়ন সাধারণ সম্পাদক আবু হানিফ বখতিয়ার, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. ফিরোজুর রহমান লালু, রাজিহার ইউনিয়ন সভাপতি আবুল কালাম মোল্লা, সাধারণ সম্পাদক এস,এম ফারুক হোসেন,  উপজেলা যুবদল নেতা মো. আবু সাইদ সরদার, মো. তোফাজ্জেল হোসেন মোল্লা, মো. শোভন রহমান মনির, উপজেলা স্বেচ্ছা সেবক দল আহ্বায়ক মো. হারুন অরশীদ মোল্লা, যুগ্ম আহ্বায়ক মো. মেজবা উদ্দিন শিকদার, ছাত্রদল নেতা মো. মিজানুর রহমান, আব্দুর রাজ্জাক ফকির, আল আল মৃধা, উপজেলা তৃন্যমূল দল সভাপতি কাজী মেটিকুল ইসলাম সেলিম, জাসাস্ সাংগঠনিক সম্পাদক মনোয়ার হোসেন মানিক। বক্তারা অভিলম্বে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান। : ভোলা : ভোলা প্রতিনিধি জানান, ভোলায় জেলা বিএনপির আয়োজনে সাধারণ সম্পাদক হারুন অর রশিদ ট্রম্যানের নেতৃত্বে¡ শনিবার রাতে বিএনপি চেয়ারপারসন সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার জামিন বাতিল করে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে। জেলা বিএনপির কার্যালয়ের চত্বর হতে বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে শহরের সদর রোডের দালানের সামনে আসলে পুলিশ তাতে বাধা দেয়। বাধা উপেক্ষা করে মিছিলটি অফিস চত্বরে গিয়ে শেষ হয়। জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক হারুন অর রশিদ ট্রম্যানের সভাপতিত্বে সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সহসভাপতি আমিনুল ইসলাম খান, যুগ্ম সম্পাদক হুমায়ুন কবির সোপান, সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক, থানা বিএনপির সভাপতি আশিফ আলতাফ, যুবদলের সভাপতি ইয়ারুল আলম লিটন, কেন্দ্রীয় যুবনেতা আঃ কাদের সেলিম, যুবদল নেতা তরিকুল ইসলাম কায়েদ, জামাল উদ্দিন লিটন, স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক জামিল হোসেন ওয়াদুদ, ছাত্রদলের সভাপতি খন্দকার আল আমিন, সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান মাসুদ প্রমুখ। এ সময় বিএনপির বিভিন্ন সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।   : সিলেট : সিলেট অফিস জানায়, বিএনপি সিলেট জেলা ও মহানগর নেতৃবৃন্দ বলেছেন, আওয়ামী ফ্যাসিবাদে ধ্বংসপ্রায় গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার ও মানুষের ভোটাধিকার ফিরিয়ে দেয়ার মহান দায়িত্ব থেকে বেগম খালেদা জিয়াকে দমিয়ে রাখতেই কথিত মামলায় গ্রেফতারি  পরোয়ানা জারির ঘটনায় জাতি বিক্ষুব্ধ। অবিলম্বে এই ষড়যন্ত্রমূলক গ্রেফতারি পরোয়ানা প্রত্যাহার করতে হবে।  বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সিলেট জেলা সভাপতি আবুল কাহের চৌধুরী শামীম-এর সভাপতিত্বে, মহানগর সাধারণ সম্পাদক বদরুজ্জামান সেলিম-এর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন- বিএনপির কেন্দ্রীয় সিলেট বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সাবেক এমপি দিলদার হোসেন সেলিম, মহানগর বিএনপি সভাপতি নাসিম হোসাইন, সহ-সভাপতি সালেহ আহমদ খসরু, সহ-সভাপতি প্যানেল মেয়র রেজাউল হাসান কয়েস লোদী, জেলা সহ-সভাপতি হাজী শাহাব উদ্দিন, মহানগর সহ-সভাপতি অধ্যাপিকা সামিয়া বেগম চৌধুরী, সহ-সভাপতি আব্দুস সাত্তার, সহ-সভাপতি আমির হোসেন, জেলা উপদেষ্টা  অ্যাডভোকেট এটিএম ফয়েজ, জেলা ১ম যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রব চৌধুরী ফয়সল, মহানগর যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এমদাদ হোসেন চৌধুরী, জেলা সাংগঠনিক আবুল কাশেম, মহানগর সাংগঠনিক কাউন্সিলার সৈয়দ তৌফিকুল ইসলাম হাদী ও মুকুল মোর্শেদ, মহানগর প্রচার সম্পাদক শামীম মজুমদার, মহানগর আইন বিষয়ক সম্পাদক কাউন্সিলর  অ্যাডভোকেট রুখশানা বেগম শাহনাজ, জেলা সাহিত্য সম্পাদক আ ফ ম কামাল, মহানগর সহ-দফতর সম্পাদক লোকমান আহমদ, জেলা সহ-দফতর সম্পাদক আব্দুল মালেক, জেলা ছাত্রদলের পরিবেশ ও জলবায়ু সম্পাদক আলী আকবর রাজন। : মহানগর বিএনপির স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. আশরাফ আলীর কোরআন তেলাওয়াতের মধ্য দিয়ে সূচিত বিক্ষোভ সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- জেলা সহ-সভাপতি জালাল উদ্দিন চেয়ারম্যান ও নুর মিয়া, মহানগর সহ-সভাপতি ফাত্তাহ বকশী, মহানগর উপদেষ্ঠা সাঈদুর রহমান বুদুরি, মহানগর যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব কাদির শাহী ও  অ্যাডভোকেট আতিকুর রহমান সাবু,  জেলা যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাফেক মাহবুব ও মো: ময়নুল হক, মহানগর দফতর সম্পাদক সৈয়দ রেজাউল করিম আলো, জেলা দফতর সম্পাদক অ্যাডভোকেট মো: ফখরুল হক, প্রকাশনা সম্পাদক অ্যাডভোকেট আল আসলাম মুমিন, মহানগর যুব বিষয়ক সম্পাদক মির্জা বেলায়েত হোসেন লিটন, জেলা শ্রম বিষয়ক সম্পাদক সুরমান আলী, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক হাবিব আহমদ চৌধুরী শিলু, মহানগর মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা জাহানার ইয়াসমিন গোলাপী, জেলা স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক লায়েছ আহমদ, জেলা যুব বিষয়ক সম্পাদক লুৎফুর রহমান, মহানগর শ্রম বিষয়ক সম্পাদক ইউনুছ মিয়া, জেলা তথ্য ও গবেষনা সম্পাদক  অ্যাডভোকেট জুবায়ের আহমদ খান, গণ শিক্ষা সম্পাদক সাঈদুর রহমান হিরু, মহানগর পরিবার কল্যান সম্পাদক লল্লিক আহমদ চৌধুরী, জেলা ধর্ম সম্পাদক আল মামুন খান, মহানগর মানবাধিকার সম্পাদক মুফতী নেহাল উদ্দিন, আপ্যায়ন সম্পাদক আফজাল উদ্দিন, শিল্প সম্পাদক আব্দুল হাদী মাসুম, পল্লী উন্নয়ন সম্পাদক আব্দুল জব্বার তুতু, জেলা সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক বজলুর রহমান ফয়েজ, হাবিবুর রহমান হাবিব ও মুরাদ হোসেন, জেলা ও মহানগর বিএনপি নেতা অ্যাডভোকেট আহমদ রেজা, দিদার ইবনে তাহের লস্কর, বুরহান উদ্দিন, কয়ছর চৌধুরী,  অ্যাডভোকেট ইসরাফিল আলী, আমিন উদ্দিন, আব্দুল লতিফ খান, সিরাজুল ইসলাম সিরাজ, রেহানা ফারুক, দেলোয়ার হোসেন জয়, সেলিম আহমদ রনি, নাসিম আহমদ চৌধুরী, এনামুল হক মাক্কু, উজ্জল রঞ্জন চন্দ, আইয়ুব আলী সজীব, কয়েস আহমদ সাগর, আব্দুর রহিম, মাসুদ এলাহী চৌধুরী, হেলাল আহমদ, আজির উদ্দিন আহমদ, ফয়েজুর রহমান ফয়েজ, শামসুর রহমান শামীম প্রমুখ। : ময়মনসিংহ : ময়মনসিংহ প্রতিনিধি জানান, ময়মনসিংহে বিএনপি চেয়ারপারসন সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল করেছে বিএনপি। গতকাল রবিবার দুপুরে নগরীর নতুন বাজারস্থ দলীয় কার্যালয় থেকে মিছিলটি বের হয়ে বাউন্ডারী রোড এলাকায় গিয়ে শেষ হয়। : এ সময় মিছিলের পেছন থেকে ছাত্রদল নেতা তাপস সরকার, কিবরিয়া, মামুন মিয়া ও অজ্ঞাত আরেক জন’সহ চারজন আটক করে পুলিশ। জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক আবু ওয়াহাব আকন্দের নেতৃত্বে এমিছিলে উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ফখরুদ্দিন আহম্মেদ বাচ্চু, সাংগঠনিক সম্পাদক আলমগীর মাহমুদ আলম, যুগ্ম সম্পাদক কাজী রানা, শাহ শিব্বির আহম্মেদ বুলু, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মাহাবুবুল আলম, প্রচার সম্পাদক কায়কোবাদ মামুন, কোষাদক্ষ রতন আকন্দ, কোতয়ালী বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ আজিজ, যুবদল নেতা রুহুল আমীন, জগলুল হায়দার, ছাত্রদল নেতা উজ্জল, জিএস মাহাবুব, তাতীঁদল নেতা ডা: জাহাঙ্গীর, পিন্টু, ওলামা দল নেতা মাও. আরিফ রব্বানী, মোমেন প্রমুখ।    : অপরদিকে শহর বিএনপির সভাপতি অধ্যাপক একেএম শফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে নগরীর বাউন্ডারী রোড এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল করেছে শহর বিএনপি। এতে উপস্থিত ছিলেন জেলা যুবদল সভাপতি শামীম আজাদ, শ্রমিকদলের সভাপতি আবু সাঈদ, সাংগঠনিক সম্পাদক দুলাল হোসেন, যুবদল নেতা মোজাম্মেল হক টুটু, রিয়াজুল কবীর মামুন, দিদারুল ইসলাম রাজু, কোতুওয়ালী যুবদ?লের আহবায়ক শহীদুল ইসলাম, জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম সম্পাদক সোহেল খান, ছাত্রনেতা মানিক, ফরহান, ডুনন, রাশেদ, কোতয়ালী স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক ফরহাদ হোসেন, যুগ্ম আহবায়ক চান মিয়া প্রমুখ।   : আইনজীবী ফোরামের বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ : একই ইস্যুতে ময়মনসিংহ আদালত এলাকায় বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম। সংগঠনের সাধারন সম্পাদক এড. নূরুল হকের নেতৃত্বে মিছিলটি জজকোর্টের সামনে থেকে শুরু হয়ে ৫নং আইনজীবী ভবনের সামনে গিয়ে সমাবেশ করে। এ সময় বক্তব্য রাখেন আইনজীবী সমিতির সাধারন সম্পাদক ড. মীর মিজানুর রহমান, এড. মীর আখলাকুর রহমান নান্নু, আনোয়ার আজিজ, এড. হান্নান খান, হাবিবুর রহমান ভূইয়া, বাদল, শামসুন্নাহার প্রমুখ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন এড. মাসুদ তানভীর তান্না, সাজ্জাদুর রহমান আকন্দ, মমতাজ উদ্দিন খান, কাজী শাহজাহান, মইনুল হক মিলন, মাখন মল্লিক, আকরাম হোসেন, মাসুদ, আনিসুজ্জামান, নিলু, আজাদ, তোফায়েল আহম্মেদ সুজন, মিলন, সাদেক, নাজমুল, শামসুন্নাহার শিলা, লুৎফর রহমান মঞ্জু, কিরন, শাহাদাৎ, জামান, শফিক, নজরুল, শওকত, রাইসুল প্রমুখ। : বগুড়া : বগুড়া অফিস জানায়, কেন্দ্রীয় সদস্য ও বগুড়া জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন চাঁন বলেছেন, ভোটের সুষ্ঠু অধিকার থেকে বঞ্চিত করেছে এই স্বৈরাচারী জালিম সরকার। গতকাল রবিবার বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে পরোয়ানার প্রতিবাদে নবাববাড়ী রোডে দলীয় কার্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশে তিনি উপরোক্ত কথা বলেন। সহ-সভাপতি ফজলুল বারি বেলালের সভাপতিত্বে উক্ত সমাবেশে  অ্যাড. নাজমুল হুদা পপনের সঞ্চালনায় আরও বক্তব্য রাখেন রেজাউল করিম বাদশা, লাভলী রহমান, আব্দুর রহমান, সহিদুন্নবী সালাম, অ্যাড. মাহবুব শাহিন, আব্দুল ওয়াদুদ, খান জাহাঙ্গীর, ফার্মার রফিকুল ইসলাম, হারুন-অর রশিদ সুজন। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন শ্রী পরিমল চন্দ্র দাস, ওয়াহিদ মুরাদ, ফারুকুল ইসলাম ফারুক, মাহবুবুর রহমান লুলকা, আব্দুল গফুর দারা, অ্যাড. সৈয়দ জহুরুল ইসলাম, আব্দুল জব্বার টুকু, আরিফুর রহমান পিন্টু, আক্তারুজ্জামান নান্টু, মোর্শেদ মিটন, আলীমুর রাজি তরুণ, মাহবুবুর রহমান সাঈদ, মোশারফ হোসেন স্বপন, আব্দুর রহিম পিন্টু, মোহাম্মদ আলী, লিটন শেখ বাঘা, আব্দুল মোমিন, আল আমিন, কাজী আব্দুর রশিদ, আমিনুর মাস্টার, অধ্যক্ষ রফিকুল ইসলাম, সারোয়ার হোসেন, লিলুফা কুদ্দুস সুরাইয়া জেরিন রনি, জাহাঙ্গীর সওদাগর, আ. মান্নান, আ.  মজিদ ফকির, আ. গফুর, মামুনূর রহমান, আ. কুদ্দুস চাঁন, রেজাউল হক, সোলায়মান আলী, সায়েদুল ইসলাম সায়েদ, মাহমুদুল তুহিন, আ. বারি, আ. করিম মিস্টার, লৎফর রহমান, আ. রাজ্জাক, মো. মুকুল, ডা. মিজানুর, মোস্তফা কামাল, সাজ্জাদ হোসেন পিন্টু, রাজু বাহার, আ. খালেক, শেফালী হক, হাজারা বেগম, অ্যাড. মেরী, শিল্পী, রাবু, বেলাল হোসেন, খশরু আহম্মেদ, বেলাল হোসেন, সাইদুর রহমান শিবলী, মোস্তফা হানিফ সোহাগ, সেলিম, শায়লা মুক্তা প্রমুখ।





প্রথম পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

বিএনপি স্থায়ী কমিটি সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, জনসমর্থন না থাকায় নির্বাচন নিয়ে আতঙ্কে আছে সরকার। আপনিও কি তাই মনে করেন?
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
1481 জন