রাজশাহী আইএইচটি ছাত্রীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলা : বন্ধ ঘোষণা
Published : Thursday, 7 December, 2017 at 12:00 AM, Update: 06.12.2017 10:08:49 PM
রাজশাহী আইএইচটি ছাত্রীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলা : বন্ধ ঘোষণাদিনকাল রিপোর্ট : রাজশাহী ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজিতে (আইএইচটি) বহিরাগতসহ ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের উৎপাত ও আন্দোলনরত ছাত্রীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলায় অন্তত ৪ ছাত্রী আহত হয়েছেন। গতকাল বুধবার সকাল ১০টার দিকে আইএইচটির ছাত্রীরা অধ্যরে কাছে বিভিন্ন দাবি ও প্রতিবাদ তুলে ধরেন। পরে অধ্যরে ক থেকে ফেরার পথে ছাত্রীরা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের হামলার শিকার হন। এই ঘটনার জেরে ইনস্টিটিউট অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করে কর্তৃপ। একই সঙ্গে দুপুর ১টার মধ্যে ছাত্রদের এবং ৩টার মধ্যে ছাত্রীদের হল ছাড়ার নির্দেশ দেয়া হয়। : আহতরা ছাত্রীরা হলেন- প্রথমবর্ষের ছাত্রী মোহনা, ফার্মেসী বিভাগের ছাত্রী  জ্যোতি, একই বিভাগের ছাত্রী নাবিলা ও তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী মীম। পরবর্তীতে পুলিশ সেখানে পৌঁছে। সূত্র জানায়, রাজশাহী ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজির (আইএইচটি) ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা মাঝেমধ্যেই ছাত্রীদের উদ্দেশ্য করে অশ্লীল ভাষায় কথা বলতো। ছাত্রীদের বাবা মা তুলে কথা বলতো। তাদের কথা না শুনলে ছাত্রীদেরকে গণধর্ষণের হুমকিও দিতো। আবার হোস্টেলের ভেতরে ঢুকে গাছের ফল পাড়তো। যদিও হোস্টেলের ভেতর ছেলের প্রবেশের অনুমতি নেই। এরই ধারাবাহিকতায় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা গত ৩ ডিসেম্বর আবারও ছাত্রীদের প্রকাশ্যে গণধর্ষণের হুমকি দেয়। এ নিয়ে বুধবার সকাল থেকে প্রতিবাদে ফেটে পড়ে আইএইচটির শিার্থীরা। প্রতিবাদ শেষে অধ্যরে ক থেকে ফেরার পথে ছাত্রীদের ওপর হামলা চালায় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। হামলার ঘটনার পরে সাংবাদিকদের সামনে এমন অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী শিার্থীরা। : অভিযোগ প্রসঙ্গে অধ্য সিরাজুল ইসলাম বলেন, এই প্রথম ছাত্রীরা আমার কাছে এমন অভিযোগ করেছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে আইএইচটি অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। ছাত্রীরা জানায়, রাজশাহী ইনস্টিটিউট অব হেল্থ টেকনোলজি ছাত্রীদের ছাত্রলীগ কর্মীদ্বারা উত্ত্যক্ত করা হতো। গত ৩ ডিসেম্বর বরিশাল আইএইচটির দুজন অসুস্থ ছাত্রীর সাহায্যার্থে নগরীর সাহেব বাজার জিরোপয়েন্টে বিভিন্ন কর্মসূচি পালনের কথা ছিল। সেখানে যেতে বাধা দিয়ে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ক্যাম্পাসের মূল গেটে তালা ঝুলিলে দেয়। এ সময় হোস্টেলের ছাত্রীরা বাইরে আসতে চাইলে তাদের অকথ্য ভাষায় গালাগালি করে। এ ঘটনায় পরে আইএইচটি ছাত্রলীগের নেতারা ছাত্রীদের ডেকে পাঠায়। অসুস্থতার কারণে কয়েকজন ছাত্রী আসতে পরেনি। এতে ছাত্রলীগ নেতা তুহিন, মুন্নাফ, তুহিন, কাইউম ও নাইম অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। ছাত্রলীগের কয়েকজন  নেতাকর্মী ছাত্রীদের হুমকি দিয়ে বলে, ভেতরে যেতে চাইলে সবাইকে গণধর্ষণ করবো। হোস্টেলের ছাত্রীরা বাইরে আসলে নানাভাবে লাঞ্ছিত করবে বলেও হুমকি দেয়। : ছাত্রীরা আরো অভিযোগ করেন, গত কয়েক দিন আগে এক ছাত্রীর ছোট ভাই তার বোনের সঙ্গে দেখা করতে আসে। এসময় তাকেও নানাভাবে হুমকি দেয় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। পরে ছাত্রলীগ সভাপতি জাহিদুল ইসলাম জাহিদই উল্টো অধ্যরে নিকট লিখিত অভিযোগ করেন। ওই ছাত্রীর নিকট ২৫ হাজার টাকা দাবি করেন জাহিদ। এ বিষয়ে রাজপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাফিজুর রহমান হাফিজ জানান, আন্দোলনরত ছাত্রীদের ওপর ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা হামলা চালানোর চেষ্টা করে। এ সময় পুলিশ গিয়ে তাদের প্রতিহত করে। পুলিশের ধাওয়া খেয়ে তারা ক্যাম্পাস ছেড়ে পালিয়ে যায়। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। : আইএইচটিতে শিার্থীদের উপর ছাত্রলীগের হামলায় ছাত্রদলের নিন্দা : রাজশাহী ইনস্টিটিউট অব মেডিকেল টেকনোলজি কলেজ (আইএইচটি) এর শিার্থীরা ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের কারণে বিশ্ববিদ্যালয়ে শিার পরিবেশ ফিরিয়ে দেয়ার দাবিতে কলেজের অধ্য বরাবর স্মারকলিপি দিতে গেল সাধারণ শিার্থীদের উপর ছাত্রলীগের বর্বরোচিত হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল। গতকাল বুধবার ছাত্রদলের সভাপতি রাজিব আহসান ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ এ নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। : বিবৃতিতে ছাত্রদলের নেতৃদ্বয় বলেন, ছাত্রলীগ সন্ত্রাসীদের জন্য সাধারণ শিার্থীদের শিাজীবন আজ বিপন্ন। ছাত্রলীগের অব্যাহত সন্ত্রাসী কার্যক্রম জংলী মানসিকতাকেও ছাড়িয়ে গেছে। ছাত্রলীগ বিশ্ববিদ্যালয় শিক এমনকি ভিসিকে মারধর, টেন্ডারবাজি, চাঁদাবাজি, ভর্তি বাণিজ্য, সিট বাণিজ্য, খুনোখুনি, ছিনতাই, ধর্ষণ, মাদক ব্যবসা, ইভটিজিংসহ না অপরাধমূলক কর্মকান্ড করছে, এমনকি নিজেদের দলের কর্মীকে তারা হত্যা করতে পিছপা হচ্ছে না। আদর্শ ভাবাবেগ দূরে থাক সাধারণ চুলজ্জা যা যে কোন সংগঠনের নেতাকর্মীদের থাকার কথা তাও নেই ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের মধ্যে। রাজশাহী ইনস্টিটিউট অব মেডিকেল টেকনোলজি কলেজ (আইএইচটি) শিার্থীদের উপর ছাত্রলীগ সন্ত্রাসীদের বর্বরোচিত হামলা তার একটি উদাহরণ মাত্র। : নেতৃদ্বয় আরও বলেন, সারাদেশে ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীরা অব্যাহতভাবে সন্ত্রাসী কাজ করলেও সরকার এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তাদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। অথচ সাধারণ শিার্থীরা কোনো অন্যায়ের প্রতিবাদ করলে তাদের উপর সন্ত্রাসী হামলা করা হচ্ছে। নেতৃদ্বয় অবিলম্বে, আইএইচটিতে ছাত্রলীগের হামলায় আহত শিার্থীদের সুচিকিৎসার দাবি জানান এবং হামলাকারী ছাত্রলীগ সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহণের জোর দাবি জানান একই সাথে ‘ছাত্রলীগ করলেই সাত খুন মাফ’ এই নীতি পরিহার করে শিা প্রতিষ্ঠানগুলোতে শিার সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিত করতে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানান। : : : :





প্রথম পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

রসিক নির্বাচন অবাধ হবে না বলে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন প্রার্থীরা। আপনিও কি তাই মনে করেন?
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
7262 জন