বড়পুকুরিয়া কয়লাখনি গ্রামবাসীদের ক্ষতিপূরণ দাবি, মানববন্ধন
Published : Friday, 8 December, 2017 at 12:00 AM
ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি : দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া কয়লাখনির কারণে নতুন করে ১৩টি গ্রাম ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় ক্ষতিপূরণের দাবিতে ৫ হাজার মানুষ মানববন্ধন করেন। গত বুধবার সকাল সাড়ে ১০টায় বড়পুকুরিয়া খনি এলাকায় নতুন করে ১৩টি গ্রাম ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় খনি কর্তৃপক্ষের কাছে ক্ষতিপূরণের দাবিতে কয়লা খনি এলাকায় ৫ হাজার মানুষ মানববন্ধন করেন। মানববন্ধনে বড়পুকুরিয়া এলাকার ১৩টি গ্রামের ৫ হাজার নারী-পুরুষ সকাল সাড়ে ১০টার মধ্যে বাড়িঘর ছেড়ে রাস্তার পাশে ফেস্টুন-ব্যানার নিয়ে ৬ দফা দাবি আদায়ের লক্ষ্যে ৩ ঘন্টা মানববন্ধন করেন। বড়পুকুরিয়া কয়লাখনি এলাকার ক্ষতিগ্রস্ত ১৩টি গ্রামের সমন্বয় কমিটির আহ্বায়ক মো. মশিউর রহমান বুলবুল মানববন্ধনের বক্তব্যে বলেন, আমাদের ৬ দফা দাবি খনি কর্তৃপক্ষকে মেনে নিতে হবে। ৬ দফা দাবিগুলো আমাদের বাস্তবায়ন করতে হবে। এর মধ্যে কয়লা খনিতে ক্ষতিগ্রস্ত ১৩টি গ্রামের মধ্যে মোবারকপুর, বইগ্রাম, কাশিয়াডাঙ্গা, রসুলপুর, কালুপাড়া, মহেশপুর, পাতরাপাড়া, বাঁশপুকুর, বৌধনাথপুর, কাজিপাড়া, হামিদপুর, চৌহাটি, যবরপাড়া, এলাকায় ভূ-গর্ভ থেকে কয়লা উত্তোলনের ফলে ঘরবাড়িতে নতুন করে ফাটলের ক্ষতিপূরণ দেয়া হচ্ছে না। ক্ষতিগ্রস্ত ওই সব বাসাবাড়ির উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। ক্ষতিগ্রস্ত প্রত্যেক পরিবার থেকে চাকরির ব্যবস্থা করতে হবে ও কোটা রাখতে হবে। ফুলবাড়ী থেকে খয়েরপুকুর হাট ও চৌহাটি থেকে ধুলাউদাল পর্যন্ত জনগণের চলাচলের জন্য রাস্তাটি উপযুক্ত করতে হবে। বড়পুকুরিয়ায় বর্ষাকালে রাস্তাটি পানির নিচে ডুবে যায়। এতে এলাকার মানুষ, স্কুল কলেজের ছাত্রছাত্রী এবং অসুস্থ রোগী নিয়ে চলাচল করা অসম্ভব হয়ে পড়ে। ইতিপূর্বে খনি কর্তৃপক্ষ এলাকার মানুষকে আশার আলো দেখিয়ে মসজিদ, কবরস্থান, ঈদগাহ মাঠ, ফসলের জমি, বাসাবাড়ি, পুকুর সব কিছু ধ্বংস করে দিয়ে ৬২৭ একর জমি অধিগ্রহণ করে। আজ এলাকার মানুষ খনির কারণে নিঃস্ব হয়ে গেছে। আর তারা এই এলাকার ক্ষতি করতে দিতে চান না। নতুন করে ১৩টি গ্রাম ধ্বংস করে ২ হাজার ১০০ একর জমি অধিগ্রহণ করার ষড়যন্ত্র করছে। খনি কর্তৃপক্ষ আমাদের দাবি মেনে না নিয়ে আমাদের ভয়ভীতি, মামলা-মোকদ্দমা করে আন্দোলনকে বন্ধ করতে চায়। আমরা তাদের এই হুমকির কাছে মাথানত করতে চাই না। : :





দেশের পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

সুজন সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার বলেছেন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ওপর মানুষের আস্থা কমেছে। আপনিও কি তাই মনে করেন?
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
32714 জন