দুপচাঁচিয়ায় আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে রাস্তা নির্মান
Published : Friday, 8 December, 2017 at 12:00 AM
দুপচাঁচিয়া (বগুড়া) প্রতিনিধি : দুপচাঁচিয়া উপজেলার কুড়াহারে আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ৪০ দিনের কর্মসূচির প্রকল্পের আওতায় হিন্দু সম্প্রদায়ের জমির আইল মাটি কেটে ভরাট করে রাস্তা তৈরির করা হচ্ছে। উপজেলার গুনাহার ইউনিয়নের কুড়াহার গ্রামে গত ৬ ডিসেম্বর বুধবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, কুড়াহার থেকে অর্জুনগাড়ী সড়কের মাঝ থেকে পশ্চিমপাড়া পর্যন্ত প্রায় ৬শ ফিট জমির আইল কেটে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ থেকে রাস্তা তৈরি করা হচ্ছে। এলাকার হিন্দু সম্প্রদায়ের এই জমির উপর দিয়ে রাস্তা তৈরি হওয়ায় তারা ক্ষতির আশঙ্কায় বগুড়ার দুপচাঁচিয়া সহকারী জর্জ আদালতে মোকদ্দমা নং ৪৭/১৭ অন্য দায়ের করে। বিজ্ঞ আদালত উক্ত জমির আইল ভরাট করে রাস্তা তৈরির উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। কিন্তু স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ উক্ত নিষেধাজ্ঞাকে অমান্য করে ৪০ দিনের কর্মসূচি প্রকল্পের আওতায় রাস্তা তৈরি করছে। এ ব্যাপারে ক্ষতিগ্রস্ত ওই গ্রামের নিত্যানন্দ বসাকের ছেলে সমরেন্দ্রনাথ বসাক, মৃত মদন মোহন বসাকের পুত্রদ্বয় গৌরাঙ্গ বসাক ও নিত্যানন্দ বসাকসহ আরো অনেকেই জানান, আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ থেকে তাদের জমির আইল কেটে রাস্তা তৈরি করা হচ্ছে। এতে তাদের জমিতে লাগানো আলু সরিষাসহ শীত মৌসুমের ফসল হুমকির মুখে পড়েছে। এ ব্যাপারে প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটির চেয়ারম্যান স্থানীয় মেম্বার ওয়াছিম আলী বুলু মুঠোফোনে প্রকল্পটি গ্রহণসহ তা বাস্তবায়নের কথা স্বীকার করে জানান, প্রকল্পটি ইউনিয়ন পরিষদ থেকে বাস্তবায়নের জন্য ৪০ দিনের কর্মসূচির আওতায় তাকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। তিনি জমির আইল মাটি কেটে ভরাট করে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছেন। আদালতের নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে তিনি স্বীকার করে জানান, স্থানীয় চেয়ারম্যান শাহ মোহাম্মদ আব্দুল খালেক-এর নির্দেশেই প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছেন। উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা এইচএম আশরাফুল আরেফিন জানান, কুড়াহার অর্জুনগাড়ী সড়কের মাঝ থেকে পশ্চিমপাড়ার অভিমুখে জমির আইল ভরাট করে নতুন ভাবে রাস্তা তৈরির জন্য ইউনিয়ন পরিষদ থেকে প্রকল্প দেয়া হয়েছে। ৪০ দিনের কর্মসূচির আওতায় উক্ত প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হচ্ছে। উক্ত জমির আইল ভরাট করে রাস্তা তৈরির উপর আদালত থেকে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে তা জানা নেই। আদালতের কাগজ পেলে প্রকল্পটি অন্যত্র স্থানান্তরের ব্যবস্থা নিবেন বলে জানান। : :





দেশের পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

সুজন সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার বলেছেন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ওপর মানুষের আস্থা কমেছে। আপনিও কি তাই মনে করেন?
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
32694 জন