সংবাদ সম্মেলনে দেয়া প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য হাস্যকর : মির্জা ফখরুল
বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে চীনের প্রতিনিধি দলের বৈঠক অনুষ্ঠিত
Published : Friday, 8 December, 2017 at 12:00 AM, Update: 07.12.2017 10:30:24 PM
বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে চীনের প্রতিনিধি দলের বৈঠক অনুষ্ঠিতদিনকাল রিপোর্ট : বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে বৈঠক করেছেন চীনা কমিউনিস্ট পার্টির সহকারী মন্ত্রী ও প্রতিনিধি দল। গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা পৌনে সাতটার দিকে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। বৈঠকে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য লে. জে. মাহবুবুর রহমান, বিএনপি চেয়ারপাসনের উপদেষ্টা রিয়াজ রহমান ও সাবিহ উদ্দিন উপস্থিত ছিলেন। চীনা প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন দেশটির আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের সহকারী মন্ত্রী ওয়াং ইয়াজুন। প্রতিনিধিদলের অন্য সদস্যরা হলেন- চীনের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের মহাপরিচালক জাং সুয়ে, পরিচালক হু জিয়াওদং, তান উই ও মি. ফু উইরাং ও বাংলাদেশে নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদূত। : বৈঠক শেষে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, বিএনপিকে নাকে খত দিয়ে নির্বাচনে আসতে হবে না। সরকারই বাধ্য হবে সবাইকে নিয়ে অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন দিতে। ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির মতো নির্বাচন এদেশের মানুষ মেনে নেবে না। আর সে ধরনের নির্বাচন হতেও দেয়া হবে না। : বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া আমাকে মা করেছেন নাকি তিনি মা চাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রীর এমন বক্তব্যর জবাবে মির্জা ফখরুল বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এ বক্তব্য হাস্যকর। দাম্ভিকতায় ভরা। জাতি তার কাছে দায়িত্বশীল বক্তব্য আশা করে। বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া কেন ক্ষমা চাইতে যাবেন। এ সরকারের সময়ে জিয়া পরিবার, বিএনপি নেতাকর্মী ও দেশবাসীর ওপর যে পরিমাণ অন্যায়-অত্যাচার হয়েছে তা দেশবাসী অবহিত আছে। তাই দেশনেত্রী দেশবাসীর পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রীকে ক্ষমা করে দিয়েছেন। কাকে মা চাইতে হবে সেই সিদ্ধান্ত জনগণই গ্রহণ করবেন। : মিনায়নমার থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে চীনের ভূমিকা সম্পর্কে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া চীনা কমিউনিস্ট পার্টির সহকারী মন্ত্রী ও প্রতিনিধি দলের কাছে জানতে চাইলে তারা ম্যাডামকে জানান, ইতিমধ্যে আমাদের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বাংলাদেশ সফর করেছেন। রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে আমাদের আন্তরিকতা রয়েছে। চীন চায় রোহিঙ্গাদের দ্রুত সময়ে ফিরিয়ে নেয়। এ জন্য চীন কার্যকর ভূমিকা পালন করবে। : বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে চীনা কমিউনিস্ট পার্টির সহকারী মন্ত্রী ও প্রতিনিধি দলের বৈঠকের পর মির্জা ফখরুল জানান, দুই দেশের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। দুই দেশের মধ্যে বন্ধুত্ব আরো সুদৃঢ় করতেই বাংলাদেশ সফরে এসেছেন। এ সময় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ডা. এজেড এম জাহিদ হোসেন, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা এম কাউয়ূম উপস্থিত ছিলেন।   : : : :





প্রথম পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

সুজন সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার বলেছেন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ওপর মানুষের আস্থা কমেছে। আপনিও কি তাই মনে করেন?
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
32744 জন