রাণীনগরে র‌্যাফেল ড্র’র নেপথ্যে জুয়ার আসর
Published : Saturday, 30 December, 2017 at 12:00 AM
মোঃ শহিদুল ইসলাম, রাণীনগর (নওগাঁ) থেকে : নওগাঁয় শিল্প ও বাণিজ্য মেলাসহ আত্রাই এবং বদলগাছী উপজেলায় মেলা ও সার্কাসের  অন্তরালে চলা র‌্যাফল ড্র নামক লটারীর টিকিট বিক্রির ধুম পড়েছে রাণীনগরে। প্রতিদিন সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত কেউ ট্রাকে, কেউ সিএনজিতে; কেউবা অটোচার্জারে মাইকিং করে বিক্রি করছে লটারী নামক জুয়ার টিকিট। লটারীতে আকর্ষণীয় ও লোভনীয় অফারের ফাঁদে পড়ে আর্থিকভাবে সর্বস্বান্ত হচ্ছে রাণীনগরের সাধারণ মানুষ। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের উদাসিনতায় প্রতিনিয়ত নওগাঁ সদর ও বিভিন্ন উপজেলা থেকে আসা লটারীর টিকিট বিক্রির অহরহ গাড়ি দেখে সচেতন মহল মনে করছেন রাণীনগর যেন লটারী নামক জুয়ার নগরীতে পরিণত হয়ে পড়েছে। জানা গেছে, সম্প্রতি নওগাঁ জেলা সদরে ‘নওগাঁ চেম্বার অফ কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি’র আয়োজনে শিল্প ও বাণিজ্য মেলার ‘দৈনিক স্বপ্ন ছোঁয়া’ এবং জেলার বদলগাছী উপজেলার সেনপাড়া নামকস্থানে বদলগাছীর প্রতিবন্ধী মানুষের সাহায্যার্থে ‘আশার আলো র‌্যাফেল ড্র’ ও জেলার আত্রাই উপজেলায় ‘দৈনিক ফাইভ স্টার’ র‌্যাফেল ড্র নামক লটারী চলছে। : আর এসব লটারীর টিকিট সংশ্লিষ্ট এলাকাসহ ভয়াবহ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা হিসেবে চিহ্নিত রাণীনগর উপজেলার সদর বাজার, আবাদপুকুর বাজার, সিম্বা, লোহাচূড়া, চৌমোহনী, বেলঘড়িয়া, খানপুকুর, বগারবাড়ি, কুবরাতলি, কুজাইল, বেতগাড়ী বাজারসহ উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় কেউ ট্রাকে, কেউ সিএনজিতে আবার কেউ অটোচার্জারে মাইকিং করে অবাধে বিক্রি করছে এসব লটারীর টিকিট। র‌্যাফেল ড্র নামক জুয়ার মাধ্যমে মাত্র ২০ টাকা মূল্যের টিকিটে অধিক টাকার আকর্ষণীয় ও লোভনীয় পুরস্কার জিতে রাতারাতি নখ ফুলে কলাগাছ বনে যাবার স্বপ্নে টিকিট কিনতে হুমড়ি খেয়ে পড়ছে লোকজন। এতে স্কুল-কলেজের ছাত্র-ছাত্রী থেকে শুরু করে প্রায় সব শ্রেণী-পেশার মানুষ আসক্ত হয়ে পড়ছে এই জুয়ার নেশায়। বিশেষ করে স্থানীয় ক্যাবল নেটওয়ার্ক সিডি চ্যানেলে সরাসরি প্রচার করা ঘোষণায়  নিজ ঘরে বসে খেলাগুলো সারসরি উপভোগ করতে পারার আসায় টিকিট কিনতে হুমড়ি খেয়ে পড়ছে লোকজন। বিভিন্ন ব্যান্ডের  মোটরসাইকেল, গরু, সোনার গহনাসহ বিভিন্ন আর্কষণীয় পুরস্কারের ঘোষণা দিয়ে মন ভুলানো কথা বলে সকাল থেকে সন্ধ্যা অবধি বিরতিহীনভাবে টিকিট বিক্রি করে যাচ্ছে। এই এলাকার রিকশা/ভ্যানচালক থেকে শুরু করে অনেক শ্রমজীবি, পেশাজীবী মানুষের কাছে টিকিট কেনা যেন নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র কেনার মত হয়ে দাঁড়িয়েছে। গত বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলা সদরের ভ্যানচালক আমির হোসেন (৩৪) জানালেন, তিনি মোটরসাইকেল পাবার আসায় ২০ টাকায় লটারীর টিকিট কিনেছেন।  উপজেলার সিম্বা গ্রামের আমিনুর, করজগ্রামের উজ্জল হোসেনসহ অনেকেই জানান, র‌্যাফেল ড্র শুরু হবার পর থেকে প্রতিদিন তারা দামি পুরস্কার পাবার আসায় টিকিট কিনছেন। : :





দেশের পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, দেশে বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড হচ্ছে না। আপনি কি একমত?
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
1998 জন