টঙ্গীতে প্রকাশ্যে যুবককে কুপিয়ে হত্যা
Published : Saturday, 30 December, 2017 at 12:00 AM
টঙ্গী প্রতিনিধি, দিনকাল : টঙ্গীর সুখীনগরে শুক্রবার দিনেদুপুরে এক যুবককে নির্মমভাবে কুপিয়ে হত্যা করেছে সন্ত্রাসী মাদক কারবারীরা। নিহতের নাম মহিন (২২)। সে টঙ্গীর আউচপাড়া খাঁপাড়া রোডে ভাড়া থাকতো। তার বাড়ি কুমিল্লা জেলার বরুরা থানার নোয়াগাঁও গ্রামে। তার পিতার নাম আবুল হাসেম। : নিহতের ছোট ভাই উত্তরার একটি অটো গ্যারেজের কর্মচারী মীমরাজ জানান, মহিন টঙ্গীর গাজীপুরা গার্মেন্ট পল্লীর ভিয়ালাটেক্স পোশাক কারখানায় চাকরি করতো। এলাকার মাদক কারবারীরা মহিনকে অধিক মুনাফার প্রলোভন দেখিয়ে মাদক ব্যবসায় যুক্ত করে। মাদক ব্যবসায় যুক্ত হওয়ার পর সে পোশাক কারখানার চাকরি ছেড়ে দেয়। সম্প্রতি মাদক ব্যবসা নিয়ে সহযোগীদের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হয়। মহিন একপর্যায়ে গ্রামের বাড়িতে চলে যায়। গত তিন দিন আগে সহযোগী ইয়াবা কারবারীরা তাকে ফোনে গ্রামের বাড়ি থেকে টঙ্গীতে ডেকে আনে। এরপর টঙ্গীর খাঁপাড়ায় সহযোগী মাদক কারবারী পরান ও সবুজের সাথে সে থাকতো। : মীমরাজ আরো জানান, মহিনকে সহযোগী মাদক কারবারীরা ইতিপূর্বে হত্যার হুমকি দিয়েছিল। ফলে সে টঙ্গীতে ফিরে আসায় তার নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কিত ছিল মীমরাজ। মহিনকে গাড়ি ভাড়া দিয়ে গ্রামের বাড়িতে ফেরত পাঠানোর চেষ্টা করেছিল মীমরাজ। কিন্তু সে রাজি হয়নি। গতকাল শুক্রবার সকাল ১১টায় সর্বশেষ মোবাইল ফোনে মহিনের সাথে কথা হয় ছোট ভাই মীমরাজের। মহিন মীমকে জানায় সে টঙ্গীর খরতৈল সুখী নগরে সবুজ ও পরানের সাথে অবস্থান করছে। : সুখীনগরের সহযোগী মাদক কারবারীদের সাথে অবস্থানের কথা শুনে দুশ্চিন্তায় পড়ে যায় মীমরাজ। এর পর মহিনকে ফোন দিলে মোবাইল বন্ধ পাওয়ায় তার উদ্বেগ আরো বেড়ে যায়। একপর্যায়ে ভাইকে খোঁজার জন্য সুখীনগরে ছুটে যায় মীমরাজ। সেখানে মহিনকে খুঁজতে গিয়ে জানতে পারে সুখীনগরে একটি হত্যাকান্ড হয়েছে। এর পর সে ঘটনাস্থলে গিয়ে তার ভাই মহিনের লাশ দেখতে পায়। : স্থানীয়রা জানায়, সুখীনগরে স্থানীয় কুনিয়া এলাকার আব্দুস সোবহান মেম্বারের নির্মাণাধীন পরিত্যক্ত একটি ঘরের ভেতরে সন্ত্রাসীরা শুক্রবার জুমার সময় মহিনকে কুপিয়ে বাম পা হাঁটুর নিচ থেকে বিচ্ছিন্ন করে ফেলে। এর পর লাশ রাস্তার পাশে একটি বড়ই গাছের চারার নিচে ফেলে রেখে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। টঙ্গী ও জয়দেবপুর থানার সীমান্তবর্তী ওই এলাকাটি মাদক কারবারী ও সন্ত্রাসীদের আখড়ায় পরিণত হয়েছে বলে এলাকাবাসী অভিযোগ করেন। শুক্রবারের হত্যাকান্ডের ঘটনাস্থল জয়দেবপুর থানার সীমান্তের ভেতর পড়ায় জয়দেবপুর থানা পুলিশ সন্ধ্যায় লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজ উদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠিয়েছে। :





প্রথম পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, দেশে বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড হচ্ছে না। আপনি কি একমত?
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
2016 জন