শিক্ষক সমাজ আন্দোলনে
Published : Monday, 1 January, 2018 at 12:00 AM
দিনকাল রিপোর্ট : এবার  বিভিন্ন দাবিতে সরকারের বিরুদ্ধে এমপিওভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারীরাও আন্দোলনের ডাক দিচ্ছেন। এছাড়া নন-এমপিওভুক্ত শিক্ষকরাও এমপিওভুক্তির দাবিতে রাজপথে আমরণ অনশনে রয়েছেন। এর আগে  প্রাথমিক শিক্ষকরা আন্দোলন করেন। সবকিছু মিলে সারাদেশের শিক্ষক সমাজ বাধ্য হয়ে রাজপথে নামছেন। কিন্তু সরকারের পক্ষ থেকে এই শিক্ষক সমাজের ন্যায়সঙ্গত দাবি বাস্তবায়নে এগিয়ে না আসায় তারা কঠিন আন্দোলনে রয়েছেন। : এদিকে গতকাল রবিবার শিক্ষাব্যবস্থা জাতীয়করণসহ ১১ দফা দাবিতে লাগাতার আন্দোলনের ঘোষণা দিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও আদর্শে বিশ্বাসী এমপিওভুক্ত ৯টি শিক্ষক-কর্মচারী সংগ্রাম কমিটি। গতকাল জাতীয়  প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে আন্দোলনের এ ঘোষণা দেন শিক্ষক-কর্মচারী সংগ্রাম কমিটির সমন্বয়কারী অধ্যক্ষ আসাদুল হক। সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, এসব দাবিতে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করেছেন তারা। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ কোনো উদ্যোগ গ্রহণ করেনি। এ কারণে আগামী ২২ জানুয়ারি থেকে সকল এপিওভুক্ত স্কুল, কলেজ ও কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারী অবিরাম আন্দোলনে নামার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এর আগে ৯ জানুয়ারি উপজেলা শহর পর্যায়ে শিক্ষক-কর্মচারীদের মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল এবং ইউএনও’র মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হবে। ১৪ জানুয়ারি জেলা শহরগুলোতে একই কর্মসূচি পালিত ও একই দিন রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করা হবে। পরে ঢাকা বিভাগীয় কমিশনারের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী, অর্থমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হবে। : এরপর ২১ থেকে ২৭ জানুয়ারি স্থানীয়ভাবে জনপ্রতিনিধি, রাজনীতিবিদ, ম্যানেজিং কমিটি, অভিভাবক, সাংবাদিক, পেশাজীবী ও বুুদ্ধিজীবীদের সঙ্গে মতবিনিময় করা হবে। ২২ জানুয়ারি থেকে অবিরাম ধর্মঘটে নামবে সরকার সমর্থিত শিক্ষক-কর্মচারীরা। সংবাদ সম্মেলনে এপিওভুক্ত ৯টি সংগঠনের শিক্ষক নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সংগঠনগুলোর মধ্যে বাংলাদেশ কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি, বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি, বাংলাদেশ কারিগরি কলেজ শিক্ষক সমিতি উল্লেখযোগ্য। : :





প্রথম পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

সুজন নেতৃবৃন্দ বলেছেন, রংপুরের ভোট নিয়ে ইসির নিরপেক্ষতা ও গ্রহণযোগ্যতা বিচার করা ঠিক হবে না। আপনি কি একমত?
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
7437 জন