তানোরে চোরাই বিদ্যুৎ সংযোগে সেচ মোটর!
Published : Saturday, 6 January, 2018 at 12:00 AM
তানোর (রাজশাহী) প্রতিনিধি : তানোরে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির কতিপয় কর্মকর্তার যোগসাজশে চোরাই বিদ্যুৎ সংযোগের মাধ্যমে সেচ মোটর পরিচালনার অভিযোগ পাওয়া গেছে। তানোরের পাঁচন্দর ইউপির কচুয়া গ্রামে চোরাই বিদ্যুৎ সংযোগের মাধ্যমে সেচ মোটর পরিচালনা করার ঘটনা ঘটেছে। এদিকে চোরাই বিদ্যুৎ সংযোগের মাধ্যমে সেচ মোটর পরিচালনা করা নিয়ে স্থানীয় বিবাদমান দুটি পক্ষের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।  এ ঘটনায় ২০১৭ সালের ৩০ নভেম্বর এলাকাবাসীর পক্ষে সোনা কাজী বাদী হয়ে অবৈধ সেচ মোটর মালিক তমির কাজীর বিরুদ্ধে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির তানোর এরিয়া ম্যানেজার (এজিএম) কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন। কিন্তু অভিযোগের প্রায় দুই মাস অতিবাহিত হলেও রহস্যজনক কারণে পল্লী বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ সেচ মোটরে চোরাই বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেনি বা কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। ফলে পল্লী বিদ্যুতের তানোর এরিয়া ম্যানেজারের (এজিএম) ভূমিকা নিয়ে সাধারণের মনে নানা প্রশ্নের জন্ম দিয়েছে, উঠেছে সমালোচনার ঝড়। অভিযোগ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, তানোরের পাঁচন্দর ইউপির কচুয়া মৌজায় কচুয়া গ্রামের বাসিন্দা তৈয়ব কাজীর ছেলে তমির কাজী গভীর নলকূপের (স্কিম) কমান্ড এরিয়ায় অবৈধভাবে (এসটিডাব্লিউ) সেচ মোটর স্থাপন করে বিদ্যুৎ সংযোগ দিয়েছেন। এদিকে বিদ্যুৎ বিভাগ সরেজমিনে তদন্তে গিয়ে সেচ নীতিমালা লঙ্ঘন করে অবৈধভাবে সেচ মোটর স্থাপনের অভিযোগে মোটরের বিদ্যুৎ সংযোগ বিছিন্ন করে দিয়েছে। কিন্তু তমির কাজী আবারো পল্লী বিদ্যুৎ বিভাগের কতিপয় কর্মকর্তাকে আর্থিক সুবিধা দিয়ে স্থানীয় টেকনিশিয়ান দ্বারা তার সেচ মোটরে বিদ্যুৎ সংযোগ নিয়েছেন। অথচ বার বার অভিযোগ করা হলেও পল্লী বিদ্যুৎ তানোর এরিয়া ম্যানেজার (এজিএম) সানোয়ার হোসেন রহস্যজনক কারণে বিষয়টি আমলে না নিয়ে এড়িয়ে যাচ্ছেন। এদিকে অবৈধ  বিদ্যুৎ সংযোগের মাধ্যমে সেচ মোটর পরিচালনার খবর ছড়িয়ে পড়লে এলাকার কৃষকদের মধ্যে চরম অসন্তোষ সৃষ্টি হয়েছে। : :





দেশের পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতিতে অনশন স্থগিত করলেন নন-এমপিওভুক্ত শিক্ষকরা। শিক্ষকদের দাবি পূরণ হবে বলে মনে করেন?
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
2123 জন