কালিয়ায় বাল্যবিয়ের জাঁকজমক অনুষ্ঠান পণ্ড করলো কনে নিজেই
Published : Saturday, 6 January, 2018 at 12:00 AM
কালিয়া (নড়াইল) প্রতিনিধি : নিজ দলীয় সরকার দেশে বাল্যবিয়ে মুক্ত ঘোষণা করলেও নড়াইলের নড়াগাতিতে এক বাল্যবিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে সমালোচনার মুখে পড়েছেন নড়াইল-১ (কালিয়া-সদরের একাংশ) আসনের এমপি কবিরুল মুক্তি। একই সঙ্গে বাল্যবিয়ের ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কালিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান খান শামিমুর রহমান ওসি, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. নাজমুল হুদা, নড়াগাতি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বেলায়েত হোসেন। তবে কনে নিজেই স্বেচ্ছাপ্রণোদিত হয়ে বিয়ে পন্ড করেছে। গত বুধবার দুপুর ২টার দিকে হওয়া রাজকীয় এই পন্ড বিয়ের অনুষ্ঠান নিয়ে সর্ব মহলে শুরু হয়েছে আলোচনা-সমালোচনার ঝড়। স্থানীয়রা জানান, কালিয়া উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা ইউনিটের কমান্ডার তরিকুল আলম মুন্নুর মেয়ে ও বড়দিয়া ফজিলাতুন্নেসা বালিকা বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্রী প্রাপ্তি খানমের সঙ্গে (১৫) নড়াগাতি থানার বাঐসোনা গ্রামের মৃত. হাই শেখের ছেলে ও পুলিশ সদস্য মো. নাদিম শেখের বিয়ের দিন ধার্য ছিল বুধবার দুপুরে। যথারীতি বিয়ের নির্ধারিত দিনে নড়াগাতি থানার রামপুরা গ্রামে কনের বাড়িতে এমপি মুক্তি, এমপির স্ত্রী মিসেস চন্দনাসহ স্থানীয় প্রশাসন ও রাজনৈতিক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিরা বাল্যবিয়ের রাজকীয় এ অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। প্রায় চার শতাধিক বরযাত্রীসহ সহস্রাধিক মেহমান এ বিয়েতে আমন্ত্রিত ছিলেন। কিন্তু যেখানে আইন প্রণেতা ও রক্ষক নীরব, তখন কনে নিজেই বর পছন্দ হয়নি এমন অজুহাত দেখিয়ে নিজের বিয়ের পিঁড়ি থেকে সরে অনুষ্ঠান পন্ড করে দিল। এ ব্যাপারে জেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট আইউব আলী বলেন, আইন প্রণেতা নিজে ও আইনের রক্ষকরা আইন না মানলে সাধারণ নাগরিকরা কি করবেন। অপ্রাপ্তবয়স্ক বাল্যবিয়ের অনুষ্ঠানে এমপি ও প্রশাসনের কর্মকর্তারা যোগদিলেন কীভাবে? এ ঘটনা জাতির জন্য লজ্জার। এ প্রসঙ্গে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. নাজমুল হুদা বলেন, আমি বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগদানের পর জানতে পারলাম কনে অপ্রাপ্ত বয়স্ক এবং বিয়ের অনুষ্ঠান সম্পন্ন হওয়া নিয়ে উভয় পরিবারের মধ্যে দ্বন্দ্বের সৃষ্টি হওয়ায় এটা পন্ড করা হয়েছে। : :





দেশের পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতিতে অনশন স্থগিত করলেন নন-এমপিওভুক্ত শিক্ষকরা। শিক্ষকদের দাবি পূরণ হবে বলে মনে করেন?
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
2080 জন