আলসারের লক্ষণগুলো জেনে নিন
Published : Saturday, 6 January, 2018 at 12:00 AM
আলসারের লক্ষণগুলো জেনে নিনদিনকাল ডেস্ক : আজকাল সবার খাবার-দাবার নিয়ে অনিয়ম করাটা যেন ফ্যাশন হয়ে দাঁড়িয়েছে। আর ফলাফলস্বরূপ পেটের নানা সমস্যা। আর পেটের যে সমস্যা নিয়ে বেশিরভাগ মানুষ ভুগে থাকেন তা হলো আলসার। পেটের ভিতর ক্ষত বা ঘা হওয়াকে আলসার বলা হয়ে থাকে। আলসারকে সাধারণ রোগ বা ব্যথা ভেবে অবহেলা করলে পরবর্তীতে এটি অনেক মারাত্মক আকার ধারণ করতে পারে। এমন কি অনেকের আলসার থেকে ক্যানসার হয়ে মৃত্যুর মুখে ঢলে পড়ার নজিরও কম না। তাই শুরুতে যদি সঠিক চিকিৎসা নেওয়া হয়ে তবে সম্পূর্ণভাবে আলসার ভালো হওয়া সম্ভব। চলুন জেনে নিই আলসারের লক্ষণগুলো। : অস্বাভাবিক পেট ব্যথা : নাভির ডান বা বাম পাশে অল্প একটু জায়গায় চিন চিন ব্যথা অনুভূত হওয়া। অনেক সময় পেটের কোথাও ব্যথা অনুভূত না হয়ে বুকের মাঝখানে চাপ চাপ ব্যথা হওয়া এবং অস্বস্তি বোধ করা। আবার অনেক সময় এই ব্যথা পিঠ পর্যন্ত ছড়িয়ে যেতে পারে। অ্যাসিড রিফ্ল্যাক্সের ফলে এই ব্যথা হয়ে থাকে। কখনো কখনো এই রকম পেটে ব্যথার কারণে রাতে ঘুম থেকে উঠে বসে থাকতে পারে রোগী। : পেট ফাঁপা ও বায়ু ত্যাগ : কোনো কিছু না খেয়েই পেট ভরা মনে হবে। পেটের গ্যাসের কারণে পেট ভরা মনে হয়ে থাকে। খাবারের পর পর বা যেকোনো সময় অস্বস্তির সাথে পেট ফাঁপা অনুভূত হবে। কিছুক্ষণ পর পর বায়ু ত্যাগের সমস্যা দেখা দিতে পারে। : খাবারের অরুচি : আলসারের রোগীর খাওয়ার প্রতি আগ্রহ কমে যায়। খাবারে অরুচি দেখা দেয়। পরিমাণ মতো খাবার না খাওয়ায় শরীর হয়ে পরে দুর্বল। এর কারণে রক্ত স্বল্পতা, গা ম্যাস ম্যাস করা, অল্প কাজে ক্লান্ত বোধ করা সমস্যা দেখা দিতে পারে। : বুক জ্বালাপোড়া : আলসারের প্রথম এবং শুরুর লক্ষণ হলো বুক জ্বালাপোড়া করা। মশলাদার খাবার বা তৈলাক্ত খাবার খাওয়ার পর বুক ও পেটের সংযোগস্থলে জ্বালাপোড়া করে থাকবে এবং তার সাথে সাথে টক ঢেঁকুর আসা। এটি আলসারের প্রথম ও প্রাথমিক লক্ষণ। : রক্তবমি : অনেক সময় আলসারের রোগীর রক্তবমি হতে পারে। তবে বমির সাথে টাটকা রক্ত বের হবে না। বমি ও রক্ত মিশে খয়েরি রঙের বমি হতে পারে। যদি এমন হয় তবে বুঝতে হবে আলসার অনেক মারাত্মক পর্যায়ে চলে গেছে। অতিসত্বর চিকিৎসকের কাছে যেতে হবে। : ওজন কমে যাওয়া : খাবার কম খাওয়ায় দিন দিন রোগীর ওজন কমতে থাকতে। হজমের গোলমালের কারণে এই সমস্যাটা হয়ে থাকে। : কালো পায়খানা : আলসার যখন মারাত্মক আকার ধারণ করে তখন পেটের ভিতর রক্তক্ষরণের কারণে রোগীর ঘন, আঠালো এবং কালচে অস্বাভাবিক রঙের পায়খানা হতে পারে। এ রকম লক্ষণ দেখা দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে। :





প্রথম পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতিতে অনশন স্থগিত করলেন নন-এমপিওভুক্ত শিক্ষকরা। শিক্ষকদের দাবি পূরণ হবে বলে মনে করেন?
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
2135 জন