জামাতার লাঠির আঘাতে শাশুড়িকে হত্যায় মামলা
Published : Tuesday, 9 January, 2018 at 12:00 AM
আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধি : বগুড়ার আদমদীঘিতে গত শুক্রবার জামাইয়ের লাঠির আঘাতে শাশুড়ি মরিয়ম বেওয়াকে (৬৫) হত্যার ঘটনায় মামলা দায়ের। এ ঘটনায় আটককৃত জামাই শফিকুল ইসলামকে (৩২) পুলিশ গ্রেফতার করেছে। আদমদীঘি থানার অফিসার ইনচার্জ আবু সায়িদ মো. ওয়াহেদুজ্জামান গ্রেফতারের কথা নিশ্চিত করেন।  উল্লেখ্য, রংপুরের হারাগাছের মিনাজবাজার গ্রামের মরিয়ম বেওয়ার মেয়ে মনোয়ারা বিবির সঙ্গে কুড়িগ্রাম জেলার উলিপুরের পুরান্তপুর গ্রামের নুরুর ছেলে শফিকুল ইসলামের সঙ্গে ৯-১০ বছর পূর্বে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে বগুড়ার আদমদীঘির বিভিন্ন বয়লার চাতালে শ্রমিকের কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করত। সম্প্র্রতি কয়েক বছর ধরে নিহত মরিয়ম বেওয়া ডহরপুর এলাকায় আনন্দ কুন্ডুর বয়লার চাতালে ও মেয়ে মনোয়ারা বিবি হাসানের বয়লার চাতালে শ্রমিকের কাজ করতেন। শফিকুল ইসলামের সঙ্গে তার  বনিবনা না হলে গত ৩-৪ সপ্তাহ পূর্বে তাদের মধ্যে বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটে। গত শুক্রবার সন্ধ্যায় শফিকুল ইসলাম তার স্ত্রী মনোয়ারা বিবিকে মোবাইল ফোনে দেখা করতে বলে। এতে সে রাজি না হলে তার বড় ধরনের বিপদ হবে বলে হুমকি প্রদান করে মোবাইল ফোন কেটে দেয়। এরপর ওই রাতে উপজেলার ডহরপুর গ্রামে আনন্দ কুন্ডুর চাতালে শাশুড়ি মরিয়ম বেওয়ার শয়নঘরে ঢুকে লাঠি দিয়ে মাথায় আঘাত করে। রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা মরিয়ম বেওয়াকে উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা হাসপাতালে নিলে অবস্থা অবনতি হলে তাকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানে  রাতেই মারা যান তিনি। : :





দেশের পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

সাবেক আইজিপি নূরুল হুদা বলেছেন, রাজনৈতিক ব্যবহারের কারণে পুলিশের প্রতি জনগণের আস্থা কমছে। আপনি কি একমত?
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
14370 জন