কৈটোলায় বিনামূল্যে পাঠ্যবই বিতরণে টাকা নেয়ার অভিযোগ
Published : Tuesday, 9 January, 2018 at 12:00 AM
বেড়া (পাবনা) প্রতিনিধি : বেড়া উপজেলার কৈটোলা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও সহকারী প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে বিনামূল্যের পাঠ্যবই বিতরণে টাকা নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। অনেক গরিব শিক্ষার্থী টাকা না দেয়ায় নতুন বছরের প্রথম দিন বিনামূল্যের পাঠ্যবই পায়নি। এতে চরম ক্ষুব্ধ হয়েছে অনেক শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকরা।    অভিযোগে জানা যায়, কৈটোলা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও সহকারী প্রধান শিক্ষক পরস্পর যোগসাজশে বিনামূল্যের পাঠ্যবই বিতরণে প্রতি শিক্ষার্থীর কাছ থেকে ৫০০ থেকে ৭০০ টাকা করে নিয়েছেন। যারা টাকা দিয়েছে তাদের বিনামূল্যের পাঠ্যবই দেয়া হয়, আর যারা টাকা দিতে পারেনি তাদের পাঠ্যবই দেয়া হয়নি। শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যের পাঠ্যবই বই বিতরণে সেশন ফি নেয়ার সরকারি কোনো বিধিবিধান নেই। ৩০ জুন পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের ভর্তির সময় নির্ধারণ করা আছে। এই সময়ের মধ্যে এক স্কুলের শিক্ষার্থী অন্য স্কুলে ভর্তি হতে পারবে। ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও সহকারী প্রধান শিক্ষক সরকারি সব নিয়মনীতি উপেক্ষা করে বিনামূল্যের পাঠ্যবই বিতরণের সময় সেশন ফির নাম করে টাকা নিয়েছেন। এতে চরম ক্ষুব্ধ হয়েছে অনেক শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবক। কৈটোলা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক স্বপন কুমারের মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হয়। তিনি ফোন রিসিভ করেননি। সহকারী প্রধান শিক্ষক কামাল পাশা বিনামূল্যের পাঠ্যবই বিতরণে টাকা নেয়ার অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে রশিদের মাধ্যমে সেশন ফিসহ অন্যান্য ফি বাবদ টাকা নেয়া হয়েছে। বেড়া উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন বলেন, অভিযোগ পাওয়ার পর কৈটোলা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক স্বপন কুমার ও সহকারী প্রধান শিক্ষক কামাল পাশাকে অফিসে ডেকে এনে সতর্ক করে দেয়া হয়েছে। সরকারি নিয়ম অনুযায়ী বিনামূল্যের পাঠ্যবই বিতরণের সময় শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে সেশন ফি নেয়ার কোনো সুযোগ নেই বলে তিনি জানান। বেড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফারজানা খানম বলেন, অভিযোগ পাওয়ার পর প্রধান শিক্ষক ও সহকারী প্রধান শিক্ষককে অফিসে ডেকে ছিলাম, তারা বিনামূল্যের পাঠ্যবই বই বিতরণে টাকা নেয়ার অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছেন সেশন ফিসহ অন্যান্য ফি নেয়া হয়েছে। : :





দেশের পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

সাবেক আইজিপি নূরুল হুদা বলেছেন, রাজনৈতিক ব্যবহারের কারণে পুলিশের প্রতি জনগণের আস্থা কমছে। আপনি কি একমত?
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
14306 জন