রাজধানীতে তীব্র গ্যাস সঙ্কট
Published : Thursday, 11 January, 2018 at 12:00 AM, Update: 10.01.2018 10:43:51 PM
রাজধানীতে তীব্র গ্যাস সঙ্কটআবদুল্লাহ জেয়াদ, দিনকাল : শীত বাড়ছে, এর সঙ্গে পাল্লা দিয়ে তীব্র হচ্ছে রাজধানী ও আশপাশের অনেক এলাকার গ্যাস সংকট। শীত বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে গ্যাসের চাপ কমতে শুরু করায় এবারও গ্যাস সংকট ভয়াবহ রূপ নিয়েছে। আবাসিক এলাকায় গ্যাসের এ সংকট থাকবে শীতকালজুড়ে। রাজধানীতে চাহিদার তুলনায় দৈনিক ঘাটতির পরিমাণ বাড়ার পাশাপাশি বিপুল পরিমাণ অবৈধ নতুন সংযোগ এবং নিয়ম না মেনে যত্রতত্র গ্যাস রাইজার (চাপ বৃদ্ধির যন্ত্র) স্থাপনের কারণে গ্যাসের চাপ স্বল্পতা গত শীতের চেয়ে এবার আরো তীব্র হয়েছে। অধিকাংশ এলাকায় সকাল থেকে বিকেল অবধি গ্যাসের চাপ নেই বললেই চলে। ফলে বাধ্য হয়ে রাতে অথবা কাকডাকা ভোরে দিনের রান্নার কাজ শেষ করছেন গৃহিণীরা। : বছরের অন্যান্য সময় গ্যাসের সমস্যা থাকলেও শীত আসার সঙ্গে সঙ্গে দিন দিন গ্যাস সংকট ক্রমে তীব্র হচ্ছে রাজধানীতে। সংকটের পাশাপাশি রয়েছে মাসে মাসে বিল গুনেও প্রয়োজনীয় সেবা না পাওয়ার অভিযোগ। সবচেয়ে বেশি ভুক্তভোগী চাকরিজীবীরা। তবে শীতকালে গ্যাসের ব্যবহার বাড়ায় এই সংকট বেড়েছে বলে জানায় তিতাস। কোনো দুর্ঘটনা বা বিপত্তির জন্য ঢাকা উত্তর ও দেিণ জরুরি গ্যাস নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্র রয়েছে। গত কয়েকদিনে জরুরি গ্যাস নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্রে যতগুলো অভিযোগ এসেছে তার শতকরা ৭০ ভাগই গ্যাসের অস্বাভাবিক সরবরাহ সংক্রান্ত বলে জানা যায়। রাজধানীর আজিমপুরের বাসিন্দা বেসরকারি একটি প্রতিষ্ঠানের চাকরিজীবী গৃহবধূ উম্মে হাবিবা প্রতিদিন সকালে স্কুলপড়ুয়া ছেলেমেয়ে ও ব্যবসায়ী স্বামীর জন্য দুপুরের খাবার রান্না করে তারপর অফিসে রওনা হন। হটপটে করে নিজের জন্যও নিয়ে যান লাঞ্চ। কিন্তু গত দুদিন যাবত লাইনে গ্যাস না থাকায় ঘরে রান্নাবান্না বন্ধ। এ সময় বাইরে থেকে খাবার কিনে খেতে বাধ্য হয়েছেন। বিকেলে অফিস থেকে ফিরেই তথৈবচ অবস্থা। এক কাপ চা খাবেন সেই পানিও গরম করার জো নেই। গণমাধ্যমে আলাপকালে উম্মে হাবিবা বলেন, ‘তীব্র গ্যাস সংকটে খুব সমস্যায় পড়েছেন। সকাল ৭টা বাজতে না বাজতেই গ্যাস চলে যায়। লাইনে টিপ টিপ করে গ্যাস আসায় রান্নাবান্না বন্ধের উপক্রম হয়েছে। অনেক গৃহবধূ চুলায় হাঁড়ি চড়িয়ে ঘন্টার পর ঘন্টা লাইনে গ্যাস আসার অপো করছেন। গোসলের জন্য চুলায় পানি গরম করব তারও জো নেই।’ তিনি জানতে চান, এ অবস্থা থেকে পরিত্রাণ মিলবে কবে? : এ প্রশ্ন শুধু আজিমপুরের উম্মে হাবিবার একারই নয়, রাজধানীর বিভিন্ন আবাসিক এলাকাÑ মোহাম্মদপুর, মিরপুর, মগবাজার, যাত্রাবাড়ী ও পুরান ঢাকার বেশকিছু এলাকায় গ্যাসের তীব্র সংকট দেখা দেয়ায় এমন প্রশ্ন শত শত মানুষের। অনেকে ােভ প্রকাশ করে বলেন, নিয়মিত গ্যাস বিল পরিশোধ করেও প্রয়োজনের সময় গ্যাস পাচ্ছি না। : তিতাস গ্যাস কর্মকর্তারা বলছেন, গত কয়েকদিন যাবত রাজধানীতে তীব্র আকারে শীত জেঁকে বসেছে। এ কারণে আবাসিকে চাহিদা বহুগুণ বেড়ে যাওয়ায় গ্যাস সংকট দেখা দিয়েছে। তাছাড়া তীব্র শীতের কারণে বিভিন্ন লাইনে গ্যাস জমে যাওয়ায়ও স্বাভাবিক সরবরাহ বিঘিœত হচ্ছে। তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন লিমিটেডের পরিচালক (অপারেশন) প্রকৌশলী এইচ এম আলী আশরাফ বলেন, রাজধানীতে গ্যাসের চাহিদা ও ব্যবহার শতকরা ২০ ভাগ বেড়েছে। গ্রাহকদের চাহিদা অনুযায়ী গরমকালেই অনেক সময় গ্যাসের সরবরাহ ব্যাহত হয়, আর এখন শীতের কারণে চাহিদা অনেক বৃদ্ধি পাওয়ায় এ সংকট দেখা দিয়েছে। তিতাস গ্যাস কর্মকর্তারা বলেছেন, প্রতি বছর শীতকালে গ্যাস লাইনের পাইপে বরফ জমে গ্যাসের সরবরাহের : গতি কমে যায়। গ্যাস দুর্ভোগ যেখানে বছরজুড়ে চলছে গ্যাস সরবরাহের এ বেহাল অবস্থা সম্পর্কে তিতাসের কর্মকর্তারা ওয়াকিবহাল। কিন্তু অপর্যাপ্ত সরবরাহের কারণে তারাও পরিস্থিতির উন্নতিতে খুব একটা আগ্রহ দেখান না। : : :





প্রথম পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, খালেদা জিয়াকে হয়রানি করতেই তাঁর বিরুদ্ধে ১৪ মামলা স্থানান্তর করা হয়েছে। আপনিও কি তাই মনে করেন?
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
33974 জন