শিকল পরা নোয়াখালীর গৃহবধূ রিমা অবশেষে হাসপাতালে
Published : Friday, 12 January, 2018 at 12:00 AM
নোয়াখালী প্রতিনিধি : জিন বা ভূতে ধরেছে এমনটি মনে করে পরিবারের লোকজন গত ৪ বছর ধরে ২০ বছর বয়সী গৃহবধূ রিমাকে পায়ে শিকল পরিয়ে রেখেছিল। নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলার সেই গৃহবধূ রিমাকে গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রাজধানীর ডা. সিরাজুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ অ্যান্ড হসপিটালে ভর্তি করা হয়েছে হসপিটালের চেয়ারম্যান, সুমনা গ্রুপ অফ কোম্পানিজ ও নোয়খালী প্রতিদিন টিভির চেয়ারম্যান ডা. রুবাইয়াত ইসলাম মন্টির নির্দেশে। গৃহবধূ রিমা পূর্ণ সুস্থ না হওয়া পর্যন্ত তার চিকিৎসার ব্যয়ভার বহন করবেন ডা. মন্টি। : উল্লেখ্য,  ৪ বছর আগে একই উপজেলার বানসা গ্রামের মিরন মিয়ার মেয়ে রিমা আক্তারকে পারিবারিকভাবে বিয়ে করেন উপজেলার গোমাতলী গ্রামের সিদ্দিক উল্লাহ। বিয়ের কিছু দিন পর রিমার মানসিক সমস্যা দেখা দেয়। এতে তিনি পাগলামি শুরু করলে বাড়ির লোকজন ভূত বা জিনে ধরেছে বলে অভিমত প্রকাশ করে এরপর থেকে শুরু হয় রিমা আক্তারের শিকল পরা জীবন। স্বামী সিদ্দিক উল্লাহ গ্রামে একটি ছোট চায়ের দোকানের মাধ্যমে নিজের সংসার পরিচালনা করার কারণে অর্থাভাবে স্ত্রীর চিকিৎসা করাতে পারেননি। বাধ্য হয়ে স্ত্রীর পাগলামি বন্ধ রাখতে হাত-পায়ে শিকল পরিয়ে রাখতেন। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে সংবাদটি প্রকাশিত হলে চাটখিল প্রেমিক, মানবতার অতন্ত্র প্রহরী, বাংলাদেশের চিকিৎসা ক্ষেত্রের উজ্জ্বল নক্ষত্র মরহুম ডা. সিরাজুল ইসলামের সুযোগ্য ছেলে ডা. রুবাইয়াত ইসলাম মন্টি গৃহবধূ রিমার চিকিৎসা সেবায় এগিয়ে এলেন। তিনি তাৎক্ষণিকভাবে তার কর্মকর্তাদের রিমার পূর্ণ চিকিৎসার ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ প্রদান করেন। এই নির্দেশের প্রেক্ষিতে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাদের নিজস্ব তত্ত্বাবধানে গত বুধবার চাটখিল থেকে ঢাকায় নিয়ে আসে। : :





দেশের পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

সুজন সম্পাদক বলেছেন, আগামী নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সংসদ ভেঙে সেনা মোতায়েন করতে হবে। আপনি কি একমত?
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
33197 জন