ভারতের প্রধান বিচারপতির বিরুদ্ধে ৪ বিচারপতির সংবাদ সম্মেলন
Published : Saturday, 13 January, 2018 at 12:00 AM
দিনকাল ডেস্ক : এবার ভারতের সুপ্রিম কোর্টের প্রশাসনিক বিষয় নিয়ে প্রকাশ্যে মুখ খুললেন খোদ ভারতের চার বিচারপতি। ভারতের ইতিহাসে এই ঘটনাটি নজিরবিহীন বলে ওই দেশের গণমাধ্যম মন্তব্যসহ প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। গতকাল শুক্রবার বিশ্বের বিভিন্ন দেশের গণমাধ্যম এবং সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকেও ভারতের প্রধান বিচারপতিকে চ্যালেঞ্জ করে অপর চার বিচারপতির সংবাদ সম্মেলনের সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। : গতকাল শুক্রবার দিল্লিতে বিচারপতি জে চেলামেশ্বরের বাড়িতে সংবাদ সম্মেলন হয়। ওই সংবাদ সম্মেলনে চেলামেশ্বর ছাড়া উপস্থিত ছিলেন বিচারপতি কুরিয়েন জোসেফ, বিচারপতি রঞ্জন গগৈ এবং বিচারপতি মদন লোকুর। এই চারজনই ভারতের সুপ্রিম কোর্টের প্রবীণ বিচারপতি। ওই দেশের জাতীয় দৈনিক আনন্দবাজার পত্রিকায় এ বিষয়টি গুরুত্বসহকারে প্রকাশ করা হয়েছে। : ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভারতীয় বিচারব্যবস্থার ইতিহাসে নজিরবিহীন ঘটনা ঘটালেন সুপ্রিম কোর্টের চার বিচারপতি। দিল্লিতে সংবাদ সম্মেলন ডেকে প্রকাশ্যে আঙ্গুল তুললেন দেশের প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্রের বিরুদ্ধে। ভারতের শীর্ষ আদালতে মামলা বন্টন, বিচারপতিদের নিয়োগ থেকে শুরু করে আরো নানা বিষয়ে গরমিলের অভিযোগ তুললেন তারা। মুখ খুললেন ‘বিচার বিভাগের ভিতরে দুর্নীতি’ নিয়েও। : সম্প্রতি কলকাতা হাইকোর্টের তৎকালীন প্রধান বিচারপতি সিএস কারনানের ঘটনা শোরগোল ফেলে দিয়েছিল গোটা দেশে। বিচারপতিদের দুর্নীতি নিয়ে মুখ খুলে, সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ অমান্য করে, জেল পর্যন্ত খাটতে হয়েছে কারনানকে। এ দিনের ঘটনা ধারে এবং ভারে তাকেও ছাপিয়ে গেল। : বিচার বিভাগে দুর্নীতি এবং নিয়োগ প্রক্রিয়া নিয়ে অনেকদিন ধরেই একটা চাপা অসন্তোষ চলছিল। এবার সুপ্রিম কোর্টের প্রশাসনিক বিষয় নিয়ে প্রশ্ন তুললেন ওই চার বিচারপতি। : ভারতের শীর্ষ আদালতের প্রশাসনিক ক্ষেত্রে একটা গড়বড় চলছে, একথা জানিয়ে প্রধান বিচারপতিকে বোঝানোর চেষ্টা করেছিলেন বলে দাবি করেন বিচারপতিরা। : কিন্তু সেই প্রচেষ্টা ‘ব্যর্থ’ হয়। বিচারপতি চেলামেশ্বর বলেন, ‘আদালতের প্রশাসনিক বিষয়টি জানাতে প্রধান বিচারপতির সাথে  দেখা করেছিলাম। তাকে জানানো হয়েছিল কোনো কিছুই ঠিকঠাকভাবে চালানো যাচ্ছে না। এর একটা বিহিত দরকার। কিন্তু দুর্ভাগ্য এটাই যে, আমাদের সে প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে।’ : গণতন্ত্রের অস্তিত্ব সঙ্কটের আশঙ্কা প্রকাশ করে বিচারপতি জে  চেলামেশ্বরের মন্তব্যÑ এখন দেশ ঠিক করুক প্রধান বিচারপতিকে ইমপিচ করা উচিত কি না। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এ বিষয়ে কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদের সাথে কথা বলেন। : :





প্রথম পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, নির্বাচনের জন্য লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি হয়েই আছে। আপনি কি তাই মনে করেন?
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
34044 জন