কেশবপুরে আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে দোকানঘর নির্মাণ
Published : Monday, 15 January, 2018 at 12:00 AM
কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি : কেশবপুরের গড়ভাঙ্গা বাজারে আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে একটি মহল ভাড়াটে সন্ত্রাসী এনে গত শুক্রবার রাতের আঁধারে একটি দোকানঘর ভাঙচুর করে জবরদখল করে নির্মাণকাজ চালিয়ে যাচ্ছে। এ ঘটনায় ওই ঘর মালিক লক্ষাধিক টাকার ক্ষতির সম্মুুখীন হয়েছেন। এরপরও ওই জমির মালিক সন্ত্রাসীদের ভয়ে থানায় অভিযোগ দিতে সাহস না পেয়ে পালিয়ে জীবনযাপন করছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, ১৯৮০ সালের ২১ জানুয়ারি উপজেলার মাদারডাঙ্গা গ্রামের জহর আলী শেখের ছেলে জিনাতুল্লা গড়ভাঙ্গা বাজারের ২ শতক জমি প্রবোধ কুমার বসুর কাছ থেকে ৫১৪ নম্বর দলিলমূলে ক্রয় করে সেখানে দোকানঘর নির্মাণ করে ভোগদখল করে আসছেন। একই গ্রামের আমীর আলী সরদার ও তার ছেলে রফিকুল ইসলাম বিরোধীয় জমির ভেতর ১ শতক দাবি করে জবরদখলের জন্য গত বছরের ১৭ নভেম্বর বহিরাগত সন্ত্রাসী এনে জিনাতুলাকে হুমকি দিতে থাকে। নালিশি জমি থেকে যাতে জিনাতুলাকে বেদখল করতে না পারে এ জন্য আমীর আলী সরদার ও তার ছেলে রফিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে তিনি বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আমলী আদালতে ১৪৪ ধারায় একটি মামলা করেন। আদালত বিরোধীয় তফশিল জমিতে পক্ষদ্বয়ের মধ্যে শান্তিশৃঙ্খলা বজায় রাখাসহ বিরোধীয় তফশিল জমির প্রকৃত দখলকার বিষয়ে সরেজমিনে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য কেশবপুর থানার ওসিকে নির্দেশ দেন। গত ২২/১১/১৭ তারিখে কেশবপুর থানার দারগা শ্যামল সরকার ঘটনাস্থলে গিয়ে উভয় পক্ষের উপস্থিতিতে বিরোধীয় জমির ওপর আদালতের নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। এদিকে আদালতের এ নিষেধাজ্ঞাকে অমান্য করে আমীর আলী সরদার গত ১২ জানুয়ারি গভীর রাতে ১২-১৪ জন বিহরাগত সন্ত্রাসী এনে জিনাতুলার দোকানঘর ভাঙচুর করে ওই রাতেই পাকা ঘর নির্মাণকাজ শুরু করেন। এ সময় জিনাতুল্লা থানায় অভিযোগ দিতে গেলে তাকে জীবননাশের হুমকি দিয়ে তাড়িয়ে দেয়া হয় বলে অভিযোগ। : :





দেশের পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

বিশিষ্টজনেরা বলেছেন, সুষ্ঠু নির্বাচনের প্রয়োজনে সংবিধান পরিবর্তন করতে হবে। আপনিও কি তাই মনে করেন
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
33888 জন