২৫ দিন বন্ধের পর উৎপাদনে খুলনা শিল্পাঞ্চলের ৬ পাটকল
Published : Sunday, 28 January, 2018 at 12:00 AM
খালিশপুর (খুলনা) প্রতিনিধি : বকেয়া সাপ্তাহিক মজুরি, মজুরি কমিশন বাস্তবায়নসহ ১১ দফা দাবিতে পাটকল শ্রমিকরা টানা ২৫ দিন মিলের উৎপাদন বন্ধ করে আন্দোলনে রাজপথে নেমে আসে। শ্রমিকদের অব্যাহত আন্দোলনে বিজেএমসি রবিবার বকেয়া মজুরি প্রদানের  নিশ্চয়তা দেয়ার পর খুলনার আন্দোলনরত ৬ রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকলে উৎপাদন শুরু করে। আগামী রবিবার থেকে বকেয়া মজুরি-বেতন প্রদানের প্রতিশ্রুতিতে শ্রমিকরা বৃহস্পতিবার সকালে নিজ নিজ কর্মস্থলে যোগ দিয়ে মিলের উৎপাদনের চাকা চালু করেছেন। এর আগে খুলনার ৬ পাটকলে সিবিএ-নন সিবিএ নেতারা গেটসভার মাধ্যমে মিল চালু করার ঘোষণা দিলে শ্রমিকদের মধ্যে অসন্তোষ সৃষ্টি হয়। : শ্রমিকরা মজুরি স্লিপ ছাড়া কর্মস্থলে ফিরে যাবে না বলে উত্তেজনার সৃষ্টি করে। এ সময় শ্রমিক নেতারা শ্রমিকদের নানা প্রতিশ্রুতিতে ১১ দফা আন্দোলন অব্যাহত রাখার ঘোষণা করলে বেলা সাড়ে ১০টায় প্লাটিনাম, সাড়ে ১১টায় ক্রিসেন্ট, পৌনে ১২টায় স্টার জুট মিলের শ্রমিকরা নিজ নিজ কর্মস্থলে ফিরে যান। অন্যদিকে জেজেআই, ইষ্টার্ন ও আলিম জুট মিলের শ্রমিক নেতারা গেট সভার মাধ্যমে সকালে এ তিনটি মিলের উৎপাদন শুরু হয়। মজুরি কমিশন বাস্তবায়ন মহার্ঘ ভাতা, বকেয়া মজুরি বেতন পরিশোধসহ ১১ দফা বাস্তবায়নের গত ১৮ ডিসেম্বর থেকে খুলনা-যশোরাঞ্চলের ৮টি রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকলে শ্রমিক আন্দোলন শুরু হয়। আন্দোলন চলাকালে কয়েকটি মিলে মজুরি প্রদান করতে ব্যর্থ হন মিল কর্তৃপক্ষ। ফলে খুলনা-যশোর অঞ্চলের ৮ রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকলের শ্রমিকরা মিল বন্ধ করে দেয়। : একদিকে ১১ দফা অন্যদিকে সকল বকেয়া মজুরি প্রদানের দাবিতে চলতে থাকে টানা ২৪ দিনের কর্মবিরতি। এই পরিস্থিতিতে খুলনা-৩ আসনের সংসদ সদস্য বেগম মন্নুজান সুফিয়ানের নেতৃত্বে গত বুধবার বিকাল সাড়ে ৪টা থেকে রাত ৭টা পর্যন্ত যুগ্ম শ্রম পরিচালকের দফতরে ত্রিপক্ষীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। পুলিশ প্রশাসন, ৬ মিলের প্রকল্প প্রধান ও সিবিএ-নন সিবিএ নেতারা বৈঠকে তাদের ন্যায্য পাওনা পরিশোধসহ ১১ দফা দাবি মেনে নেয়ার জন্য জোর দাবি জানান। এ সময় মিলের প্রকল্প প্রধানরা রফতানিকৃত পাটজাত পণ্য বিক্রির টাকাসহ স্ব-স্ব মিলের ব্যাংক একাউন্টে রক্ষিত অর্থের হিসাব দেন। এছাড়া আগামী রবিবার প্লাটিনাম ৩, ক্রিসেন্ট ৩, ষ্টার ৩, ইষ্টার্ন ১, আলীম ১ ও জেজেআই জুট মিল ২ সপ্তাহের মজুরি পরিশোধ করতে পারবেন বলে জানান। পরবর্তীতে সেলের টাকা পাওয়া গেলে পর্যায়ক্রমে বাকি বকেয়া পরিশোধ করা হবে বলেও উল্লেখ করেন প্রকল্প প্রধানরা। : :





দেশের পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপি আদালতে হুমকি দিচ্ছে। আপনি কি একথা বিশ্বাস করেন?
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
36044 জন