মিথ্যা মামলায় খালেদা জিয়াকে সাজার প্রতিবাদে সারাদেশে বিক্ষোভ : গুলি
Published : Friday, 9 February, 2018 at 12:00 AM, Update: 08.02.2018 10:33:35 PM
মিথ্যা মামলায় খালেদা জিয়াকে সাজার প্রতিবাদে সারাদেশে বিক্ষোভ : গুলিদিনকাল ডেস্ক : বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলায় সাজা দেয়ার প্রতিবাদে তাৎক্ষণিক বিক্ষোভে ফেটে পড়ে বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা। রাজধানী ঢাকাসহ সাড়া দেশে লাখ লাখ নেতাকর্মী রাজপথে নেমে বিক্ষোভ করে। এ সময় বিভিন্ন স্থানে আওয়ামী লীগ ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বিএনপি নেতাকর্মীদের ওপর হামলা ও গুলি চালায়। সিলেটে আওয়ামী লীগ ও পুলিশের সশস্ত্র হামলায় আহত হয়েছে অর্ধশতাধিক নেতাকর্মী। : গাইবান্ধা : গাইবান্ধা প্রতিনিধি জানান, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলার রায়কে কেন্দ্র করে গাইবান্ধা জেলা শহরে বৃহস্পতিবার বিএনপি, মহিলা দল ও ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা পৃথক দুটি বিােভ মিছিল বের করে। মিছিল দুটিকে ছত্রভঙ্গ করে দিতে পুলিশ লাঠিচার্জ ও দু’ দফায় ১০ রাউন্ড রাবার বুলেট নিপে করে। রায় ঘোষণার পর জেলা জিয়া পরিষদের সদস্য সচিব ও শহর বিএনপির উপদেষ্টা খন্দকার আহাদ আহমেদের নেতৃত্বে ডিবি রোডে একটি বিােভ মিছিল বের হলে মহিলা কলেজের সামনে পুলিশ মিছিলটিকে বাধা দেয় এবং ছত্রভঙ্গ করে দিতে ৩ রাউন্ড রাবার বুলেট ছোঁড়ে। এ সময় খন্দকার আহাদ আহমেদ, গাইবান্ধা পৌরসভার ৭,৮,৯ ওয়ার্ডের সংরতি আসনের মহিলা কাউন্সিলর বিএনপি নেত্রী দিলরুবা বানু ঝর্না, তমা, মুনমুনসহ ৬ জনকে আটক করে। এছাড়া শহরের কাঠপট্টি এলাকা থেকে মিছিল করার সময় জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মাহামুদুন্নবী টিটুল, শহর যুবদলের সভাপতি রাগিব হাসান উৎপলসহ ৩ জন নেতাকর্মীকে আটক করা হয়। : রায় ঘোষণার আগে জেলা ছাত্রদল সভাপতি জাকারিয়া খন্দকার জিমের নেতৃত্বে মহুরীপাড়া থেকে একটি মিছিল স্লোগান দিতে দিতে জেলা বিএনপি কার্যালয়ের দিকে এলে ১নং ট্রাফিক মোড়ে পুলিশ তাদের ধাওয়া করে এবং তাদের ছত্রভঙ্গ করতে ৭ রাউন্ড রাবার বুলেট ছোড়ে। এসময় পুলিশ জাকারিয়া খন্দকার জিম, জেলা ছাত্রদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি রাজিউর রহমান রনি, যুগ্ম সম্পাদক ইমাম হোসেন আনাম, শাহীনসহ ১১ জনকে আটক করে। গাইবান্ধা সরকারি মহিলা কলেজের সামনে পুলিশের ছোঁড়া শর্টগানের রাবার বুলেট দু’পায়ে লেগে জেলা মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক ঝর্না মান্নান আহত হয়। তাকে চিকিৎসার জন্য সদর আধুনিক হাসপাতালে নেয়া হয়। : উল্লেখ্য, বুধবার গাইবান্ধা প্রেসকাবে বিএনপি নেতা খন্দকার আহাদ আহমেদ, শহীদুজ্জামান শহীদসহ কয়েকজন নেতাকর্মী সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় করেন। এ সময় খন্দকার আহাদ আহমেদ সাংবাদিকদের জানান, বৃহস্পতিবার রায় ঘোষণাকে কেন্দ্র করে গাইবান্ধায় স্বেচ্ছায় কারাবরণের একটি কর্মসূচি পালন করা হবে। : জেলা বিএনপির সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মান্নান সরকার গাইবান্ধা প্রেসকাবে এসে আটক বিএনপি, যুবদল, মহিলা দল, ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের অবিলম্বে মুক্তি দাবি করেন। : হবিগঞ্জ : হবিগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার রায় ঘোষণাকে কেন্দ্র করে হবিগঞ্জে সকাল থেকেই বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা খন্ড খন্ড অবস্থান নেন। তারা শহরের বিভিন্ন এলাকায় অসংখ্য ভাগে বিভক্ত হয়ে অবস্থান নেন। রায় ঘোষণার পর বিকেলে শহরের বিভিন্ন স্থানে বিএনপি নেতাকর্মীরা বিােভ মিছিল বের করেন। এ সময় নেতাকর্মীদের সাথে ছাত্রলীগ ও পুলিশের সংঘর্ষ বাধে। এতে জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট এনামুল হক সেলিমসহ ৫ জন আহত হন। এ সময় পুলিশ বেশ কয়েক রাউন্ড টিআর শেল নিপে করে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। রায়কে কেন্দ্র করে শহরে সকাল থেকেই থম থমে অবস্থা বিরাজ করছে। অপরদিকে শহরের শায়েস্তানগর এলাকা থেকে ২ বিএনপি কর্মীকে আটক করে পুলিশ। : জয়পুরহাট : জয়পুরহাট প্রতিনিধি জানান, জিয়া অরফানেজ দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মামলার রায়কে কেন্দ্র করে গতকাল জয়পুরহাটে বিএনপি’র প্রতিবাদ মিছিলে বাধা দিয়েছে পুলিশ। এসময় পুলিশের সাথে নেতা-কর্মীদের ধস্তা- ধস্তি ও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়েছে। বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার রায়কে কেন্দ্র করে জয়পুরহাট জেলা বিএনপির অফিস ও আশপাশে সকাল থেকে হাজার হাজার বিএনপির নেতাকর্মী অবস্থান নেয়। রায় ঘোষণা হওয়ার পর বিএনপি ও  অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা শহরের প্রধান সড়কে মিছিল নিয়ে  বের হওয়ার চেষ্টা করলে পুলিশ তাদেরকে বাধা দেয়। এক পর্যায়ে বিএনপির নেতাকর্মীদের পুলিশ লাঠিচার্জ করে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। পুলিশের বাধার মুখে বিএনপি নেতা-কর্মীরা রুচিতা হোটেলের সামনে প্রতিবাদ সমাবেশ করে। এসময় বক্তব্য রাখেন বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও জেলা বিএনপি’র ১নং সহ-সভাপতি সাবেক এমপি ইঞ্জিনিয়ার গোলাম মোস্তফা। এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় কমিটির আরেক সদস্য ফয়সল আলীম, জেলা বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদক মতিয়ার রহমানসহ অনেকেই। পরে সেখানেও পুলিশ বাধা দেয়। তাৎক্ষণিকভাবে সেখান থেকে মিছিল বের করলে পুলিশ আবারো মিছিলে ধাওয়া করে। বাধার মুখেও জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক নাফিজুর রহমান পলাশ, সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ শামছুল হক ও যুগ্ম সম্পাদক মাসুদ রানা প্রধানের নেতৃত্বে আরেকটি মিছিল রেল স্টেশনের সামনের রাস্তা দিয়ে নতুন হাটের দিকে যায়।  এসময় শহরে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে এবং কিছুক্ষণের জন্য রাস্তার পাশের দোকানপাট বন্ধ হয়ে যায়। : খালেদা জিয়ার রায়কে কেন্দ্র করে সকাল থেকেই শহরের বিএনপি কার্যালয়ের সামনে বিপুল পরিমাণ বিএনপি নেতা-কর্মী জড়ো হতে থাকে। বিএনপি’র নেতা-কর্মীদের উপস্থিতিকে লক্ষ্য করে সকাল থেকে পর্যাপ্ত পরিমাণ পুলিশ, বিজিবি, র‌্যাবসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী মোতায়েন করা হয়। : বিএনপি’র কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও জেলা বিএনপি’র সহ-সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার গোলাম মোস্তফা অভিযোগ করে বলেন, সকাল থেকেই বিএনপি ও এর অঙ্গ সংগঠনের নেতা-কর্মীরা শান্তিপূর্ণভাবে দলীয় কার্যালয়ের সামনে অবস্থান করে। রায় ঘোষণার পর হঠাৎই পুলিশ বিএনপি’র নেতা-কর্মীদের উপর চড়াও হয়। নেতা কর্মীরা প্রতিবাদ করলে পুলিশ বাধা দেয় এবং লাঠিচার্জ করে। তিনি বলেন, বিএনপি শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে বিশ^াস করে তার প্রমাণ বিএনপি দিয়েছে কিন্তু পুলিশ  তাতেও বাধা দিয়েছে। : এদিকে পুলিশ সুপার রশিদুল হাসান জানান, খালেদা জিয়ার রায়কে কেন্দ্র করে বুধবার রাত থেকেই শহরে বিপুল পরিমাণ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছিল এবং সব ধরনের অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে সার্বক্ষণিক নজরদারী ছিল ফলে কোথাও কোন বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হয়নি। : মিছিলে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় বিএনপির সদস্য ফয়সাল আলীম, জেলা বিএনপির  ১নং সহসভাপতি ও সাবেক এমপি ইঞ্জিনিয়ার গোলাম মোস্তফা, সহ-সভাপতি ফজলুর রহমান, মমতাজ মন্ডল, অধ্যক্ষ শামছুল হক, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক নাফিজুর রহমান পলাশ, সাংগঠনিক সম্পাদক মতিয়র রহমান, শহর বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক গোলজার হোসেন, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি মাসুদ রানা প্রধান, জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সেলিম রেজা ডিউক, ছাত্রনেতা আলমগীর হোসেন, মনজুরে মওলা পলাশ, আদনান, মামুন  সহ অন্যরা। ১৯ জন বিএনপি নেতা কর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ, রাত থেকেই জয়পুরহাটে ৩ প্লাটুন বিজিবি, ৩শ ১৩জন পুলিশ ও ২৫ জন বিজিবি সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। : শহরে অতিরিক্ত পুলিশ ও বিজিবিসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কঠোর অবস্থানে রয়েছে। : ফেনী : ফেনী  জেলা প্রতিনিধি জানান, : বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মামলার রায়কে কেন্দ্র করে ফেনীর সোনাগাজী, দাগনভুঁঞা, ছাগলনাইয়া, ফুলগাজী, পশুরামসহ বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষোভ মিছিল বাহির করে। এদিকে ফেনী জেলা ছাত্রদলের সভাপতি নাঈম উল্যাহ বরাতের নেতৃত্বে  মিছিল বের করলে  পুলিশ-ছাত্রদল ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। : বৃহস্পতিবার বেলা ১টায় এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ছাত্রদল নেতাকর্মীদের ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশ কয়েক রাউন্ট ফাঁকা গুলি ছোঁড়ে। ফেনী সদর উপজেলা ছাত্রদলের আহবায়ক মঞ্জুর  হোসেন মঞ্জু জানান ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা শান্তিপূর্ণ মিছিলের চেষ্টা করলে পুলিশ তাদের উপর গুলি ছোড়ে। তাৎক্ষণিকভাবে ফেনী ভিতরের বাজারসহ  বিভিন্ন দোকান পাঠ বন্ধ হয় যায়। দাউদপুর, হাইরোড, মহিপাল, পাঁচগাছিয়া রোডসহ বিভিন্ন জায়গায় বিকট শব্দে বোমার আওয়াজ শুনা যায়। এদিকে জেলার বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ ক্যাডারেরা সশস্ত্রভাবে বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে অবস্থান নেয় এবং তাদের পার্শ্বে পুলিশ, র‌্যাব, বিজিবি ও সাঁজোয়া যান দেখা যায়। : জামালপুর : জামালপুর প্রতিনিধি জানান, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার রায়কে কেন্দ্র করে জামালপুরে বিএনপির বিােভ মিছিলে পুলিশি বাধা, ধস্তাধস্তি, ভাঙচুর ও মিছিল ছত্রভঙ্গের ঘটনা ঘটেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে এ রায়কে কেন্দ্র করে জেলা বিএনপি শহরে বিােভ মিছিল বের করে। বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শাহ ওয়ারেছ আলী মামুনের নেতৃত্বে পুরাতন পানি উন্নয়ন বোর্ড থেকে বিােভ মিছিল বের করে শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে স্টেশন রোডস্থ বিএনপি কার্যালয়ের সামনে গেলে সেখানে মিছিলটি পুলিশের বাধার সম্মুখীন হয়। এ সময় মিছিলে পুলিশ লাঠিচার্জ করে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। মিছিলে বিএনপি নেতা আনিছুর রহমান বিপ্লব, খন্দকার আহসানুজ্জামান রুমেল, রমজান আলী রনজু, আব্দুল হালিম, ছাত্রদল নেতা ইকরামুল হোসেন মানিক ও সোহেল রানা খানসহ বিএনপির অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। এদিকে খালেদা জিয়ার রায়কে কেন্দ্র করে জামালপুর পৌরসভার রশিদপুর এলাকায় বিএনপি নেতাকর্মীদের সাথে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় প্রায় ৩/৪টি অটোরিকশাসহ মোটরসাইকেল ভাঙচুরের ঘটনাও ঘটেছে বলে প্রত্যদর্শী সূত্রে জানা গেছে। : চৌদ্দগ্রাম : চৌদ্দগ্রাম (কুমিল্লা) প্রতিনিধি জানান, বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে রায়ের প্রতিবাদে গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে চৌদ্দগ্রামে বিক্ষোভ মিছিল করেছে বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা। ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের বিসিক এলাকায় অনুষ্ঠিত মিছিলে নেতৃত্ব দেন পৌর বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক জসিম উদ্দিন, উপজেলা বিএনপির সদস্য কাজী আলমগীর নেওয়াজ,  পৌর ছাত্রদলের সভাপতি কাজী জোবায়ের, পৌর যুবদলের সহ-সভাপতি কামাল হোসেন, চৌদ্দগ্রাম সরকারি কলেজ সভাপতি এম দিদার হোসেন, উপজেলা ছাত্রদল নেতা খোরশেদ, ঘোলপাশা ইউনিয়ন জাহিদ হোসেন সুমন, চিওড়া ইউনিয়ন সভাপতি সজল, পৌর ছাত্রদল নেতা মোহন প্রমুখ। : ধর্মপাশা : ধর্মপাশা (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি জানান, বিএনপি চেয়ারপারসনের বিরুদ্ধে রায় ঘোষণাকে কেন্দ্র করে সুনামগঞ্জের ধর্মপাশায় বিএনপি নেতাকর্মীরা শহরে খন্ড-খন্ড বিক্ষোভ মিছিল বের করলে পুলিশের সাথে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এক পর্যায়ে পুলিশ শর্ট গানের ৩ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুঁড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এসময়  শাহালম (৪০) নামে এক যুবদল নেতাকে আটক করা হয়। : ধর্মপাশা থানার ওসি সুরঞ্জিত তালুকদার জানান, বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দেয়া রায়কে কেন্দ্র করে গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে  কেন্দ্রীয় বিএনপির সাবেক নেতা ডাক্তার রফিক চৌধুরীর পক্ষের বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা উপজেলা সদরের কলেজ রোড, দশধরী ও হলিদাকান্দা এলাকায় খন্ড-খন্ড বিক্ষোভ মিছিল বের করে তারা রাস্তায় পিকেটিং করতে তাকে। বিক্ষোভকারীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে  ইট-পাটকেল ছুঁড়তে থাকে। এ নিয়ে পুলিশের সাথে নেতাকর্মীদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার এক পর্যায়ে পুলিশ শর্টগানের ৩ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুঁড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। তিনি আরো জানান, এসময় উপজেলা যুবদল নেতা শাহালমকে আটক করা হয়। : বড়াইগ্রাম : বড়াইগ্রাম (নাটোর) প্রতিনিধি জানান, নাটোরের বড়াইগ্রামে বিএনপি চেয়ারপারসন  বেগম খালেদা জিয়ার রায়কে কেন্দ্র করে নাশকতা সৃষ্টির আশঙ্কায় বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ও পৌর বিএনপির সভাপতিসহ ছয় জনকে আটক করেছে পুলিশ। এর আগে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় বিএনপি-যুবদল-ছাত্রদল নেতাকর্মীদের বাড়িতে অভিযান চালিয়েছে তারা। : আটককৃতরা হলেন-উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা মহিলা দলের সভাপতি হেলেনা পারভীন, বনপাড়া পৌর বিএনপির সভাপতি অধ্যাপক এম লুৎফর রহমান, সহ-সভাপতি মহিষভাঙ্গা গ্রামের মৃত শামসুল ফকিরের ছেলে হোসেন আলী, ছাত্রদল কর্মী চকনটাবাড়িয়া গ্রামের ইউসুফ আলীর ছেলে মেহেদী হাসান তুহিন ও মহিষভাঙ্গা গ্রামের মোবারক আলীর ছেলে সোহাগ। এর আগে বুধবার রাতে লক্ষীকোল দাঁইড়পাড়ার নিজ বাড়ি থেকে বড়াইগ্রাম পৌর ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক রবিউল করিম রবিকে আটক করা হয়েছে। : বনপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পুলিশ ইন্সপেক্টর রফিকুল ইসলাম জানান, বৃহস্পতিবার দুপুরে আটকরা বনপাড়া পৌর বিএনপির কার্যালয়ে অবস্থান করছিলেন। খালেদা জিয়ার রায়কে কেন্দ্র করে সংঘবদ্ধভাবে কোন নাশকতা সৃষ্টির আশঙ্কা করছিলেন সন্দেহে তাদেরকে আটক করা হয়েছে। এ ব্যাপারে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলে মামলা দায়ের করা হবে। : এদিকে, রায়কে ঘিরে সারাদিনই আওয়ামী লীগ-যুবলীগ-ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের রাস্তায় শোডাউন দিতে দেখা গেলেও বিএনপি-যুবদল-ছাত্রদলের কোন উপস্থিতি ছিল না। যে কোন অরাজক পরিস্থিতি ঠেকাতে সকাল থেকেই বনপাড়া ও বড়াইগ্রাম পৌরসভাসহ উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে অবস্থান নিয়ে তল্লাশি করেছে পুলিশ। যাতায়াতকারী লোকজনের পাশাপাশি বিভিন্ন যানবাহনেও তল্লাশি চালানো হয়েছে। রায়কে ঘিরে আতঙ্কে সড়ক-মহাসড়কে যানবাহন সংখ্যা ছিলো খুবই সীমিত। কিছু কিছু ট্রাক চলাচল করলেও বাসের দেখা মেলেনি। এতে সাধারণ যাত্রীসহ এসএসসি পরীক্ষার্থীরা চরম বিপাকে পড়েছে। বাস না পেয়ে পরীক্ষার্থীদের ট্রাকে চেপে পরীক্ষার হল থেকে বাড়ি ফিরতে দেখা গেছে। : বকশীগঞ্জ : বকশীগঞ্জ (জামালপুর) প্রতিনিধি জানান, জামালপুরের বকশীগঞ্জে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার দুর্নীতি মামলার রায় ঘোষণার পর বিএনপির পক্ষ থেকে প্রকাশ্যে প্রতিক্রিয়া দেখা যায়নি। রায় ঘোষণার আগে ও পরে মাঠে নামতে না পেরে সংবাদ ডেকে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছে উপজেলা বিএনপির নেতৃবৃন্দ। : বকশীগঞ্জ পুরাতন বাসস্ট্যান্ড মোড়ে আলী মার্কেটে বিকাল ৪ টায় সংবাদ সম্মেলনে আদালতের দেয়া রায়কে প্রত্যাখ্যান করে সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে সাজা দেয়ার ঘটনার তীব্র  নিন্দা জানান বিএনপির নেতৃবৃন্দ। : সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন বকশীগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব আবদুল কাইয়ুম। : এসময় উপজেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক রকিবুল হাসান বাবুল, যুগ্ম আহবায়ক মিজানুর রহমান লেবু, যুগ্ম আহবায়ক শাহজাহান সরকার, পৌর বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক শহীদুল্লাহ, বিএনপি নেতা জাহিদুল ইসলাম জাহিদ, উপজেলা শ্রমিক দলের সভাপতি কায়সার আমিন, পৌর যুবদলের সাধারণ সম্পাদক ছানোয়ার হোসেন জজ, গোলাম রব্বানী বানী, নুর মোহাম্মদ মন্ডল, আবদুর রউফ, সহিজল হক, মো. আনিছ  উপস্থিত ছিলেন। : এছাড়াও অলিখিত বক্তব্যে বলা হয়, পুলিশ উপজেলা বিএনপির কার্যালয়ে নেতা কর্মীদের ঢুকতে না দেয়া ও মিছিল করার সুযোগ না দেয়ায় এই সংবাদ সম্মেলন করা হয়। : কিশোরগঞ্জ : কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি জানায়, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে সাজা প্রদানের প্রতিবাদে কিশোরগঞ্জে বিএনপির তাৎক্ষণিক বিক্ষোভ মিছিলকে কেন্দ্র করে জেলা শহরের বিভিন্ন এলাকায় পুলিশের সাথে সংঘর্ষ ও সড়ক অবরোধের ঘটনা ঘটেছে।   : রায় ঘোষণার সাথে সাথে জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক নাজমুল আলম, যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক সাইফুল ইসলাম সুমন এবং খসরুজ্জমান শরীফের নেতৃত্বে আখড়া বাজার থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। মিছিলে পুলিশ বাধা দিলে উভয় পক্ষে সংঘর্ষ শুরু হয়। আধ ঘন্টাব্যাপী সংঘর্ষ চলাকালে বিএনপির কর্মীরা পুলিশের উপর ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে পুলিশ কয়েক রাউন্ড রাবার বুলেট ও টিয়ার শেল নিক্ষেপ করে। : একই সময়ে জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ইসরাইল মিয়া ও আমিনুল ইসলাম আশফাকের নেতৃত্বে আরেকটি মিছিল জেলা শহরের পুরান থানা এলাকা থেকে বের হয়। এ মিছিলেও পুলিশ বাধা দিলে সংঘর্ষ শুরু হয়। এসময় উত্তেজিত কর্মীরা একটি পিক আপ ও অটোরিক্সা ভাংচুর করে। : এছাড়া জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ সাধারণ সম্পাদক খালেদ সাইফুল্লাহ সোহেলের নেতৃত্বে কর্মীরা সাদুল্লারচর এলাকায় বৈদ্যুতিক খুটি ফেলে কিশোরগঞ্জ-ময়মনসিংহ সড়কে যান চলাচলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে। খবর পেয়ে পুলিশ এসে কর্মীদের ধাওয়া দিয়ে রাস্তা থেকে সড়িয়ে দেয়।   : রায়ের সংবাদ প্রচার হওয়া তাৎক্ষণিক বিএনপি সমর্থক আইনজীবীরা বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিলটি আদালতপাড়া থেকে শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক হয়ে পুণরায় একই স্থানে এসে শেষ হয়। পরে অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট জালাল মোঃ গাউস, ্সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট শরীফুল ইসলাম, জেলা বিএনপির মানবাধিকার বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মীর মোঃ ইকবাল হোসেন বিপ্লব, জেলা বিএনপির সহ দপ্তর সম্পাদক অ্যাডভোকেট ফয়জুল করিম মুবিন ও জেলা বিএনপির সহ আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট সালেহিন সিদ্দীকি। : রংপুর : স্টাফ রিপোর্টার, রংপুর অফিস জানায়, বিএনপি চেয়ারপারসন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার রায়কে ঘিরে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে রংপুর মহানগরীসহ পুরো জেলায়। রায়ের পর নগরীর জাহাজ কোম্পানী মোড়ে আওয়ামীলীগের সাথে ছাত্রদলের এবং সিটি বাজারের সামনে যুবদলের সাথে পুলিশের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়েছে। এতে ১০ জন আহত হয়েছে। বিএনপি নেতাকর্মীরা মাঠে দাড়াতে না পারলেও আওয়ামীলীগ লাঠি নিয়ে মাঠে মিছিল করেছে। : রায় ঘোষণার পর বেলা আড়াইটায় জাহাজ কোম্পানী মোড়ে ছাত্রদল নেতা লিখনের নেতৃত্বে একটি মিছিল নগরীর লায়ন্সস্কুলের কাছ থেকে বের হয়ে জাহাজ কোম্পানী মোড়ে যেতে থাকলে সেখানে রায়কে স্বাগত জানিয়ে মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক তুষারকন্তি মন্ডলের নেতৃত্বে বের হওয়া মিছিলের মুখে পড়ে। এসময় সেখানে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়। খবর পেয়ে পুলিশ এসে সেখানে সাউন্ড গ্রেনেড নিক্ষেপ করে। এক পর্যায়ে আওয়ামীলীগ ও সহযোগি সংগঠনের নেতাকর্মীরা, রড, লোহা, বেকিসহ বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্রদৃশ্যমান করে জাহাজ কোম্পানী মোড়ে অবস্থান নেয়। এসময় জাহাজ কোম্পানী শপিং কমপ্লেক্স্রের উপর তলায় রংপুর জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি এমদাদুল হক ভরসার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রঙ্গনে ইট পাটকেল নিক্ষেপ করে যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। অন্যদিকে বিকেল সাড়ে ৪ টায় নগরীর সিটি বাজারের সামনে যুবদলের নেতাকর্মীরা মিছিল বের করলে তাতে লাঠি চার্জ করে ছত্রভঙ্গ করে দেয় পুিলশ। দুটি ঘটনাতে ১০ জন আহত হয়েছে। এছাড়াও বিকেল সাড়ে ৫টা পর্যন্ত নগরী কিংবা জেলার কোথাও কোর অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায় নি। : এর আগে ভোর থেকেই নগরীতে বিপুল পরিমাণ পুলিশের পাশাপাশি র‌্যাব এবং বিজিবির সশস্ত্র মহড়া শুরু করে। এতে নগরীতে আতংক তৈরি হয়। জরুরি কোন কাজ ছাড়া লোকজন বের হয় নি নগরীতে। এরই মধ্যে গ্রান্ড হোটেল মোড়ে সকাল সাড়ে ১০ টা পর্যন্ত নেতাকর্মীরা আসতে পারলেও ১১ টার সময় পুলিশ অফিসে ঢুকতে বাঁধা দেয়। এক পর্যায়ে সেখানে আরমাড পারসোনাল ক্যারিয়াড-এপিসি গাড়ি, প্রিজন ভ্যান আনে পুলিশ। এর আগে বিপুল পরিমাণ পুলিশ মোতায়েন করা হয় সেখানে। পুলিশের পক্ষ থেকে বলে দেয়া হয় কোন ধরণের একটিভিটিস না করার জন্য। পুলিশের রণ প্রস্তুতি দেখে অফিসে থাকা নেতাকর্মীরা নিজেদের মতো করে গা ঢাকা দেয়। গা ঢাকা দিতে গিয়েও অফিসের সামন থেকে পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয় রংপুর শ্রমিক দলের সহ-সাধারণ সম্পাদক এবং মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের নির্বাচিত যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান বাবু। এছাড়াও সকালে নগরীর হুনমানতলা থেকে মহানগর ছাত্রদলের যুগ্ম সম্পাদক ইমরান সুমমকে গ্রেফতার করে। :  বেলা ২ টায় রায় ঘোষণার পর পার্টি অফিসে অবস্থান করেন মহানগর বিএনপির সভাপতি মোজাফফর হোসেন,জেলা বিএনপির সভাপতি সাইফুল ইসলাম, সেক্রেটারি শহিদুল ইসলাম মিজু, সহ সভাপতি সুলতানুল আলম বুলবুল, জেলা বিএনপির সভাপতি সাইফুল ইসলাম, সেক্রেটারি রইচ আহমেদ, মহানগর যুবদল সভাপতি নাজমুল আলম নাজু, সেক্রেটারি শামসুল হক ঝন্টু, মহানগর যুবদলের সভাপতি মাহফুজ উন নবী ডন, সেক্রেটারি লিটন পারভেজ, মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি নুর হাসান সুমন সেক্রেটারি জাকারিয়া ইসলাম জিমসহ কয়েকজন নেতাকর্মী। এসময় মহানগর বিএনপির সভাপতি সাংবাদিকদের জানান, রাজনৈতিকভাবে এই মামলা ও রায় দেয়া হয়েছে। এই মামলা আমরা প্রত্যাখ্যান করছি। কেন্দ্র থেকে যে নির্দেশ আসবে সে অনুযায়ী আমরা শান্তিপূর্ন কর্মসূচি পালন করবো। :  এদিকে রংপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাইফুর রহমান সাইফ জানান, জন নিরাপত্বার জন্যই আইনশৃংখলাবাহিনীর তৎপরতা চলছে। কাউকে হয়রানী করার জন্য নয়। নাশকতা কিংবা নাশকতার পাঁয়তারার সুনির্দিষ্ট অভিযোগের প্রেক্ষিতেই গ্রেফতার করা হচ্ছে। : টাঙ্গাইল : স্টাফ রিপোর্টার, টাঙ্গাইল  জানায়, বিএনপি চেয়ারপারসন,সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় সাজা প্রদানের প্রতিবাদে টাঙ্গাইলে ঝটিকা বিােভ মিছিল করেছে বিএনপি এর অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠন। জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট ফরহাদ ইকবালের নেতৃত্বে শান্তিকুঞ্জ মোড় থেকে বেবীস্ট্যান্ড, জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক শফিকুর রহমান খানের নেতৃত্বে প্রেসকাব  এলাকা, জেলা শ্রমিকদলের সাধারণ সম্পাদক একেএম মনিরুল হক ও জেলা ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সৈয়দ মনিরুজ্জামান জুয়েলের নেতৃত্বে পুরাতন বাসস্ট্যান্ড থেকে কলেজ গেইট, জেলা ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম ভিপির নেতৃত্বে নিরালা মোড়ে ঝটিকা বিােভ মিছিল হয়েছে। বিােভ মিছিলে জেলা বিএনপির সহ সভাপতি আতাউর রহমান জিন্নাহ, যুগ্ম সম্পাদক আবুল কাশেম, যুবদল নেতা মাহমুদ হাসান টিটন, দিপু হায়দার খান, আব্দুল্লাহ শাজাহান, জেলা ছাত্রদল সহ সভাপতি সালেহ মোহাম্মদ সাফি ইথেন, জাহিদ হোসেন মালা, আবেদ হোসেন ইমন, কবির হোসেন, যুগ্ম সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, লিঠু খান, গোলাম মোস্তফা, অর্থ সম্পাদক সুমন বাপ্পী, থানা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক সুমন, শহর ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক রাইহান ইমন, শহর শ্রমিকদলের সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেনসহ নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। : কুড়িগ্রাম : স্টাফ রির্পোটার, কুড়িগ্রাম জানায়, কুড়িগ্রাম জেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে বিএনপি-জামায়াতের ১৯ নেতাকর্মীকে  করেছে পুলিশ। : বুধবার সন্ধা থেকে বৃহস্পতিবার  সকাল পর্যন্ত জেলার ৯ উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। জেলা পুলিশ সুপারের কন্ট্রোল রুম সুত্রে জানা গেছে, আটককৃ দের  মধ্যে ১৫ জন বিএনপি’র নেতাকর্মী ও ৪ জন জামায়াতের নেতাকর্মী রয়েছে। : কুড়িগ্রামের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মেনহাজুল আলম গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, যে কোন ধরনের বিশৃংখলা ও নাশকতা এড়ানোর জন্য এবং জনজীবনে শান্তি বজায় রাখাসহ আইন শৃংখলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত থাকবে। : এদিকে রায়কে ঘিরে বিপুল সংখ্যক আইন শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী শহরের বিভিন্ন পয়েন্টে সকাল থেকে অবস্থান নিয়েছে। সকাল থেকে শহরের রাস্তায় টহল অব্যাহত রেখে পুলিশ, র‌্যাবসহ বিজিবি। শহর জুড়ে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। রাস্তায় কমে গেছে যান বাহনের সংখ্যাও। : অপরদিকে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মামলার রায় এর প্রতিক্রিয়ায় বিক্ষোভ মিছিল করেছে কুড়িগ্রাম জেলা ছাত্রদল ও যুবদল। আইনপ্রয়োগকারী সংস্থার নজরদারি এড়িয়ে : বৃহস্পতিবার বিকালে কুড়িগ্রাম মজিদা কলেজের সামন থেকে মিছিলটি শুরু হয়ে থানাপাড়ায় এসে শেষ হয়। এ সময় মিছিলে নেতৃত্ব দেন জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক নাদিম আহমেদ ,জেলা ছাত্রদলের সভাপতি আমিমুল ইহসান,সিনিয়র সহ-সভাপতি আল আমিন,যুগ্ম সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম রকি,সরোয়ার হোসেন সাওন,সোহেল রানা সহ জেলা ছাত্রদল ও যুবদলের নেতা কর্মীরা। : নীলফামারী : নীলফামারী প্রতিনিধি জানান, বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মামলার রায় ঘোষাণার পর পরই নীলফামারী শহরের ঝটিকা মিছিল বের করে বিএনপির নেতাকর্মীরা। সকাল থেকে তালাবদ্ধ আর পুলিশ পাহাড়ায় রয়েছে বিএনপি কার্যালয়। তিনটার দিকে শহরের মরাল সংঘ মোড় থেকে সদর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক রাহেদুল ইসলাম দোলনের নেতৃত্বে বিএনপির নেতাকর্মীরা একটি মিছিল বের করে কালিবাড়ি মোড়ের দিকে যায়। এসময় পুলিশের ধাওয়া খেয়ে মিছিলটি ছত্রভঙ্গ হয়ে নেতাকর্মীরা আশপাশের বাড়িতে আশ্রয় নেয়। এসময় বিভিন্ন বাড়িতে তল্লাশি করে সদর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক রাহেদুল ইসলাম দোলন, সিনিয়র সহ-সভাপতি আশরাফ আলী ও জেলা যুবদলের যুগ্ম-আহবায়ক আসাদুজ্জামান রিপনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এদিকে একই সময় শহরের বাটার মোড় থেকে জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক মারুফ পারভেজ প্রিন্সের নেতৃত্বে ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা একটি মিছিল করে চৌরঙ্গী মোড়ের দিকে যাওয়ার সময় পুলিশ ধাওয়া করলে নেতাকর্মীরা পালিয়ে যায়। এসময় জেলা ছাত্রদলের সাধারণ মারুফ পারভেজ প্রিন্সকে আটক করে পুলিশ। : এদিকে পুলিশ বিজিবি ও আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীদের দখলে রয়েছে পুরো নীলফামারী শহর। শহরের প্রধান প্রধান সড়কগুলোতে অতিরিক্ত পুলিশের পাশাপাশি দুই প্লাটুন বিজিবি’র টহল অব্যাহত রয়েছে। : এদিকে সকাল থেকেই জেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে অবস্থান নিয়েছে আওয়ামীলীগসহ এর সকল অঙ্গসহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা। পড়ে আওয়ামীলীগ, ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতাকর্মীরা শহরের মিছিল করেছে। শহরের বেশীর ভাগ দোকান-পাট বন্ধ রয়েছে। ব্যাংকগুলোতে লেন-দেন কম হয়েছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত (সাড়ে ৫টা পর্যন্ত) জেলার কোথাও কোন অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। : তারাকান্দা : তারাকান্দা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি জানান, সাবেক প্রধান মন্ত্রী ও বিএনপি’র চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সাজা প্রত্যাহারের দাবিতে বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্র“য়ারি) তারাকান্দায় পুলিশি বাধা উপো করে তাৎণিক ময়মনসিংহ উঃ জেলা বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক ও তারাকান্দা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোতাহার হোসেন তালুকদারের নেতৃত্বে বিােভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, তারাকান্দা উপজেলার বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক আব্দুস ছালাম তালুকদার, আব্দুল মান্নান, সাজেদুল করিম খোকন, ইয়াসিন আলী, আব্দুর রাজ্জাক, যুবদলের আহবায়ক আসাদুল হক মন্ডল, যুগ্ম আহবায়ক এস.এম আমিনুল ইসলাম, উলামা দলের যুগ্ম আহবায়ক মাওঃ মোবারক হোসেন, ছাত্রদল নেতা আমীর হাসান স্বপন, আলমগীর হোসেন রকি, জহিরুল ইসলাম আল-আমিন সহ বিএনপি ও তার অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ প্রমুখ। : শায়েস্তাগঞ্জ : শায়েস্তাগঞ্জ (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি জানায়,  জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়ার ৫ বছর ও দলটির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ অপর পাঁচ আসামির ১০ বছর কারাদন্ডের রায় ঘোষণায় হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলায় আওয়ামী লীগ-বিএনপির নেতাকর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এসময় ইট পাটকেলের আঘাতে কমপক্ষে ১০ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। : বৃহস্পতিবার বিকাল ৩ টার দিকে পৌর শহরে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের মধ্যে পৌর যুবদলের সাধারণ সম্পাদক কামরুল হাসান রিপন, যুগ্ম সম্পাদক ফাহিন হোসেন, শ্রমিকদলের আহ্বায়ক আতিকুর রহমান টিপুসহ  অনেকই। : স্থানীয় সূত্র জানায়, বিএনপির নেতাকর্মীরা বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে দাউদনগর বাজার থেকে স্টেশন রোডে যাবার পথে পুলিশ ধাওয়া করে। এসময় আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা ধাওয়া দিলে শুরু ইটপাটকের ছুড়াছুড়ি। একপর্যায়ে পুলিশ রাবার বুলেট ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। শায়েস্তাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাজিম উদ্দিন বলেন, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে রাবার বুলেট ছুড়া হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক। তবে পরিস্থিতি মোকাবেলায় শহরে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। : রূপগঞ্জ : রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি জানায়, মিথ্যা ও সাজানো মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে ৫ বছর ও সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে ১০ বছর জেল দেয়ার প্রতিবাদে রূপগঞ্জ উপজেলা বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা বিােভ মিছিল করেছে। বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান ভুঁইয়া দিপু সমর্থিত বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা ভুলতা, কুড়িল বিশ্বরোড সড়ক ও এশিয়ান হাইওয়ে সড়কে বিােভ মিছিল বের করেছে। এ সময় তারা খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের বিরুদ্ধে যে রায় দেয়া হয়েছে তা অবিলম্বে বাতিলের আহবান জানান। যুবদল ও ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা ভুলতা এলাকায় মিছিল বের করলে পুলিশ ধাওয়া দিয়ে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। : অপরদিকে বিএনপির নির্বাহী সদস্য ও জেলা বিএনপির সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান ভুঁইয়া দিপুর নেতৃত্বে রূপগঞ্জে শত শত নেতাকর্মী খালেদা জিয়াকে আদালত পর্যন্ত নিয়ে যান। পরে রায় ঘোষণার পর সেখানেই নেতাকর্মীরা বিােভ মিছিল করলে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। এ সময় মোস্তাফিজুর রহমান ভুঁইয়া দিপু বলেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন থেকে বিএনপিকে দূরে রাখতেই স্বৈরাচারী সরকার বাকশাল কায়েম করতে বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ও তারুন্যের অহংকার তারেক রহমানকে সাজা প্রদান করেছে। অবিলম্বে এ রায় বাতিলের দাবি জানান তিনি। : সিলেট : সিলেট অফিস জানায়, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে সম্পূর্ণ রাজনৈতিক প্রতিহিংসাপরায়ন হয়ে ষড়যন্ত্রমূলক সাজা প্রদানের প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার দুপুরে তাৎক্ষণিক বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে সিলেট জেলা ও মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দল ও ছাত্রদল। আম্বরখানা এলাকায় অনুষ্ঠিত মিছিল পরবর্তী সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন সিলেট মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি ও মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক কাউন্সিলর ফরহাদ চৌধুরী শামীম। সমাবেশে বক্তারা বলেন, পৃথিবীর কোনো স্বৈরাচারের পরিণতি ভাল হয়নি। সুতরাং স্বৈরাচারিণী শেখ হাসিনার জন্যও করুণ পরিণতি অপেক্ষা করছে। বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে অবিচার করে জেলে পাঠানোর মাধ্যমে শেখ হাসিনার পতন ত্বরান্বিত হবে। গণবিস্ফোরণে স্বৈরাচারের মসনদ পুড়ে ছাই হবে। বক্তারা বলেন ইনশাল্লাহ কিছুদিনের মধ্যে জনতার আদালতে শেখ হাসিনার বিচার হবে। জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহবায়ক জাকির হোসেন ও জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম সম্পাদক আব্দুল কাইয়ুমের যৌথ পরিচালনায় অনুষ্ঠিত মিছিল ও সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সংসদের সাবেক সহ-সভাপ





প্রথম পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

ভারতীয় মিডিয়া বলেছে, বাংলাদেশে অস্থিরতা ছড়িয়ে পড়তে পারে। আপনিও কি তেমন আশঙ্কা করেন?
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
4665 জন