পিরোজপুরে চুরির অভিযোগে যুবককে  পিটিয়ে হত্যা
Published : Saturday, 10 February, 2018 at 12:00 AM
দিনকাল রিপোর্ট : পিরোজপুরের নেছারাবাদ উপজেলায় মোঃ মোস্তফা চৌধুরী (৩৫) নামে এক যুবককে চোর সন্দেহে পিটিয়ে হত্যা করার অভিযোগ উঠেছে। গত বৃহস্পতিবার উপজেলার আরামকাঠি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত মোস্তফা পেশায় একজন সাধারণ রিকশাচালক ও ওই গ্রামের মোঃ সোহরাব চৌধুরীর ছেলে। ওই গ্রামের ৮নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য নকিতুল্লাহ, শাহজাহান মোল্লা, আখতার, ইব্রাহীম চৌকদারসহ স্থানীয় আরো দুইজনের বিরুদ্ধে মোস্তাফার মা মঞ্জুয়ারা বেগম এ হত্যাকান্ডের অভিযোগ তুলেছেন।  এ ঘটনায় নিহতের পরিবার বাদী হয়ে থানায় মামলার দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছে। : অভিযোগে নিহত মোস্তফার মা মঞ্জুয়ারা জানান, ওই দিন মোস্তফা রাতে বাড়ি  ফেরার সময় পথে প্রকৃতির ডাক সারতে বসে। এসময় শাহজাহান মোল্লা চোর চোর বলে ডাক চিৎকার দিয়ে মোস্তফাকে মারতে থাকে। শাহজাহানের ডাক শুনে অন্যারা এগিয়ে এসে তারাও এলোপাতাড়িভাবে মোস্তফাকে বেদম প্রহার করে। এক পর্যায়ে মোস্তাফার পরিবার খবর পেয়ে মারধর থামাতে না পেরে মেম্বারের কাছে কাকুতি-মিনতি করলে মেম্বার নকিতুল্লাহ সাদা কাগজে তাদের সহি-স্বাক্ষর রেখে মোস্তফাকে ছেড়ে দেয়। পরে আহত মোস্তফাকে বাড়ি নিয়ে গেলে তার অবস্থা আরো অবনতি হয়। কিন্তু পরিবারের সদস্যরা ইউপি সদস্যের ভয়ে ওই রাতে তাকে হাসপাতালে বা থানায় আনতে পারেনি। পরে সকালে হাসপাতালে নিয়ে আসা হলে হাসপাতালের কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন। : ইউপি সদস্য নকিতুল্লাহ বলেন, চোর সন্দেহে মোস্তফাকে ধরে স্থানীয়রা আমাকে ফোনে জানালে আমি স্থানীয় চৌকদারকে জানাতে বলি। ইউপি চেয়ারম্যান আশিষ বড়াল জানান, শুনেছি ওই দিন রাতে মোস্তফাকে ওয়ার্ডের শাহজাহান মোল্লার বাড়ি থেকে চোর সন্দেহে ধরে স্থানীয় যুবকরা একটু মারধর করে তার পিতা-মাতার কাছে তাকে ছেড়ে দেয়া হয়। পরে সকালে জানতে পারি মোস্তফা মারা গেছে। নেছারাবাদ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জানান, নিহত মোস্তফার গলা ও ডান চোখের নিচে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে তারা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছে। মোস্তফাকে মারার ব্যাপারে তারা (নিহতের স্বজনেরা) থানায় যাদের নাম বলছে আমরা তদন্ত করে ব্যবস্থা নিব। : :





প্রথম পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, মন্ত্রীদের বক্তব্যের সঙ্গে রায়ের হুবহু মিল রয়েছে। আপনিও কি তাই মনে করেন?
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
7017 জন