এক খিলি পান ৮ টাকা অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধি
টেকনাফ উখিয়ায় পানের ভোক্তা বাড়লেও উৎপাদন কম
Published : Sunday, 11 February, 2018 at 12:00 AM
টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি : পানের অস্বাভাবিক দামে টেকনাফ উপজেলায় পান চাষীরা খুশিতে আত্মহারা। সেই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে খিলি পানের দামও বেড়ে যাওয়ায় পানে অভ্যস্ত তথা পানখেকোরা চরম দিশেহারা হয়ে পড়েছেন বলে জানা গেছে। বর্তমানে টেকনাফ উপজেলার ৬টি ইউনিয়ন এবং ১টি পৌরসভার মধ্যে শুধুমাত্র সাবরাং ইউনিয়ন ব্যতীত অবশিষ্ট ৫টি ইউনিয়ন এবং ১টি পৌরসভা এলাকায় ১ খিলি পান ৭ থেকে ৮ টাকা দরে বেচাকেনা হচ্ছে। এত দিন ১ খিলি পানের দাম ছিল ৫ টাকা। পানের দাম অস্বাভাবিক বৃদ্ধি পাওয়ায় খিলি পানের দামও বাড়ানো হয়েছে বলে দোকানিরা দাবি করেছেন। তবে বিগত বছরগুলোতে পানের দাম না বাড়লেও এমনকি এক বিরা (৮০টি পানে ১ বিরা) পানের দাম মাত্র ২০ টাকার সময়ে খিলি পানের দাম ৫ টাকা থেকে না কমানোর যুক্তিতে সাবরাং ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ নুর হোসেন উদ্যোগ নিয়ে খিলি পানের দাম বাড়াতে দেননি। এতে পানে অভ্যস্ত তথা পানখেকোরা সাবরাং ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ নুর হোসেনকে সাধুবাদ জানিয়েছেন। জানা গেছে, তিন সপ্তাহ আগের চেয়ে বর্তমানে কয়েক গুণ বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে এখানকার উৎপাদিত পান। অন্যান্য বছর এ সময়ে যে সাইজের এক বিরা পান মাত্র ২০ থেকে ৩০ টাকা দরে বেচাকেনা হতো, সে সাইজের এক বিরা পান বর্তমানে বেচাকেনা হচ্ছে ২০০ টাকা থেকে ২৫০ টাকা দরে। পাহাড়ি এলাকায় একবার পানের চাষ করলে প্রায় দুই বছর পর্যন্ত ফলন পাওয়া যায়। সমতল জমিতে ফলন পাওয়া যায় প্রায় ৯ মাস। সমতল জমিতে পানের চাষ শুরু হয় অক্টোবরে, শেষ হয় জুন মাসে। আর পাহাড়ি এলাকায় পানের চাষ যে কোনো সময় অথবা বর্ষা মৌসুমে বেশি করা যায় বলে স্থানীয় কৃষকরা জানিয়েছেন। উপজেলার সাবরাং ইউনিয়নের নয়াপাড়া, সিকদারপাড়া, টেকনাফ পৌরসভার বাসস্টেশন, সদর ইউনিয়নের বটতলী, লেঙ্গুরবিল, মিঠাপানিরছড়া, বাহারছড়া ইউনিয়নের বড় ডেইল, মাথাভাঙ্গা, শীলখালী, শামলাপুর, হ্নীলা ইউনিয়নের পানখালী, মৌলভীবাজার এবং হোয়াইক্যং ইউনিয়নের কাঞ্জরপাড়া, মিনাবাজার ও হোয়াইক্যং বাজারে পানের বড় বড় বাজার বসে। সপ্তাহে প্রতি রবি ও বুধবার এই দুই দিন এসব হাটবাজারে পান বিক্রি হয়। টেকনাফ সদর ইউনিয়নের লেঙ্গুরবিল গ্রামের পান চাষী আমির আহমদ বলেন, ২০-২৫ বছর আগে এক বিরা বিক্রি হয়েছে ৫০ থেকে ৮০ টাকায়। এরপর গত বছর বিক্রি হয় ১৫০ থেকে ২২০ টাকায়। এখন চলতি মৌসুমে সেই পান ছোট-বড় আকার ভেদে বিক্রি হচ্ছে ৪৫০ থেকে ৫৫০ টাকায়। উপজেলার বিভিন্ন বাজার ঘুরে জানা যায়, গত মাসে এক বিরা পানের দাম ছিল মাত্র ১৫০ থেকে ১৮০ টাকা। এখন সেই পান বিক্রি হচ্ছে ৪৫০ থেকে ৫৫০ টাকা পর্যন্ত। এ রকম পানের দাম অতীতে আর কখনো বাড়েনি। : :





দেশের পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

ভারতীয় গণমাধ্যম বলেছে, এই মুহূর্তে নির্বাচন হলে আ’লীগ হেরে যাবে। আপনিও কি তাই মনে করেন?
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
4973 জন