সারাদেশে বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের গ্রেফতার অব্যাহত
Published : Monday, 12 February, 2018 at 12:00 AM
দিনকাল ডেস্ক : সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকারের ষড়যন্ত্রমূলক মামলার রায়কে কেন্দ্র করে সারাদেশে বিএনপি এবং অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের ধরপাকড় আটক গ্রেফতার অব্যাহত আছে। : রংপুর : স্টাফ রিপোর্টার, রংপুর জানান, রংপুর মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক  শহিদুল ইসলাম মিজুসহ ৩ বিএনপি নেতাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শনিবার বিকেল সাড়ে ৫টায় রংপুর মহানগর বিএনপির কার্যালয়ে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার দন্ডাদেশের প্রতিবাদে শান্তিপূর্ণ  সমাবেশ শেষে  চলে যাওয়ার সময় তাদের গ্রেফতার করা হয়। এর প্রতিবাদে গতকাল রবিবার  দুপুরে যুবদল মহানগরীতে বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মহানগর যুবদল সভাপতি মাহফুজ উন নবী ডন, সাধারণ সম্পাদক লিটন পারভেজ ও সাংগঠনিক সম্পাদক জহির আলম নয়নের নেতৃত্বে মিছিলটি নগরীর ধাপ এলাকা থেকে বের হয়ে বাংলাদেশ ব্যাংক মোড়ে গিয়ে শেষ হয়। মিজুকে আদালতে হাজির করার কথা থাকলেও গতকাল বিকাল সাড়ে ৪টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত  তাকে আদালতে আনা হয়নি। এদিকে সাধারণ সম্পাদক মিজুকে গ্রেফতারের তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন মহানগর সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মোজাফফর হোসেন, জেলা বিএনপির সভাপতি সাইফুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক রইস আহমেদ, মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি সুলতান আলম বুলবুল, রুহুল আলম বাবলু, অ্যাডভোকেট রেজেকা সুলতানা ফেন্সি, যুগ্ম সম্পাদক সালেকুজ্জামান সালেক, সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম, জেলা বিএনপির সহ সভাপতি কাজী খয়রাত, মামুনার রশিদ মামুন, মহানগর যুবদল সভাপতি মাহফুজ উন নবী ডন, সাধারণ সম্পাদক লিটন পারভেজ, জেলা সভাপতি নাজমুল আলম নাজু মহানগর ছাত্রদল সভাপতি নুর হোসেন সুমন, সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া ইসলাম জিম, জেলা ছাত্রদল সভাপতি মনিরুজ্জামান হিজবুল, সাধারণ সম্পাদক শরীফ নেওয়াজ জোহা, তারা বলেন, সরকার গণতন্ত্রকে হত্যা করেছে। এরই অংশ হিসেবে শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ সমাবেশেও নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করছে। এই সরকার বেগম জিয়ার অন্যায় দন্ডাদেশের বিরুদ্ধে জনরোষ ঠেকাতে পুলিশ দিয়ে গণগ্রেফতার করে দেশকে একটি কারাগারে পরিনত করছে। এর পরিমান শুভ হবে না। তারা মিজুসহ সকল নেতাকর্মীর  নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেন।  উল্লেখ্য, গত শনিবার বিকেলে সমাবেশ শেষে মিজু কার্যালয়ের পিছনে নুর আলমের বাড়িতে পানি খাওয়ার জন্য যায়। বিনা উষ্কানিতে পুলিশ সেখানে অভিযান চালায়। মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম মিজু, সহ-প্রচার সম্পাদক মোস্তাফিজার রহমান বিপু ও জেলা যুবদল সদস্য আকিবুল ইসলাম মনুসহ এক বিএনপি কর্মিকে গ্রেফতার করে। এসময় সেখানে বিপুল পরিমান পুলিশ মোতায়েন করা হয়। সন্ধ্যায় কোতোয়ালি থানার ওসি বাবুল মিঞা উপস্থিত হয়ে মিজুসহ অন্যান্য নেতাদের থানায় নিয়ে আসে। : ময়মনসিংহ : ময়মনসিংহ প্রতিনিধি জানান, ময়মনসিংহে দক্ষিণ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবু ওয়াহাব আকন্দের রিমান্ড আবেদন নামঞ্জুর করেছেন আদালত। রবিবার দুপুরে ময়মনসিংহের সিনিয়র জুডিশিয়াল ১নং আমলী আদালতের বিজ্ঞ বিচারক এ আদেশ দেন। আসামিপক্ষের আইনজীবী অ্যাড. মাসুদ তানভীর তান্না জানান, পুলিশ আবু ওয়াহাব আকন্দকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করেছিল। কিন্তু আদালত রিমান্ড আবেদন নামঞ্জুর করেছে। সংশ্লিষ্ট আদালতের জিআরও এসআই মনিরুজ্জামান জানান, রিমান্ড আবেদন নামঞ্জুর করা হয়েছে। তবে একদিন জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের আদেশ দেয়া হয়েছে কি না হাতে না নথি আসলে তা সঠিকভাবে বলতে পারছি না। প্রসঙ্গত, গত ৮ ফেব্রুয়ারি সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে জিয়া অরফানেজ মামলায় সাজা দেয়ার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল করলে পুলিশ দক্ষিণ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবু ওয়াহাব আকন্দসহ ৮ জনকে গ্রেফতার করে। এ সময় পুলিশের রাবার বুলেটে বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী আহত হয়। : ফুলপুর : ফুলপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি জানান, বিএনপি চেয়ারপারসন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া এবং বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলায় সাজা দেয়ার প্রতিবাদে ময়মনসিংহের ফুলপুর উপজেলায় গতকাল শুক্রবার বিকাল ৪টায় সাবেক এমপি শাহ শহীদ সারোয়ারের নেতৃত্বে বিএনপির কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসাবে এক বিক্ষোভ মিছিল করেন ফুলপুর উপজেলা বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ। এদিকে শনিবার রাত ১টার সময় ফুলপুর উপজেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এনামুল হক বাবুলকে তার নিজ বাসা থেকে গ্রেফতার করেছে ফুলপুর থানা পুলিশ।  তাকে গ্রেফতারের ঘটনার তীব্র নিন্দা এবং প্রতিবাদ জানিয়েছেন শাহ শহীদ সারোয়ার। তিনি বলেন, পুলিশ সারাদেশে ভীতির রাজত্ব কায়েম করেছে সরকার। আমাদের নেতাকর্মীদের যেখানেই পাচ্ছে গ্রেফতার করছে, তাদের বাড়িঘরে বিনা কারণে তল্লাশি চালাচ্ছে। খালেদা জিয়াকে সরকারের এত ভয় করে জানা ছিল না। সরকার যা করছে এটা কাপুরুষতাকে হার মানিয়েছে। এটা কখনোই রাজনীতি ভাষা হতে পারে না। অপরদিকে সাবেক এমপি শাহ শহীদ সারোয়ারসহ ফুলপুর উপজেলা বিএনপির নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে পরপর ৩টি মামলা দায়ের করেছে ফুলপুর থানা পুলিশ। : ব্রাহ্মণবাড়িয়া : ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি জানান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া বিএনপি-জামায়াতের নেতাকর্মী গ্রেফতার অব্যাহত রয়েছে। গত শনিবার বিকেল থেকে রবিবার ভোর ছয়টা পর্যন্ত পুলিশ জেলা সদরসহ বিভিন্ন উপজেলায় অভিযান চালিয়ে বিএনপির ২১ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে। জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. ইমতিয়াজ আহমদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, গ্রেফতারকৃতদেরকে গতকাল রবিবার আদালতে পাঠানো হয়। : দাগনভূঞা : দাগনভূঞা (ফেনী) সংবাদদাতা জানান, ফেনীর দাগনভূঞা উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি নিজাম উদ্দিন ভূঞা হুদনকে গ্রেফতার করেন দাগনভূঞা থানার এসআই আউয়ালসহ বিশেষ দল। উল্লেখ্য, নিজাম উদ্দিন ভূঞা হুদনের নামে ২০১৫ সালে ছাত্রদলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে গাড়ি ভাঙচুর দুটি মালার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি। এ ব্যপারে দাগনভূঞা থানার ওসি আবুল কালাম আজাদের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি নিজাম উদ্দিন ভূঞা হুদনের গ্রেফতার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। : রামগতি : রামগতি (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি জানান, রামগতিতে গ্রেফতার আতঙ্কে ঘরছাড়া হয়ে পড়েছে বিএনপি নেতাকর্মীরা। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক উপজেলা বিএনপি নেতাকর্মীরা জানান, দিনে ও রাতে বাড়ি বাড়ি তলাশি চালাচ্ছে পুলিশ। এদিকে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায়কে ঘিরে পুলিশের বিশেষ অভিযানে ৬ নেতাকর্মীকে আটক করে আদালতে প্রেরণ করেছে মডেল থানা পুলিশ। রামগতি উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুর রব ও তার সাথে আবুল ফাতাহ নামে একজন জামাতের কর্মীকে ০৪/০২/২০১৮ তারিখে গভীর রাতে বাসা থেকে আটক করে আদালতে প্রেরণ করেছে রামগতি থানা পুলিশ। উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার থেকে শুরু করে শুক্রবার পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে বিএনপি ও দলটির অঙ্গসংগঠনের অনেক নেতাকর্মীকে আটক করছে পুলিশ। বুধবার সন্ধ্যা থেকে শুক্রবার পর্যন্ত উপজেলার বিভিন্নস্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। আটককৃতদের মধ্যে সাংগঠনিক সম্পাদক দিদারুল আলম, রামগতি উপজেলা জামাত ইসলামী সেক্রেটারি রামগতি পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাওলানা আব্দুর রহিম ও জামায়াত সদস্য মোঃ নুর উদ্দিনকে আদালতে প্রেরণ করেছে পুলিশ। এদিকে উপজেলার সাবেক ছাত্রদলের সভাপতি ও বর্তমানে স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি আবু সায়েম মোঃ শাহিনকে ০১/০২/২০১৮ তারিখে ঢাকা রামপুরার বৌ-বাজার তার ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান থেকে আটক করে রামপুরা থানা পুলিশ। : চুয়াডাঙ্গা : চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি জানান, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মামলার বায়কে কেন্দ্র করে গত কয়েক দিনে পুলিশ চুয়াডাঙ্গা জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে ৭২ জন বিএনপি ও জামায়াত নেতাকর্মীকে আটক করে নাশকতার মামলা দিয়ে জেলহাজতে পাঠিয়েছে। চুয়াডাঙ্গা জেলা শহরসহ আলমডাঙ্গা, দর্শনা, জীবননগর, দামুড়হুদাসহ জেলার গ্রাম গ্রামান্তরে পুলিশ বিএনপির নেতাকর্মীদের বাড়িতে গিয়ে তল্লাশি ও খোঁজ করেছে। এর মধ্যে ৭২ জনকে আটক করেছে। আটককৃতদের মধ্যে রয়েছে জেলা যুবদলের আহ্বায়ক খালিদ মাসুদ মিল্টন, যুগ্ম আহবায়ক সাইফুর রশিদ ঝন্টু, আলমডাঙ্গা উপজেলা বিএনপির সভাপতি আলহাজ মজিবর রহমান, জেলা বিএনপির সভাপতি আজিজুর রহমান পিন্টু যুগ্ম আহবায়ক আনিছুর রহমান। তাছাড়া পুলিশ প্রতিনিয়তই জেলা বিএনপির আহবায়ক অহিদুল ইসলাম বিশ^াস, যুগ্ম আহবায়ক অ্যাডভোকেট ওহেদুজ্জামান বোলা যুগ্ম আহবায়ক মজিবুল হক মালিক মজু সহ চুয়াডাঙ্গা শহরের প্রায় নেতা কর্মীদের বাড়ি তল্লাশি ও তাদের গ্রেফতারের চেষ্টা করেছে। এলাকায় সর্বদা বিএনপি নেতাকর্মীদের মাঝে একটা আতঙ্ক বিরাজ করছে। : কাহালু : কাহালু (বগুড়া) প্রতিনিধি জানান, গত শনিবার বিকেলে ডিবি পুলিশ বগুড়া জেলা বিএনপির কার্যালয়ের সামনে হতে কাহালু উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব অধ্য রফিকুল ইসলাম (৪৬)কে গ্রেফতার করেছে। এ ব্যাপারে কাহালু থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শওকত কবির অধ্য রফিকুল ইসলামকে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, নাশকতা ও বিস্ফোরক মামলার আসামি হিসেবে তাকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। : কেশবপুর : কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি জানান, যশোরের কেশবপুর থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে নাশকতা মামলায় ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি কামরুজ্জামান শিশুকে গ্রেফতার করেছে। থানা পুলিশ জানায়, শনিবার রাতে থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে উপজেলার বেগমপুর গ্রামের মৃত ইব্রাহিম গাজীর ছেলে সাতবাড়িয়া ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি ও ইউপি মেম্বার কামরুজ্জামান শিশুকে (৪৫) গ্রেফতার করে। কেশবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ শাহাজাহান আহমদ বলেন, বিএনপি নেতা ইউপি মেম্বার কামরুজ্জামান শিশুর বিরুদ্ধে থানায় নাশকতা সৃষ্টির মামলা রয়েছে। রবিবার সকালে তাকে যশোর আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। : আড়াইহাজার : আড়াইহাজার (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি জানান, নারায়ণগঞ্জে আড়াইহাজার থানার নাশকতার মামলায় বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক নজরুল ইসলাম আজাদসহ ৭ জনের ১ দিনের রিমান্ড দিয়েছে আদালত। রবিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) সকাল সোয়া ১১টায় অতিরিক্ত চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (আড়াইহাজার থানা শাখা) আশোক কুমার দত্তের আদালতে আড়াইহাজার থানার নাশকতার মামলার আসামিদের ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ। পরে আদালত প্রত্যেকের একদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন। রিমান্ডপ্রাপ্ত বাকি আসামিরা হলেন, জুয়েল, সালাহউদ্দিন, মনির, গাজী, লিটন, রাজীব। আসামিপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট জাকির হোসেন  বিষয়টি নিশ্চিত করেন। এই সময় কোটে বিএনপি নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। : পলাশ : পলাশ প্রতিনিধি জানান, নরসিংদীর পলাশ উপজেলায় ছাত্রদল নেতা মো. মাসুদ খানকে আটক করেছে থানা পুলিশ। শনিবার রাতে উপজেলার জিনারদী ইউনিয়নের চরনগরদী বাজার থেকে তাকে আটক করা হয়। আটককৃত মাসুদ খান উপজেলার জিনারদী ইউনিয়নের মো. মাজহারুল খানের ছেলে। মাসুদ খান পলাশ উপজেলা ছাত্রদলের সিনিয়র যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক। পলাশ থানা সূত্রে জানা যায়, গত ৭ ফেব্রুয়ারি ঘোড়াশাল পৌর এলাকার ভূঁইয়ার ঘাটে সরকার বিরোধী, দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র ও আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন বানচাল করার লক্ষ্যে পল্টন থানা যুবদলের সভাপতি তারিকুল হক অপুর নেতৃত্বে গোপন বৈঠক চলার সময় পুলিশ ওই স্থানে বিশেষ অভিযান চালিয়ে পল্টন থানা যুবদলের সভাপতি তারিকুল হক অপুকে আটক করে। পরে অপুর দেয়া তথ্যমতে পলাশ থানা বিএনপি, যুবদল ও ছাত্রদলের ২৭ নেতাকর্মীর নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত নামা আরো ৫০-৬০ জনকে আসামি করে পলাশ থানার এসআই মীর সোহেল রানা বাদী হয়ে সরকার বিরোধী ও দেশ বিরোধী ষড়যন্ত্র করার অপরাধে ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনের ১৬(২)/২৫-ডি ধারায় নাশকতার মামলা দায়ের করে। এ ব্যাপারে পলাশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম আজাদ জানান, ৭ ফেব্রুয়ারি ঘোড়াশাল পৌর এলাকার ভূঁইয়ার ঘাটে সরকার বিরোধী, দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র ও আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে বানচাল করার উদ্দেশ্যে গোপন বৈঠক করায় আটককৃত মাসুদ খানের বিরুদ্ধে থানায় একটি নাশকতার মামলা হয়। ওই মামলায় মাসুদ খানকে আটক করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। : চাটখিল : চাটখিল (নোয়াখালী) প্রতিনিধি জানান, নোয়াখালী জেলার চাটখিল থানা পুলিশ বিএনপির ৩৭ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা করেছে। এ মামলায় পৌরসভা বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলাউদ্দিন ভূইয়াসহ ৯ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে। এরপর থেকে বিএনপির নেতাকর্মীদের মধ্যে গ্রেফতার আতঙ্ক বিরাজ করছে এবং গা-ঢাকা দিয়েছে। জানা গেছে, কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে শনিবার বিকেলে চাটখিল উপজেলা সদরে দক্ষিণ বাজার থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিলটি বিএনপির কার্যালয়ের সামনের যাওয়ার পথে পুলিশ বাধা দেয়। এ সময় পুলিশের সাথে বিএনপির নেতাকর্মীদের হাতাহাতি হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেলে পুলিশ ৩/৪ রাউন্ড ফাঁকা গুলিবর্ষণ করেন। এ সময় বিএনপির ১৫ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন বলে জানান উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবু হানিফ। এ ঘটনায় থানা পুলিশ রবিবার রাতে উপজেলা বিএনপির সভাপতি আনোয়ার হোসেন, সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. আবু হানিফসহ বিএনপির ৩৭ জন নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা (নং-৬) দায়ের করে। এ মামলায় বিএনপির নেতা আলাউদ্দিন ভূইয়া (৫৫), মাহাবুবুর রহমান জুয়েল (৩৭), জসিম উদ্দিন (৩৫), যুবদল নেতা হারুন (৩৫), সুজন (৩৪), রাকিব (৩৭), গোলাম নুর (৩০)কে গ্রেফতার করে জেলহাজতে প্রেরণ করেন। থানা অফিসার ইনচার্জ জহিরুল আনোয়ার জানান, পুলিশের সাথে সংঘটিত ঘটনায় এ মামলা দায়ের করেছে। অন্য আসামিদের গ্রেফতারের অভিযান চলছে। : বড়াইগ্রাম : বড়াইগ্রাম (নাটোর) প্রতিনিধি জানান, বড়াইগ্রামের বনপাড়া পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদকসহ তিন নেতাকর্মীকে শনিবার রাতে আটক করেছে পুলিশ। আটকরা হলেন পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও বনপাড়া সরদারপাড়া মহল্লার বাসিন্দা সরদার রফিকুল ইসলাম (৪৫), নগর ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক দলের সাংগঠনিক সম্পাদক মেরিগাছা গ্রামের আব্দুর রহিমের ছেলে বাবলু হোসেন (৩৫) ও স্বেচ্ছাসেবক দলের কর্মী একই গ্রামের আক্কাস আলীর ছেলে মোস্তফা (৩৯)। বড়াইগ্রাম থানার ওসি শাহরিয়ার খান জানান, রফিকুল ইসলাম সন্ত্রাস বিরোধী আইনে রুজু করা মামলার আসামি হিসাবে ও অপর দুইজনকে ভিন্ন মামলায় কোর্টের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। : :





শেষ পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ বলেছেন, অদৃশ্য শক্তির কারণে সাগর-রুনি হত্যার বিচারে কালক্ষেপণ করা হচ্ছে। আপনি কী একমত?
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
1442 জন