আজ সার্টিফাইয়েড কপি পেলে আগামীকাল আপিল করা হবে
Published : Wednesday, 14 February, 2018 at 12:00 AM, Update: 13.02.2018 10:29:36 PM
দিনকাল রিপোর্ট : বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার পে আগামীকাল বৃহস্পতিবার উচ্চ আদালতে আপিল করা হবে বলে জানিয়েছেন তার আইনজীবী। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে কারাফটকে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে বেগম জিয়ার আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া বলেন, রায়ের সার্টিফাইড কপি আজ বুধবার পাওয়া যাবে বলে আদালত থেকে জানতে পেরেছি। আমরা যদি বুধবার রায়ের কপি পাই তাহলে পরের দিন অর্থাৎ বৃহস্পতিবার আপিল আবেদন করতে পারব। : আপিল আবেদনের পর বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে যদি প্রোডাকশন অ্যারেস্ট জারি হয় তাহলে তা প্রত্যাহারের আবেদন জানানো হবে বলে জানান সানাউল্লাহ মিয়া। তিনি বলেন, আমরা ওকালতনামায় বেগম খালেদা জিয়ার স্বার নিতে এসেছিলাম। কারণ আমরা শুনেছি তার বিরুদ্ধে প্রোডাকশন অ্যারেস্ট জারি হয়েছে। তবে কারা কর্তৃপ জানালো, বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে কোনো প্রোডাকশন ওয়ারেন্ট আসেনি। তাই ওকালতনামা জেল সুপারের কাছে রেখে এসেছি। : খালেদা জিয়ার সাক্ষাৎ পাননি ঢাবি শিক্ষকরা : ছয়দিন ধরে কারাগারে বন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সাথে দেখা করতে চেয়েছিলেন ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের কয়েকজন শিক্ষক। কিন্তু পুলিশ তাদেরকে দেখা করার অনুমতি দেয়নি। ফলে বাধ্য হয়ে শিক্ষকবৃন্দ ফিরে যান। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। দুপুর সোয়া ১টার দিকে ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের কয়েকজন অধ্যাপক বেগম খালেদা জিয়ার শারীরিক খোঁজখবর নিতে তার সাথে দেখা করতে বকশীবাজারের পুরনো কারাগারে যেতে চেয়েছিলেন। সঙ্গে কিছু ফলমূলও ছিল। ঢাবি শিক্ষকদের মধ্যে ছিলেন অধ্যাপক ড. এবিএম ওবায়দুল ইসলাম, অধ্যাপক ড. মোর্শেদ হাসান খান, অধ্যাপক ড. গোলাম রব্বানী, অধ্যাপক সাবরিনা শাহনাজ, অধ্যাপক শামীমা রহিম এবং অধ্যাপক ড. ফরহাদ হালিম ডোনার। কিন্তু পুলিশ তাদেরকে প্রথমে চানখাঁরপুল এলাকায় আটকে দেন। পরে শিক্ষকরা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার সাথে কথা বলে কারাগারের প্রধান ফটকের দিকে এগুতে থাকেন। তবে সেখানে তাদের আটকে দেয়া হয়। আর সামনে যেতে দেয়নি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।  অধ্যাপক ড. মোর্শেদ হাসান খান বলেন, আমরা বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার সাথে কারাগারে দেখা করতে চেয়েছিলাম। কিন্তু পুলিশ আমাদেরকে যেতে দেয়নি। তারা বলেন যে, অনুমতি নিতে হবে। আমরা কারাফটকে আবেদন দিতে চাইলে তারা বলেন যে, এভাবে আবেদন করলে হবে না, আইজি প্রিজনের কাছে আবেদন করে অনুমতি নিতে হবে। ফলে একপর্যায়ে আমাদেরকে ফেরত আসতে হয়েছে। : : :





প্রথম পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন বলেছেন, বেগম খালেদা জিয়াকে রাজনৈতিকভাবে হয়রানির জন্যই জেলে রাখা হয়েছে। আপনিও কি তাই মনে করেন?
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
1791 জন